বাংলা নিউজ > ময়দান > মুদ্রাস্ফীতি সামলাতে ধনীদের উপর কর বসাচ্ছে স্পেন
মুদ্রাস্ফীতি সামলাতে ধনিদের উপর কর বসাচ্ছে স্পেন। ছবি ডয়চে ভেলে

মুদ্রাস্ফীতি সামলাতে ধনীদের উপর কর বসাচ্ছে স্পেন

  • পরিস্থিতি সামলাতে স্পেন সরকার গত জুলাই মাসে একটা বিল আনে, যেখানে ব্যাংকগুলির উপর সাময়িক লেভি বসানো হয়। বড় বিদ্যুৎ সংস্থার উপরেও লেভি বসে। অর্থমন্ত্রী বলেছেন, বিত্তবানদের উপরেও একইরকমভাবে কর বসানো হবে। দুই বছরের জন্য তাদের কর দিতে হবে। এটা সাময়িক ব্যবস্থা।

গরিব ও মধ্যবিত্তদের সাহায্য করতে ধনিদের উপর কর বসাচ্ছে স্পেন। প্রবল মুদ্রাস্ফীতির হাত থেকে গরিব-মধ্যবিত্তকে বাঁচাতে এই সিদ্ধান্ত। স্পেনে এখন বামপন্থি সরকার। তারা মধ্যবিত্ত ও গরিবদের উপর থেকে বোঝা কমাবার জন্য এই অভিনব পরিকল্পনা নিয়েছে। দেশের এক শতাংশ খুব ধনির উপর কর বসানো হবে। অর্থমন্ত্রী মারিয়া জেসাস মন্টেরো বলেছেন, 'আমরা মিলিওনেয়ারদের কথা বলছি। তারাই দেশের এক শতাংশ মানুষ, যাদের হাতে প্রচুর অর্থ আছে।'

তিনি জানিয়েছেন, এই করবাবদ যে অর্থ পাওয়া যাবে তা দিয়ে শ্রমিক ও মধ্যবিত্তদের সাহায্য করা হবে। তবে কী হারে কর বসানো হবে, তা থেকে কত অর্থ পাওয়া যাবে তার কোনও বিবরণ তিনি দেননি। ইউরোপের অন্য দেশের মতো স্পেনও জিনিসের দাম অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে। সরকার যানবাহনে চড়ার জন্য ভর্তুকি দিচ্ছে। পড়ুয়াদের স্টাইপেন্ড দিচ্ছে। এভাবে তারা পরিস্থিতি সামাল দেয়ার চেষ্টা করছে। কিন্তু স্পেনে মুদ্রাস্ফীতির হার ১০.৪ শতাংশ হয়ে গিয়েছে। গত জুন মাস থেকে মুদ্রাস্ফীতির হার ১০ শতাংশ বা তার বেশি আছে। ১৯৮০-র মাঝামাঝি থেকে কখনও মুদ্রাস্ফীতির হার বাড়েনি।

পরিস্থিতি সামলাতে স্পেন সরকার গত জুলাই মাসে একটা বিল আনে, যেখানে ব্যাঙ্কগুলির উপর সাময়িক লেভি বসানো হয়। বড় বিদ্যুৎ সংস্থার উপরেও লেভি বসে। অর্থমন্ত্রী বলেছেন, বিত্তবানদের উপরেও একইরকমভাবে কর বসানো হবে। দুই বছরের জন্য তাদের কর দিতে হবে। এটা সাময়িক ব্যবস্থা।

তবে স্পেনে জোট সরকার আছে। ফলে সোস্যালিস্ট পার্টির নেত্রী অর্থমন্ত্রীকে এই পরিকল্পনা নিয়ে বাকি শরিকদের রায় নিতে হবে। তারপর পার্লামেন্টের অনুমোদন নিতে হবে। ফলে ২০২৩-এর প্রথমদিকের আগে এই পরিকল্পনা তিনি কার্যকর করতে পারবেন না।

(বিশেষ দ্রষ্টব্য: প্রতিবেদনটি ডয়চে ভেলে থেকে নেওয়া হয়েছে। সেই প্রতিবেদনই তুলে ধরা হয়েছে। হিন্দুস্তান টাইমস বাংলার কোনও প্রতিনিধি এই প্রতিবেদন লেখেননি।)

বন্ধ করুন