বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Parliament: ২১ জুলাইয়ের প্রস্তুতির কারণে বাদল অধিবেশনের আগে সর্বদলীয় বৈঠকে থাকছে না তৃণমূল
সংসদ ভবন। ছবি সৌজন্য এএনআই। (Amlan Paliwal)

Parliament: ২১ জুলাইয়ের প্রস্তুতির কারণে বাদল অধিবেশনের আগে সর্বদলীয় বৈঠকে থাকছে না তৃণমূল

  • আজ বিকেল চারটের সময় লোকসভার স্পিকার সর্বদলীয় বৈঠকের ডাক দিয়েছেন। অন্যদিকে, আগামীকাল সকাল ১১ টায় সরকারের পক্ষ থেকে সর্বদলীয় বৈঠক ডাকা হয়েছে। সেই বৈঠকে উপস্থিত থাকতে পারেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এছাড়াও বিভিন্ন দলের নেতারা এই বৈঠকে উপস্থিত থাকতে পারেন বলে জানা গিয়েছে।

সংসদে বাদল অধিবেশনের আগে সর্বদলীয় বৈঠকে ডাক দিয়েছেন লোকসভার স্পিকার। তবে সেই বৈঠকে থাকছে না তৃণমূল কংগ্রেস। আর এই নিয়ে শুরু হয়েছে জোর চর্চা। যদিও সর্বদলীয় বৈঠকে উপস্থিত না থাকার কারণ স্পষ্ট করেছেন তৃণমূল সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি জানিয়েছেন, একুশে জুলাইয়ের প্রস্তুতির কারণে এখন তৃণমূলের সমস্ত সাংসদরা ব্যস্ত রয়েছেন। সেই কারণে তৃণমূল বাদল অধিবেশনের আগে সর্বদলীয় বৈঠকে উপস্থিত থাকতে পারবেন না । এই মর্মে লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লাকে চিঠি দিয়েছেন সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়।।

উল্লেখ্য, আজ বিকেল চারটের সময় লোকসভার স্পিকার সর্বদলীয় বৈঠকের ডাক দিয়েছেন। অন্যদিকে, আগামীকাল সকাল ১১ টায় সরকারের পক্ষ থেকে সর্বদলীয় বৈঠক ডাকা হয়েছে। সেই বৈঠকে উপস্থিত থাকতে পারেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এছাড়াও বিভিন্ন দলের নেতারা এই বৈঠকে উপস্থিত থাকতে পারেন বলে জানা গিয়েছে। বৈঠকে বাদল অধিবেশন সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনা করা হবে। সমস্ত বিরোধী দলের নেতাদের সর্বদলীয় বৈঠকে ডেকে পাঠানো হয়েছিল। তবে তৃণমূল স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে যে ২১ শে জুলাই প্রস্তুতির কারণে তারা বৈঠকে উপস্থিত থাকতে পারবেনা।

প্রসঙ্গত, ১৮ জুলাই রাষ্ট্রপতি নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে। আর এই মুহূর্তে রাজ্যে জোর কদমে চলছে একুশে জুলাইয়ের প্রস্তুতি। ফলে তৃণমূলের সমস্ত সাংসদ বিধায়করা ২১ শে জুলাই প্রস্তুতিতে ব্যস্ত র। এই কারণে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের জন্য তৃণমূলের সাংসদরা সংসদ কক্ষে যে যেতে পারবেন না সে বিষয়ে আগেই নির্বাচন কমিশনের কাছে আবেদন জানিয়েছিল তৃণমূল। তার পরিবর্তে রাজ্য বিধানসভা থেকেই রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোট দেওয়ার আবেদন জানিয়েছে তৃণমূল।

বন্ধ করুন