বাংলা নিউজ > ময়দান > চ্যাম্পিয়ন হয়েও ট্রফিতে চুমু খেলেননা ম্যাচের সেরা লাজুক কান্তে
ট্রফি হাতে এনগোলো কান্তে (ছবি: গুগল)
ট্রফি হাতে এনগোলো কান্তে (ছবি: গুগল)

চ্যাম্পিয়ন হয়েও ট্রফিতে চুমু খেলেননা ম্যাচের সেরা লাজুক কান্তে

  • ভিডিওতে দেখা যায় চেলসির সব ফুটবলার ট্রফিতে চুমু খাচ্ছেন, কিন্তু কান্তের সময় এলে চুমু না খেয়ে ট্রফির গায়ে হাত বুলিয়ে লাজুক হাসেন ম্যাচের সেরা এনগোলো কান্তে।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালে ম্যাঞ্চেস্টার সিটিকে হারিয়ে শিরোপা জিতেছে চেলসি। ব্লুজদের ইতিহাসে এটি দ্বিতীয় শিরোপা। এদিন চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতার পরে ট্রফিতে চুমু খেলেননা তিনি। ভিডিওতে দেখা যায় চেলসির সব ফুটবলার ট্রফিতে চুমু খাচ্ছেন, কিন্তু কান্তের সময় এলে চুমু না খেয়ে ট্রফির গায়ে হাত বুলিয়ে লাজুক হাসেন ম্যাচের সেরা এনগোলো কান্তে। যেন লজ্জা পাচ্ছিলেন তিনি!

কোথায় ছিলেন না তিনি! ম্যাঞ্চেস্টার সিটি যখন আক্রমণ নিয়ে চেলসির রক্ষণে আছড়ে পড়েছে, এনগোলো কান্তে তখন ডিফেন্ডার! আবার চেলসি যখন আক্রমণে, টিমো ভেরনার, মেসন মাউন্ট আর কাই হাভার্টজের মতো কান্তে তখন পুরোদস্তুর ফরোয়ার্ড! উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে ম্যাঞ্চেস্টার সিটির বিপক্ষে ম্যাচে পুরোটা সময় যেন বল যেখানে ছিল সেখানেই ছিলেন চেলসির ফরাসি মিডফিল্ডার। এ কারণেই তো হাভার্টজের একমাত্র গোলে চেলসি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জয়ের পরও ম্যাচ সেরা হয়েছেন কান্তে।

ম্যাচের সেরা এনগোলো কান্তে (ছবি: গুগল)
ম্যাচের সেরা এনগোলো কান্তে (ছবি: গুগল)

পর্তুগালের পোর্তোয় ম্যান সিটির বিরুদ্ধে ১-০ গোলে জিতে চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা নিজেদের করে নিয়ে নিয়েছে চেলসি। ব্লুজদের ইউরোপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পিছনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন এনগোলো কান্তে। আসরের কোয়ার্টার ফাইনালে ফিরতি লেগে প্রতিপক্ষের একের পর এক আক্রমণ মাঝমাঠেই আটকে দিয়ে এদিনের জয়ের নায়ক ছিলেন এই ফরাসি মিডফিল্ডার।

এছাড়া শেষ চারেও নিজের অবিশ্বাস্য পারফরম্যান্স অব্যাহত রাখেন। উভয় লিগে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে মাঝমাঠে রাজত্ব করেছিলেন কান্তে। বাদ যায়নি ফাইনালেও! পেপ গার্দিওলার ম্যাঞ্চেস্টার সিটির বিশ্বসেরা মাঝমাঠে একাই রাজত্ব করেছেন কান্তে। মর্যাদার চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেও শিরোপায় চুমু খেতে যেন বড় লজ্জা কান্তের।

ম্যাচের সেরা এনগোলো কান্তে (ছবি: গুগল)
ম্যাচের সেরা এনগোলো কান্তে (ছবি: গুগল)

চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ের পর চেলসির সবাই যখন একের পর এক চ্যাম্পিয়ন মেডেল গ্রহণ করে মর্যাদার ট্রফিতে চুমু খাচ্ছেন, তখন কেবল ব্যক্তিক্রম ছিলেন কান্তে, চ্যাম্পিয়ন মেডেল গ্রহণ করেই শিরোপার কাছে গিয়ে চুম্বন না করে শুধু স্পর্শ করেই এগিয়ে যান কান্তে! অবশেষে ট্রফিতে কোনো চুমু না দিয়ে মুচকি হাসি দিয়ে চলে যান।

অবশ্য সদা লাজুক কান্তের জন্য বিষয়টি নতুন নয়। এর আগে বিশ্বকাপ জয়ের পরও লজ্জায় শিরোপা হাতে উল্লাস করেননি কান্তে! এমনকি, ক্যামেরার দিকে পর্যন্ত ঠিকমতো তাকাতে পারছিলেন না। রাশিয়ায় শিরোপা হাতে কান্তের ছবি তুলতেও রীতিমতো কষ্ট করতে হয়েছিলো 

অনেকেই মনে করেনখেলোয়াড় হিসেবেই নয়, মানুষ হিসেবেও কান্তে সেরাদের একজন। বিশ্বকাপ আর চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ের পরও সে আগের মতোই বিনয়ী। এটা দারুণ একটা ব্যাপার।

বন্ধ করুন