বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কোভিডে মৃতের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ, NDMAকে গাইডলাইন তৈরির নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের
কোভিডে মৃতের পরিবারকে সহায়তার জন্য গাইডলাইন তৈরির নির্দেশ কেন্দ্রের  (প্রতীকী ছবি)
কোভিডে মৃতের পরিবারকে সহায়তার জন্য গাইডলাইন তৈরির নির্দেশ কেন্দ্রের  (প্রতীকী ছবি)

কোভিডে মৃতের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ, NDMAকে গাইডলাইন তৈরির নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

  • সর্বোচ্চ আদালতের পর্যবেক্ষণ যে ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অ্যাক্টের ১২ নম্বর সেকশন অনুসারে তাঁদের এক্সগ্রাসিয়া দিয়ে নূন্যতম স্বস্তি দেওয়ার ব্যাপারে গাইডলাইন তৈরি করাটা বাধ্যতামূলক।

কোভিডে মৃত্যুর ক্ষতিপূরণ সংক্রান্ত বিষয়ে বুধবার সুপ্রিম কোর্টের বিশেষ নির্দেশ। কোভিড ১৯য়ের থাবার মৃত্যু হওয়া ব্যক্তির পরিবারকে এক্সগ্রাসিয়া(ex gratia) ক্ষতিপূরণের জন্য গাইডলাইন তৈরির ব্যাপারে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরকে(NDMA) নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। তবে কত টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হবে ওই পরিবারকে সেটা জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের উপরই ছেড়ে দিতে চেয়েছে দেশের সর্বোচ্চ আদালত। আগামী ৬ সপ্তাহের মধ্যে সেই গাইডলাইন পেশ করার ব্যাপারে নির্দেশ দিয়েছে আদালত। 

আদালতের রায়ে বলা হয়েছে ন্যূনতম স্বস্তির জন্য কোভিড মৃতের পরিবারকে এক্সগ্রাসিয়া ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ক্ষেত্রে গাইডলাইন তৈরির জন্য জাতীয় বিপর্যয় মোকিবিলা দফতরকে নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে। তবে সেই যথাযথ ক্ষতিপূরণের পরিমাণের বিষয় সংশ্লিষ্ট দফতরের উপরই ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি সর্বোচ্চ আদালতের পর্যবেক্ষণ যে ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অ্যাক্টের ১২ নম্বর সেকশন অনুসারে তাঁদের এক্সগ্রাসিয়া দিয়ে ন্যূনতম স্বস্তি দেওয়ার ব্যাপারে গাইডলাইন তৈরি করাটা বাধ্যতামূলক। এই কাজে ব্যর্থ হলে জাতীয় কর্তৃপক্ষ সেকশন ১২র ধারা অনুসারে দফতর কাজ করতেও ব্যর্থ বলে গণ্য করা হবে। জানিয়েছে আদালত। 

পাশাপাশি আদালত জানিয়েছে কোভিডে মৃত্যুর ক্ষেত্রে যে ডেথ সার্টিফিকেট ইস্যু করা হচ্ছে তাতে তারিখ ও মৃত্যুর কারণ উল্লেখ করা বাঞ্চনীয়। তবে কোনও পরিবার যদি ডেথ সার্টিফিকেটে মৃত্যুর কারণকে ঘিরে আপত্তি তোলে তবে তা সংশোধনের সুযোগ থাকা দরকার। প্রসঙ্গত কোভিডে ও মিউকরমাইকোসিসে মৃত্যু হওয়া ব্যক্তির পরিবারকে ৪ লক্ষ টাকা ex-gratia ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ব্যাপারে আদালতে আবেদন করা হয়েছিল। তারই পরিপ্রেক্ষিতে জাস্টিস অশোক ভূষণ ও এমআর শাহের বেঞ্চ এই রায় দিয়েছে। পাশাপাশি বিপর্যয়  মোকাবিলা দফতর আদৌ এই এক্স গ্রাসিয়া দেওয়ার বিষয়টি বিবেচনার মধ্যে রয়েছে কি না সেটাও আদালত কেন্দ্রের কাছে জানতে চেয়েছে। 

 

বন্ধ করুন