বাংলা নিউজ > ময়দান > ভেগান হয়েও ডিম খান বলে বিতর্ক, এ বার সমালোচকদের সপাটে জবাব বিরাটের
বিরাটের ডায়েটে মাছ-মাংসা নেই।
বিরাটের ডায়েটে মাছ-মাংসা নেই।

ভেগান হয়েও ডিম খান বলে বিতর্ক, এ বার সমালোচকদের সপাটে জবাব বিরাটের

  • সার্ভিকাল স্পাইনে সমস্যা হওয়ার পরেই নাকি বিরাট কোহলি আমিষ খাবার ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়েছিলেন। আর আমিষ খাবার খাবেন না বলে, রীতিমতো ঘোষণা করেছিলেন তিনি।

বিরাট কোহলি ভেগান হওয়ার পরেও কেন ডিম খান? সোশ্যাল মিডিয়ায় এই নিয়ে শুরু হয়ে যায় নতুন বিতর্ক। চলে ব্যঙ্গ বিদ্রুপও। এ বার সোজাসাপ্টা ভাষায় নিন্দুকদের সব সমালোচনার জবাব দিলেন ভারত অধিনায়ক। 

সম্প্রতি কোহলি ইনস্টাগ্রামে ভক্তদের সঙ্গে একটি প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশ নিয়েছিলেন। সেখানেই এক ভক্ত তাঁর কাছে ডায়েট সম্পর্কে জানতে চেয়েছিলেন। সেই উত্তরেই নিজের ডায়েটে ডিমেরও উল্লেখ করেছিলেন কোহলি। আর তার পর থেকেই শুরু হয়ে যায় কাটাছেঁড়া। 

বিরাটের ডায়েট চার্টে ছিল, প্রচুর সব্জি, কিছু ডিম, ২ কাপ কফি, ডাল, কুইনোয়া, অনেকটা পালং শাক এবং ধোসার নাম। সবই ঠিক ছিল, শুধু বিরাটের ডিম খাওয়া নিয়েই শুরু হয় বিতর্ক।

বিরাটের ডায়েট।
বিরাটের ডায়েট।

আসলে সার্ভিকাল স্পাইনে সমস্যা (ঘাড়ের অংশের মেরুদণ্ডের হাড়ে সমস্যা) হওয়ার পরেই নাকি বিরাট আমিষ খাবার ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়েছিলেন। আর আমিষ খাবার খাবেন না বলে, রীতিমতো ঘোষণা করেছিলেন তিনি। সেই কোহলির ডায়েটে ডিমের নাম দেখেই অবাক হন তাঁর ভক্তরা। আর নিন্দুকেরা শুরু করেন সমালোচনা।

নিন্দুকদের সমালোচনার জবাব দিতে গিয়ে বিরাট কোহলি একটি টুইটে লিখেছেন, ‘আমি কখনও নিজেকে ভেগান বলিনি। আমি সব সময় ভেজিটেরিয়ান বলে এসেছি। লম্বা শ্বাস নিন এবং সব্জি খাওয়া শুরু করুন।’

গত বছর ইনস্টাগ্রামেই প্রাক্তন ব্রিটিশ অধিনায়ক কেভিন পিটারসেনের সঙ্গে লাইভে বিরাট নিজেই জানিয়েছিলেন, ‘ইংল্যান্ডে টেস্ট সিরিজের আগে আমি মাংস খাওয়া ছেড়ে দিয়েছি। ২০১৮-তে আমরা যখন দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়েছিলাম, তখন টেস্ট ম্যাচ খেলার সময়ে সার্ভিকাল স্পাইনে সমস্যা দেখা দিয়েছিল।’ আর তার পর থেকেই সকলে জানতেন, বিরাট ভেগান হয়ে গিয়েছেন।

বন্ধ করুন