বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > হরিদেবপুর থেকে গ্রেফতার জাল পাসপোর্ট চক্রের পান্ডা, উদ্ধার ৮৫টি জাল পাসপোর্ট
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

হরিদেবপুর থেকে গ্রেফতার জাল পাসপোর্ট চক্রের পান্ডা, উদ্ধার ৮৫টি জাল পাসপোর্ট

  • পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সম্প্রতি এক ব্যক্তি রুশ ভিসা নিয়ে দিল্লির রুশ দূতাবাসে গিয়ে জানতে পারেন ভিসাটি জাল। এর পর পুলিশে অভিযোগ করেন তিনি।

ফের হরিদেবপুর! ৩ জঙ্গির পর এবার কলকাতা লাগোয়া শহতলির এই এলাকা থেকে গ্রেফতার হল জাল পাসপোর্ট চক্রের পাণ্ডা। ধৃতের নাম নন্দকিশোর প্রসাদ। দিন কয়েক আগে স্ত্রীকে নিয়ে হরিদেবপুর থানা এলাকায় ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়েছিল সে। অভিযান চালিয়ে হরিদেবপুর থানার সহযোগিতায় তাকে গ্রেফতার করে দিল্লি পুলিশ। উদ্ধার হয়েছে প্রচুর জাল পাসপোর্ট, ভিসা ও প্রিন্টার।

হরিদেবপুর থানা এলাকার মহাত্মা গান্ধী রোডের শিবানী আবাসনে গত ১৭ জুলাই থেকে ঘর ভাড়া নিয়েছিলেন নন্দকিশোর। অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে নিয়ে সেখানে থাকতে শুরু করেন তিনি। ফলে স্থানীয়দের তেমন কোনও সন্দেহ হয়নি। শুক্রবার রাতে সেখানেই হানা দেয় দিল্লি পুলিশ। গ্রেফতার করে নন্দকিশোরকে। সঙ্গে উদ্ধার হয়েছে ৮৫টি জাল পাসপোর্ট, বেশ কিছু জাল ভিসা ও প্রিন্টার।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সম্প্রতি এক ব্যক্তি রুশ ভিসা নিয়ে দিল্লির রুশ দূতাবাসে গিয়ে জানতে পারেন ভিসাটি জাল। এর পর পুলিশে অভিযোগ করেন তিনি। তদন্তে নেমে কলকাতা লাগোয়া বাগুইআটির এক ব্যক্তির সন্ধান পায় পুলিশ। তাঁকে জেরা করে জানা যায় নন্দকিশোরের নাম। জেরায় সেই ব্যক্তি জানিয়েছেন, প্রতিটি জাল পাসপোর্ট ১ লক্ষ টাকায় বিক্রি করত নন্দকিশোর।

যদিও ধৃতের স্ত্রীর দাবি এসব কিছুই জানতেন না তিনি। বছরখানেক আগে নন্দকিশোরের সঙ্গে পরিচয় হয় তাঁর। তার পর বিয়ে। বিয়ের পরই অন্তঃসত্ত্বা হন তিনি। নন্দকিশোর তাঁকে জানিয়েছিলেন তাঁর কারখানা রয়েছে। সেখানে একবার নিয়েও গিয়েছিল। কিন্তু ওর বাড়ির লোককেও চিনি না আমি।

গত মাসেই হরিদেবপুর থেকে ৩ জামাত জঙ্গিকে গ্রেফতার করেছিল কলকাতা পুলিশ। তার পর ভুয়ো পাসপোর্ট চক্রের হদিশ মিলল।

 

বন্ধ করুন