বাড়ি > কর্মখালি > CBSE বোর্ড পরীক্ষার্থীদের অবিলম্বে বাড়ির কাছাকাছি স্কুলে যোগাযোগের নির্দেশ
CBSE-র নির্দেশ মতো পরীক্ষার্থীদের বাড়ির কাছাকাছি স্কুলেই পরীক্ষাকেন্দ্র তৈরি করা হবে।
CBSE-র নির্দেশ মতো পরীক্ষার্থীদের বাড়ির কাছাকাছি স্কুলেই পরীক্ষাকেন্দ্র তৈরি করা হবে।

CBSE বোর্ড পরীক্ষার্থীদের অবিলম্বে বাড়ির কাছাকাছি স্কুলে যোগাযোগের নির্দেশ

  • বোর্ড পরীক্ষার্থীদের অবিলম্বে বাড়ির কাছাকাছি স্কুলে গিয়ে রিপোর্ট করার নির্দেশ দিল CBSE।

চলতি বছরের বোর্ড পরীক্ষার্থীদের অবিলম্বে বাড়ির কাছাকাছি স্কুলে গিয়ে রিপোর্ট করার নির্দেশ দিল সেন্ট্রাল বোর্ড অফ সেকেন্ডারি এডুকেশন (CBSE)। 

করোনা সংক্রমণের কারণে লকডাউনের জেরে যে সব ছাত্রছাত্রী দিল্লি, মুম্বই, চণ্ডীগড়-সহ যে কোনও শহর থেকে নিজেদের গ্রাম বা বাড়ি ফিরে গিয়েছে, এই নিয়ম শুধুমাত্র তাদের জন্য প্রযোজ্য হবে। 

এই সব পড়ুয়াদের বাড়ির কাছের সরকারি স্কুলে রিপোর্ট করতে হবে। যে সব পরীক্ষার্থীর বোর্ড পরীক্ষা এখনও বাকি আছে, কেবল তাদেরই এই নিয়ম মানতে হবে। জুনের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে পরীক্ষার্থীদের নিজেদের সম্পর্কে সমস্ত তথ্য সরকারি স্কুলে জমা দিতে হবে।

কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল জানিয়েছেন, 'লকডাউনের আগে বহু ছাত্র স্কুলের হস্টেলে ছিল। লকডাউন ঘোষণার পরে তারা হস্টেল ছেড়ে কেউ কেরল, কেউ তামিলনাড়ুর মতো বিভিন্ন জায়গায় নিজেদের বাড়ি চলে যায়। কেবলমাত্র নবোদয় বিদ্যালয়ে পাঠরত ৩,০০০ পড়ুয়াকে মন্ত্রকের সহায়তায় বাড়ি পাঠানো হয়। এই জন্যই পড়ুয়ারা যে এখন যে অঞ্চলে রয়েছে, সেখানকার স্কুলেই তাদের বোর্ড পরীক্ষা নেওয়া হবে।'

দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির যেসব পরীক্ষার্থীর এখনও বোর্ড পরীক্ষা বাকি আছে, কেন্দ্রীয় বোর্ডের নির্দেশিকা অনুযায়ী তারা যেখানেই থাকুক না কেন, পরীক্ষা দিতে পারবে। CBSE-র নির্দেশ মতো এদের বাড়ির কাছাকাছি স্কুলেই পরীক্ষাকেন্দ্র তৈরি করা হবে। 

ইতিমধ্যেই পরীক্ষার নির্ঘণ্ট প্রকাশ করেছে CBSE। দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির বাকি থাকা পরীক্ষা দেশজুড়ে ১৫ হাজারের বেশি কেন্দ্রে আয়োজন করা হচ্ছে। করোনা পূর্ববর্তী সময়ের তুলনায় পরীক্ষাকেন্দ্রের সংখ্যা প্রায় ৫ গুণ বাড়ানো হয়েছে। প্রার্থীরা যাতে ভিড় এড়িয়ে সুরক্ষিত ভাবে পরীক্ষা দিতে পারে, তাই এই বন্দোবস্ত।

 

বন্ধ করুন