বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মাছ ধরার নৌকায় ৫ কোটি টাকার কাপড় পাচারের চেষ্টা, ডায়মন্ডে পাকড়াও উপকূলরক্ষী বাহিনীর
পাচারের আগে বাজেয়াপ্ত নৌকা (ছবি সৌজন্য টুইটার @IndiaCoastGuard)
পাচারের আগে বাজেয়াপ্ত নৌকা (ছবি সৌজন্য টুইটার @IndiaCoastGuard)

মাছ ধরার নৌকায় ৫ কোটি টাকার কাপড় পাচারের চেষ্টা, ডায়মন্ডে পাকড়াও উপকূলরক্ষী বাহিনীর

  • ভোররাতের যৌথ অভিযানে পাকড়াও।

মাছ ধরার নৌকায় করে কাপড় পাচারের চেষ্টা করা হচ্ছিল। সোমবার শুল্ক বিভাগ ও ভারতীয় উপকূলরক্ষী বাহিনীর ভোররাতের যৌথ অভিযানে ডায়মন্ড হারবারের কাছে সেই নৌকাটি আটক করা হয়েছে। প্রাথমিক তদন্ত অনুযায়ী, প্রায় পাঁচ কোটি টাকার কাপড় পাচার করা হচ্ছিল।

একটি বিবৃতিতে উপকূলরক্ষী বাহিনীর তরফে জানানো হয়েছে, রবিবার ও সোমবারের মধ্যবর্তী রাতে অভিযান শুরু করা হয়। বলা হয়, ‘শুল্ক আধিকারিকদের সঙ্গে সমন্বয়ে উপকূলরক্ষী বাহিনীর জেলা সদর দফতর হলদিয়া থেকে সেই পাচার-বিরোধী যৌথ অভিযান শুরু ও তদারকি করা হয়।’

সন্দেহভাজন মাছের নৌকায় ধরার জন্য রবিবার দুটি হোভারক্র্যাফ্ট ও একটি দ্রুত গতিসম্পন্ন বোট মোতায়েন করে উপকূলরক্ষী বাহিনী। হুগলি চ্যানেল দিয়ে যাতায়াত করা নৌকাগুলির উপর রাতভর নজরদারি চালানো হয়।

বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, সাগর নামে সন্দেহভাজন নৌকাটিকে সূর্যোদয়ের আগে গেঁওখালির কাছে চিহ্নিত করা হয়। সেটার অনুসরণ করে উপকূলরক্ষী বাহিনীর হোভারক্র্যাফ্ট। সকাল ৭ টা ১৫ মিনিট নাগাদ হোভারক্র্যাফ্টটি পাচারকারীদের নজরে পড়ে যায়। ধরা পড়ার ভয়ে অগভীর জলের দিকে অগ্রসর হতে থাকে। ডায়মন্ড হারবারের কাছে নৌকা ফেলে পাচারকারীরা ঘন জঙ্গলের দিকে পালিয়ে যায়।

দ্রুত খবর দেওয়া হয় স্থানীয় থানায়। শুরু হয় তল্লাশি অভিয়ান। পাচারকারীদের পাকড়াও করে পুলিশ। আপাতত পাচারের বিষয়ে যৌথভাবে তদন্ত চালানো হচ্ছে।

বন্ধ করুন