বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌চিকিৎসা পরিষেবায় সন্তুষ্ট না হলে চিকিৎসক–নার্সদের হেনস্থা হতে হয়’‌, ক্ষোভ রাজ্যপালের

‘‌চিকিৎসা পরিষেবায় সন্তুষ্ট না হলে চিকিৎসক–নার্সদের হেনস্থা হতে হয়’‌, ক্ষোভ রাজ্যপালের

রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস

একাধিকবার চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের উপর চড়াও হওয়ার অভিযোগ উঠেছে রোগীর পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে। চিকিৎসা পরিষেবা পেয়ে রোগীর কোনও কারণে মৃত্যু হলে অভিযোগ ওঠে সঠিক পরিষেবা মেলেনি। কখনও অভিযোগ সঠিকই থাকে। তবে যেটাই হোক হামলা হয় চিকিৎসক–নার্সদের উপর। এসব অভিযোগ নিয়ে আগে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা হয়েছে।

শহর অথবা গ্রামে দেখা যায় হাসপাতাল কিংবা নার্সিংহোমে ভাঙচুর। আসলে রোগীমৃত্যু নিয়ে চিকিৎসক এবং নার্সদের হামলার মুখে পড়তে হয়। রোগীর পরিবারের অভিযোগ থাকে, সঠিকভাবে মেলেনি চিকিৎসা পরিষেবা। আর তাই রোগীর মৃত্যু হয়েছে। সুতরাং চলে ভাঙচুর থেকে হামলা। এমন খবর একাধিবার উঠে আসে খবরে। এবার রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোসের মুখেও সেই ক্ষোভের কথা শোনা গেল। যা নিয়ে বেশ চর্চা হতে শুরু করেছে। এতে রোগীর পরিবারের সদস্যদের কাছেও বার্তা পৌঁছল। তাতে কি কমবে চিকিৎসক–নার্সদের উপর হামলা?‌

এদিকে এই ঘটনা শহর অথবা জেলায় উত্তোত্তর বাড়ছে। সেখানে সহানুভূতি দিয়ে দু’‌পক্ষের বিষয়টি দেখা উচিত বলে মনে করেন রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস। গতকাল, শুক্রবার দন্ত চিকিৎসকদের এক অনুষ্ঠানে যোগ দেন রাজ্যপাল। সেখানে গিয়ে চিকিৎসক এবং নার্সদের পরিস্থিতি নিয়ে কথা বললেন তিনি। আর তখনই উঠে আসে এই হামলার কথা। বাংলার রাজ্যপাল এদিন বলেন, ‘‌যখন কেউ চিকিৎসা পরিষেবা নিয়ে সন্তুষ্ট হন না, বিশেষ করে রাজনৈতিক কারণে তখন চিকিৎসক, নার্স, প্যারামেডিকদের হেনস্থার শিকার হতে হয়। এটি একটি ট্রেন্ডে পরিণত হয়েছে।’‌ এভাবেই নিজের ক্ষোভ উগড়ে দেন রাজ্যপাল।

অন্যদিকে গত ৩০ নভেম্বর থেকে দন্ত চিকিৎসকদের জাতীয় কনফারেন্স শুরু হয় কলকাতার সায়েন্স সিটি কমপ্লেক্সে। এটা আগামীকাল, রবিবার পর্যন্ত চলবে। এই কনফারেন্সেই আমন্ত্রিত ছিলেন বাংলার রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস। সেখানেই চিকিৎসক–নার্সদের উপর আমলার বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। কিন্তু ‘‌রাজনৈতিক কারণ’‌ উল্লেখ করার জেরে বিষয়টি অন্য মাত্রা পেয়েছে। কারণ এক, রোগীর পরিবারের সদস্যরা রাজনৈতিক ফায়দা তুলতে এমন করে বলে বিষয়টি মনে করা হচ্ছে। দুই, কিছু ঘটনার পিছনে রাজনীতি আছেও বোঝায়। কোনটি ঠিক বোঝাতে চেয়েছেন রাজ্যপাল তা খোলসা করেননি।

আরও পড়ুন:‌ বিজেপি বিধায়ক অভিষেকের নামে প্রকল্পের আবেদন করলেন, তোলপাড় রাজ্য–রাজনীতি

আর কী জানা যাচ্ছে?‌ একাধিকবার চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের উপর চড়াও হওয়ার অভিযোগ উঠেছে রোগীর পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে। চিকিৎসা পরিষেবা পেয়ে রোগীর কোনও কারণে মৃত্যু হলে অভিযোগ ওঠে সঠিক পরিষেবা মেলেনি। আবার কখনও অভিযোগ সঠিকই থাকে। তবে যেটাই হোক হামলা হয় চিকিৎসক–নার্সদের উপর। আবার এসব অভিযোগ নিয়ে আগে কলকাতা হাইকোর্টে পর্যন্ত মামলা হয়েছে। ২০২৩ সালেরই অগস্ট মাসে বিচারপতি জয় সেনগুপ্তর এজলাসে এমন একটি মামলা উঠেছিল। সেখানে অভিযোগকারী চিকিৎসকের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার জন্য পুলিশকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করার নির্দেশ দিয়েছিলেন বিচারপতি। আর রাজ্যপালের কথায়, ‘‌এই প্রবণতা বন্ধ হওয়া দরকার। চিকিৎসক হোক বা অন্য কোনও পেশার সঙ্গে যুক্ত মানুষ, প্রত্যেকেই নিজের সবটুকু উজার করে দেন।’‌

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

নতুন শুরু প্রশ্মিতা-অনুপমের, গ্র্যান্ড রিসেপশনে উপল-জয়দের সঙ্গে এলেন কারা? রাহুল শেষ কবে রঞ্জি খেলেছিল? শ্রেয়সের পাশে দাঁড়িয়ে BCCI-কে একহাত নিল KKR কর্তা WTC 2023-25 Points Table: এক নম্বরে ভারত, অস্ট্রেলিয়া জিততেই শীর্ষে রোহিতরা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরবেন তামিম? BPL সেরা হয়ে মুখ খুললেন বাংলাদেশের তারকা বিয়ে করতে না করতেই বউকে 'সুখী' করতে পারলেন না কাঞ্চন!শ্রীময়ী বললেন ‘একদম ফ্লপ’ থিম জঙ্গল! অনন্ত-রাধিকার প্রাক-বিবাহ অনুষ্ঠানের ২য় দিনে কোন তারকা কী পরলেন? গাড়ি-চাপা কাণ্ডের স্মৃতি আজও অক্ষত! খেরিতে অজয় মিশ্র প্রার্থী হতেই সরব কৃষকরা ধরমশালায় পঞ্চম টেস্টের আগে একাই অনুশীলন গিলের, তারকার নিষ্ঠায় মুগ্ধ সমর্থকেরা ২০০৬ সালের পর এমনটা হল! ১৭২ রানে কিউয়িদের হারাল অজিরা, ১০ উইকেট নিলেন লিয়ন বহু রোগ জ্বালা সারাতে হিং হাঁকায় ছক্কা! অম্বল হোক বা স্ট্রেস, উপকার তাক লাগাবে

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.