বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বিধানসভায় দলবদল হলে কি মহাভারত অশুদ্ধ হয়ে যায়? প্রশ্ন তৃণমূলের
সুব্রত মুখোপাধ্যায়। ফাইল ছবি
সুব্রত মুখোপাধ্যায়। ফাইল ছবি

বিধানসভায় দলবদল হলে কি মহাভারত অশুদ্ধ হয়ে যায়? প্রশ্ন তৃণমূলের

  • যদিও বিষয়টিকে ততটা গুরুত্বপূর্ণ নয় বলে উল্লেখ করে সুব্রতবাবু বলেন, ‘বিধানসভায় দলবদল করা যাবে না কোথায় লেখা আছে? আমি দীর্ঘদিন বিধানসভার সদস্য।

বিধানসভায় দলীয় পতাকা হাতে নিয়ে সব্যসাচী দত্তের দলবদলে ‘কোনও মহাভারত অশুদ্ধ হয়নি’ বলে দাবি করল তৃণমূল। শুক্রবার এই মন্তব্য করেন প্রবীণ তৃণমূল বিধায়ক তথা রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। এই ঘটনায় এদিন পালটা বিজেপিকে কাঠগড়ায় তুলেছেন রাজ্যপাল। তাঁর দাবি, বিজেপির রাজ্য সভাপতির সঙ্গে বহিরাগতরা বিধানসভায় ঢুকেছিলেন তার তদন্ত হবে।

বিধানসভায় তৃণমূলের পতাকা হাতে নিয়ে সব্যসাচী দত্তের দলবদলের প্রতিবাদে শুক্রবার আম্বেদকর মূর্তির পাদদেশে বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি। এর পর বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী বলেন, বিধানসভাটাকে পার্টি অফিস বানিয়ে ফেলেছে তৃণমূল। এর শেষ দেখে ছাড়বো। দরকারে জনস্বার্থ মামলা হবে।

যদিও বিষয়টিকে ততটা গুরুত্বপূর্ণ নয় বলে উল্লেখ করে সুব্রতবাবু বলেন, ‘বিধানসভায় দলবদল করা যাবে না কোথায় লেখা আছে? আমি দীর্ঘদিন বিধানসভার সদস্য। বিধানসভায় এমন কোনও আইন রয়েছে বলে তো আমার জানা নেই। বরং বিধানসভার ভিতরে অনেক খারাপ করা বলা হয়। যা বন্ধ করা উচিত।’

অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘ওদের জেলা সভাপতি অনেক লোকজন নিয়ে বিধানসভায় এসেছিলেন। তারা বিধানসভার কর্মীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেছেন। মার্শালরা আমার কাছে অভিযোগ করেছেন। তদন্ত হবে।’ সব্যসাচীর দলবদল নিয়ে তিনি বলেন, ‘উনি প্রাক্তন বিধায়ক। বিধানসভায় আসতেই পারেন। তবে পতাকা না ব্যবহার করলেই ভাল হতো।’

 

বন্ধ করুন