বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > ফাইনালে উঠে ‘লিলিপুট’ আয়ারল্যান্ডের অবিশ্বাস্য নজির স্পর্শ নিউজিল্যান্ডের
উচ্ছ্বাস কিউয়িদের। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
উচ্ছ্বাস কিউয়িদের। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

ফাইনালে উঠে ‘লিলিপুট’ আয়ারল্যান্ডের অবিশ্বাস্য নজির স্পর্শ নিউজিল্যান্ডের

  • এমন এক নজির গড়ল নিউজিল্যান্ড, যা শুধুমাত্র আয়ারল্যান্ডের আছে।

অবশেষে সীমিত ওভারে সেমিফাইনালের গেরো কাটল নিউজিল্যান্ডের। ইংল্যান্ডকে পাঁচ উইকেটে হারিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠে গেলেন কিউয়িরা। সেইসঙ্গে এমন এক নজির গড়লেন, যা শুধুমাত্র আয়ারল্যান্ডের আছে।

কী সেই নজির?

বুধবারের জয়ের ফলে একই বছর একাধিক আইসিসি টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠল নিউজিল্যান্ড। এবার বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে উঠেছিলেন কেন উইলিয়ামসনরা। যে রেকর্ড এতদিন ছিল শুধুমাত্র ‘লিলিপুট’ আয়ারল্যান্ডের। ২০১০ সালে সেই নজির তৈরি হয়েছিল। সেই বছর আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের যোগ্যতা-অর্জন পর্বের ফাইনালে উঠেছিল আয়ারল্যান্ড। যা পাঁচ উইকেটে জিতেছিলেন আইরিশরা। সেই বছরের জুলাইয়ে আয়ারল্যান্ডই বিশ্ব ক্রিকেট লিগের ডিভিশন ওয়ানের ফাইনালে উঠেছিল। স্কটল্যান্ডের বিরুদ্ধেও জিতেছিল আয়ারল্যান্ড।

আবারও সুযোগ আছে আয়ারল্যান্ডের রেকর্ড স্পর্শ করার

ইতিমধ্যে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ জিতেছে নিউজিল্যান্ড। যদি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালেও জিতে যান কিউয়িরা, তাহলে একই বছর জোড়া আইসিসি টুর্নামেন্ট জয়ের ক্ষেত্রে আয়ারল্যান্ডকে স্পর্শ করবে নিউজিল্যান্ড।

বুধবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় নিউজিল্যান্ডের। শুরুটা ঢিমেতালে করলেও মইন আলি (৩৭ বলে ৫১ রানে অপরাজিত) এবং ডেভিড মালানের (৩০ বলে ৪১ রান) সুবাদে ২০ ওভারে চার উইকেটে ১৬৬ রান তোলে ইংল্যান্ড। রান তাড়া করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খান কিউয়িরা। প্রথম ওভারেই আউট হয়ে যান মার্টিন গাপ্টিল। তৃতীয় ওভারেই প্যাভিলিয়নে ফিরে যান কিউয়ি অধিনায়ক কেন। সেখান থেকে ইনিংসের হাল ধরেন ড্যারিল মিচেল। শেষপর্যন্ত ৪৭ বলে অপরাজিত ৭২ রান করেন। তবে কিউয়িদের দিকে ম্যাচ ঘুরিয়েছেন জিমি নিশম। যিনি ১১ বলে ২৭ রান করেন।

বন্ধ করুন