বাড়ি > ময়দান > সবটাই মোহনবাগান, এটিকে কোথায়? ISL চ্যাম্পিয়নদের সিদ্ধান্তে হতাশ লুইস গার্সিয়া
আইএসএল ট্রফি হাতে লুইস গার্সিয়া। ছবি- টুইটার।
আইএসএল ট্রফি হাতে লুইস গার্সিয়া। ছবি- টুইটার।

সবটাই মোহনবাগান, এটিকে কোথায়? ISL চ্যাম্পিয়নদের সিদ্ধান্তে হতাশ লুইস গার্সিয়া

  • ইস্টবেঙ্গল কর্তার মন্তব্যকে কার্যত সমর্থন করলেন এটিকের প্রথম মার্কি তারকা।

নিতান্ত ব্যক্তিগত মতামত। তবে তাতেই মোহনবাগান সমর্থকদের চক্ষুশূল হয়ে দাঁড়ালেন একদা এটিকের চোখের তারা লুইস গার্সিয়া। এটিকে-মোহনবাগান নিয়ে একটি মন্তব্য করে নিজের অজান্তেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি জড়িয়ে গেলেন মোহনবাগান-ইস্টবেঙ্গল সমর্থকদের দ্বন্দ্বে।

ইন্ডিয়ান সুপার লিগের উদ্বোধনী মরশুমে এটিকের মার্কি প্লেয়ার ছিলেন লুইস গার্সিয়া। প্রথম মরশুমে এটিকেকে আইএসএল চ্যাম্পিয়ন করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেন একদা বার্সেলোনা, লিভারপুল, অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের হয়ে মাঠে নামা স্প্যানিশ তারকা। আপাতত ভারতীয় ফুটবল থেকে দূরে থাকলেও নিজের পুরনো দল এটিকের সম্পর্কে খোঁজ-খবর রাখেন গার্সিয়া। সেটা বোঝা গেল তাঁর সাম্প্রতিক আচরণেই।

তিন বারের আইএসএল চ্যাম্পিয়ন এটিকে এবার মোহনবাগানের সঙ্গে জোট বেঁধে মাঠে নামার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। শতাব্দী প্রাচীন মোহনবাগানের ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে এটিকে নিজেদের জার্সির রং ও লোগোকে কার্যত জলাঞ্জলি দিয়েছে। নবগঠিত এটিকে-মোহনবাগান দলের জার্সির রং হতে চলেছে সবুজ-মেরুন। যদিও অ্যাওয়ে ম্যাচে লাল-সাদার ছোঁয়া থাকবে বলে জানানো হয়েছে। তবে এটিকের লোগোর আর কোনও অস্তিত্ব নেই। মোহনবাগানের পালতোলা নৌকায় যোগ হয়েছে এটিকে শব্দটা। অর্থাৎ, মোহনবাগানের লোগো ও জার্সির রং ধরে রাখা হয়েছে এটিকে-মোহনবাগানে।

মোহনবাগানের ঐতিহ্যকে ধরে রাখার এই প্রচেষ্টা যেমন বাহবা কুড়চ্ছে ভারতীয় ফুটবলমহলের একাংশের। ঠিক তেমনই ফুটবলপ্রেমীদের বড় একটা অংশ এমন সিদ্ধান্তকে কটাক্ষ করতেও ছাড়েনি। বলা বাহুল্য, এদের মধ্যে বেশিরভাগই ইস্টবেঙ্গল সমর্থক। স্বয়ং ইস্টবেঙ্গল কর্তা দেবব্রত সরকার ক'দিন আগে কটাক্ষ মেশানো অভিনন্দন বার্তায় জানিয়েছেন যে, অদূর ভবিষ্যতে ভারতীয় ফুটবল থেকে মুছে যেতে চলেছে এটিকের নাম।

লাল-হলুদ কর্তার সঙ্গে একমত হলেন প্রখ্যাত ফুটবল প্রেজেন্টার জোসেফ মরিসন। তিনি টুইট করেন, ‘আমি আনন্দিত যে, ওরা মোহনবাগানের রং, নকশা ধরে রেখেছে। এতে ঐতিহ্য ও মাহাত্ম্য সংরক্ষিত হল। তবে কোনও সন্দেহ নেই যে, অদূর ভবিষ্যতে এটিকে শব্দটাও সরে যাবে।’

জো মরিসনের টুইটের প্রতিক্রিয়ায় লুইস গার্সিয়া কার্যত হতাশা প্রকাশ করেন এটিকের সিদ্ধান্তে। তিনিও সহমত প্রকাশ করেন টেনিভিশন প্রেজন্টারের মন্তব্যে। গার্সিয়া লেখেন, ‘আমিও একমত। আমি ক্লাবের ঐতিহ্যকে সম্মান জানাই। তবে নিতান্ত আমার মত, এটিকেকে আরও একটু প্রাধান্য দেওয়া উচিত ছিল। যখন থেকে ইন্ডিয়ান সুপার লিগ শুরু হয়েছে, এটিকেই সবথেকে সফল দল। তাকে এভাবে ছুঁড়ে ফেলা ঠিক নয়।’

বলা বাহুল্য, গার্সিয়ার মন্তব্যকে ভালোভাবে নেননি মোহনবাগান সমর্থকরা। তাঁরা গার্সিয়ার সামনে তুলে ধরার চেষ্টা করে চলেছেন মোহনবাগানের বর্ণোজ্জ্বল ইতিহাস। প্রতিক্রিয়ায় কটাক্ষের মাত্রা বাড়িয়ে চলেছেন লাল-হলুদ সমর্থকরা।

বন্ধ করুন