বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > গ্রিজম্যান আগে দল ছাড়লে কি মেসির বার্সা প্রস্থান রোখা সম্ভব ছিল? সত্যিটা জানালেন প্রেসিডেন্ট লাপোর্তা
বার্সেলোনা অনুশীলনে গ্রিজম্যান। ছবি- রয়টার্স। (REUTERS)
বার্সেলোনা অনুশীলনে গ্রিজম্যান। ছবি- রয়টার্স। (REUTERS)

গ্রিজম্যান আগে দল ছাড়লে কি মেসির বার্সা প্রস্থান রোখা সম্ভব ছিল? সত্যিটা জানালেন প্রেসিডেন্ট লাপোর্তা

  • দলবদলের শেষ রাতে বার্সেলোনা ছেড়ে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদে ফিরেছেন গ্রিজম্যান।

দলবদল পর্বের একেবারে শেষবেলায় সবাইকে চমকে দিয়ে বার্সেলোনা ছেড়ে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদে প্রত্যাবর্তন ঘটিয়েছেন আন্তোয়া গ্রিজম্যান। চমকে ভরা এবারের দলবদলের মরশুমে এটাই ছিল শেষ চমক। এরপরেই প্রশ্ন উঠেছে এত দেরী না করে গ্রিজম্যান যদি আগেই দল ছাড়ত, তাহলে কি আদপেও বার্সেলোনাতে থেকে যেতে পারতেন লিওনেল মেসি।

এতদিনে মোটামুটি সবাই জেনে গেছে যে আর্থিক সমস্যার জেরেই অনিচ্ছা সত্ত্বেও দল ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন মেসি। মেসিকে দল ছাড়া থেকে রোখার একমাত্র পথ ছিল লা লিগার নতুন চুক্তিতে স্বাক্ষর, যার ফলে বার্সা আর্থিক সমস্যার সমাধান হত। কিন্তু সেই চুক্তি নিয়ে শুধুমাত্র বার্সা নয়, রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গেও লা লিগার মতবিরোধ প্রকাশ্যে এসেছে। সার্জিও আগুয়েরো, মেমফিস ডিপাইদের রেজিস্টার করতে জেরার্ড পিকে সহ চার ক্লাব অধিনায়কই নিজেদের বেতন কমিয়েছেন। তবে এত কিছু সত্ত্বেও মেসিকে রাখা কোনমতেই সম্ভব ছিল না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেন বার্সেলোনা প্রেসিডেন্ট হুয়ান লাপোর্তা।

Esport3-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, ‘সবাইকে যা জানানো হয়েছে, আদপেও সেটাই ঘটেছে। আমরা ওর সঙ্গে মৌখিকভাবে নতুন চুক্তিতে সম্মত হলেও কোনভাবেই তা সম্ভব ছিল না। গ্রিজম্যানের প্রস্থান বা অধিনায়কদের বেতন কমানোর পরেও তা সম্ভব হত না। তবে আমাদের বেতনের পরিমাণ কমা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এর ফলে পরবর্তী মরশুমে আমরা পুরোদমে আরও উচ্চাকাঙ্খী (নতুন ফুটবলার নেওয়ার বিষয়ে) হয়ে নামতে পারব।’

ইতিমধ্যেই নতুন দলের জার্সি গায়ে নিজের অভিষেক ঘটিয়ে ফেলেছেন মেসি। আর্জেন্তাইনের সঙ্গে দল ছাড়ার পর আর কোনরকম কথা না হলেও গোটা বিশ্বের মতো লাপোর্তার চোখও আটকে ছিল পিএসজি জার্সিতে মহাতারকার অভিষেক ম্যাচের দিকে। তবে বার্সেলোনা ছাড়া অন্য দলের জার্সি গায়ে মেসিকে দেখে তিনি কষ্টই পেয়েছেন দাবি বার্সা প্রেসিডেন্টের।

‘আমার মতে আমরা দুইজনেই (মেসি ও লাপোর্তা) খুবই হতাশ ছিলাম, কারণ এমন পরিস্থিতি আসবে, তা আমরা কেউই আশা করিনি। আমার তারপর থেকে এখনও মেসির সঙ্গে কোনরকম কথা হয়নি। আমি পিএসজির হয়ে ওর অভিষেক ম্যাচ দেখি এবং সত্যি বলতে ওকে অন্য দলের জার্সি গায়ে দেখতে কেমন অদ্ভুত অনুভূতি হচ্ছিল। অন্য দলের জার্সি গায়ে ওকে মাঠে নামতে দেখে আমার একদমই ভাল লাগেনি।’ দাবি লাপোর্তার।

বন্ধ করুন