বাংলা নিউজ > ময়দান > ১৫ মাস খেলা বন্ধ থাকার পরেও, যুব ভারতীয় দলের সাফল্য়ে উচ্ছ্বসিত সৌরভের শুভেচ্ছা
বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।
বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

১৫ মাস খেলা বন্ধ থাকার পরেও, যুব ভারতীয় দলের সাফল্য়ে উচ্ছ্বসিত সৌরভের শুভেচ্ছা

  • মোট ৯ বার এশিয়া কাপ হয়েছে। তার মধ্যে আট বারই ভারত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। এর মধ্যে ২০১২ সালে ম্যাচ টাই হয়ে ভারত এবং পাকিস্তান যুগ্ম ভাবে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।

এই নিয়ে মোট ৮ বার অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ভারত। আর ২০১৮, ২০১৯ এবং ২০২১ সালে পরপর তিন বার চ্যাম্পিয়ন হয়ে নয়া নজির গড়ে ফেলল ভারত। এই প্রথম বার পরপর তিন বার এশিয়া কাপের ফাইনাল জিতল অনূর্ধ্ব-১৯ ভারতীয় দল। মোট ৯ বার এশিয়া কাপ হয়েছে। তার মধ্যে আট বারই চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ভারত। আর ভারতের যুব দল চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পরেই উচ্ছ্বসিত হয়ে টুইট করে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

টুইটে সৌরভ লিখেছেন, ‘এশিয়া কাপ জেতার জন্য অনূর্ধ্ব-১৯ টিমকে অনেক শুভেচ্ছা .. কোভিডের জন্য ২০২০ সাল থেকে ১৫ মাস কোনও ক্রিকেট আয়োজন করা সম্ভব হয়নি। তার পরেও এ রকম সাফল্য নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয়.. প্লেয়ার এবং কোচেরা অসাধারণ করেছে.. নতুন নির্বাচকর, যাঁরা সেরা টিম বেছে নিতে অনেক কম সময় পেয়েছে, তাঁদেরকেও শুভেচ্ছা.. এনসিএ-কেও কৃতিত্ব জানাতে হবে এর জন্য।’

বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে ভারত জিতল ৯ উইকেটে। ৬৩ বল বাকি থাকতেই এল জয়। শুক্রবার প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ভারতীয় বোলারদের দাপটে ব্যাটিং বিপর্যয়ের মুখে পড়ে শ্রীলঙ্কা। একের পর এক উইকেট হারাতে থাকে তারা। ৩২.৫ ওভারে যখন শ্রীলঙ্কার স্কোর ৭৪-৭, তখন বৃষ্টি নামে। ২ ঘণ্টা বৃষ্টি চলায় সম্পূর্ণ ওভার করা সম্ভব ছিল না। ম্যাচ কমে হয় ৩৮ ওভারের। নির্ধারিত ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১০৬ তোলে শ্রীলঙ্কা। ভারতের ভিকি ওৎসওয়াল ৩ উইকেট নেন। দু’টি উইকেট কৌশল তাম্বের। বাংলার রবি কুমার ৮ ওভারে ১৭ রানে একটি উইকেট পান। প্রতিযোগিতায় মোট ৪টি উইকেট পেয়েছেন তিনি।

ভারত ইনিংস শুরু করেছিল দাপটের সঙ্গেই। ছন্দে থাকা হারনুর সিংহকে শুরুতে হারালেও ভারতের ইনিংসকে এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন অঙ্গকৃশ রঘুবংশী এবং শাইক রশিদ। ১৫ ওভারে ভারতের স্কোর যখন ৬২-১, তখন ফের বৃষ্টি নামে। ওভার কমিয়ে ৩২ করা হয়। ভারতের লক্ষ্যমাত্রাও কমে দাঁড়ায় ১০২ রানের। আর কোনও উইকেট না হারিয়েই সেই রান তুলে দেয় ভারত। রঘুবংশী অপরাজিত থাকেন ৫৬ রানে। রশিদ করেন ৩১ রান।

বন্ধ করুন