বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ > Congress slams Modi: প্রধানমন্ত্রীর কথার সঙ্গে মিল নেই সরকারি নথির, মোদীকে 'মিথ্যার জগৎগুরু' আখ্যা কংগ্রেসের

Congress slams Modi: প্রধানমন্ত্রীর কথার সঙ্গে মিল নেই সরকারি নথির, মোদীকে 'মিথ্যার জগৎগুরু' আখ্যা কংগ্রেসের

নরেন্দ্র মোদী (Somnath Sen)

কংগ্রেস নেতা জয়রাম রমেশ বলেন, 'বিজেপি হল ভারতীয় ঝুটা (মিথ্যাবাদী) পার্টি। আর সেই দলের মুখ (নরেন্দ্র মোদী) হলেন মিথ্যাচারের জগৎগুরু।'

গত ৪ নভেম্বর ছত্তিশগড়ে নির্বাচনী জনসভা থেকে বিনামূল্যে রেশন দেওয়া নিয়ে বড় ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেদিন মোদী জানিয়েছিলেন, আগামী পাঁচবছরের জন্যে বিনামূল্যে খাদ্যশস্য দেওয়া হবে দেশের ৮০ কোটি নাগরিককে। প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনার অধীনেই এই ফ্রি রেশন মিলবে বলে জানা গিয়েছিল। তবে সম্প্রতি খাদ্য ও গণবণ্টন মন্ত্রকের বিজ্ঞপ্তিতে জানা গেল, ডিসেম্বরেই শেষ হচ্ছে এই প্রকল্প। এই আবহে প্রশ্ন উঠেছে, ২০২৪ সালের জানুয়ারি মাস থেকে যদি প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনা বন্ধ হয়ে যায়, তাহলে আগামী পাঁচবছর দেশবাসীকে কীভাবে বিনামূল্যে রেশন দেওয়া হবে? মনে করা হচ্ছে নতুন করে বিজ্ঞপ্তি জারি করে পাঁচবছরের জন্য ফ্রি রেশন দেওয়ার ঘোষণা করতে পারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকার। (আরও পড়ুন: ডিএ বাড়িয়েও সরকারি কর্মীদের খুশি করা গেল না, 'একলাখি' চাপের মুখে মোদী)

তবে কেন্দ্রীয় সরকারের সেই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হতেই তোপ দেগেছে কংগ্রেস। হাত শিবিরের মুখপত্র তথা সাংসদ জয়রাম রমেশ বলেন, 'বিজেপি হল ভারতীয় ঝুটা (মিথ্যাবাদী) পার্টি। আর সেই দলের মুখ (নরেন্দ্র মোদী) হলেন মিথ্যাচারের জগৎগুরু।' প্রসঙ্গত, দেশে নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রীর দাম ক্রমেই বাড়ছে। মুদ্রাস্ফীতির এই হারে নাজেহাল অবস্থা আম নাগরিকের। এই পরিস্থিতি আরও গুরুতর হতে পারে বলে আশঙ্কা। এরই মধ্যে সম্প্রতি এক বেসরকারি সংস্থার রিপোর্টে দাবি করা হয়, গত অক্টোবরে দেশের বেকারত্বের হার দু'বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। এই পরিস্থিতিতে লোকসভা ভোটের মুখে চাপে কেন্দ্রীয় সরকার। আর তাই বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার ঘোষণা করে আম জনতার মন জয়ের চেষ্টা করেন মোদী। তবে তাঁর এই ঘোষণা নিয়ে রাজনৈতিক চাপানউতোর শুরু হয়।

ভোটের মাঝে কীভাবে এই ধরনের ঘোষণা করা হয়, তা নিয়ে বিরোধীরা প্রশ্ন তুলেছেন। এই নিয়ে বিরোধীরা নালিশও জানিয়েছে নির্বাচন কমিশনের কাছে। এই আবহে প্রচারে গিয়ে অলআউট আক্রমণে নামেন মোদীও। প্রধানমন্ত্রী পালটা চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে বলেছেন, 'যা খুশি করে নিন, আমাকে যা শাস্তি দেওয়া হবে আমি তা মেনে নেব। কিন্তু গরিবের জন্য কাজ করা ছাড়ব না।'

এদিকে এর আগে সম্প্রতি এক রিপোর্টে দাবি করা হয়েছিল, কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় এখনও পাঁচ বছরের জন্য ফ্রি রেশন দেওয়ার বিষয়টি অনুমোদনই পায়নি। তার আগেই এই নিয়ে ঘোষণা করে দেন প্রধানমন্ত্রী। এই আবহে আনুষ্ঠানিক ভাবে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় এই সংক্রান্ত প্রস্তাব পেশ করে তা পাশ করিয়ে তারপর এই নিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। উল্লেখ্য, কোভিডের আবহে ২০২০ সালের এপ্রিল মাসে দেশে বিনামূল্যে রেশন বিতরণ শুরু করেছিল কেন্দ্রীয় সরকার। দীর্ঘ লকডাউনের আবহে কেন্দ্রের এই বিনামূল্যে রেশন পরিষেবা অনেকের জীবন বাঁচিয়েছে। এটা বিশ্বের সর্ববৃহৎ খাদ্য সুরক্ষা প্রকল্পে পরিণত হয়। তবে ২০২৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সেই প্রকল্পের মেয়াদ আছে। ওই প্রকল্প চালিয়ে যাওয়ার জন্য কেন্দ্রের কোষাগারে বছরে দু'লাখ কোটি টাকা বোঝা চাপছে। তবে গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনার মেয়াদ বৃদ্ধির বিষয়টি এখনও অনুমোদন পায়নি কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভাতেই।

ভোটযুদ্ধ খবর

Latest News

বছরখানেক আগেই যিশু জানিয়েছিলেন কখনও তাঁদের বিচ্ছেদ হলে কারণ কী হবে, কী সেটা? কাঁওয়ার যাত্রার রুটে দোকানে নেমপ্লেট রাখা নিয়ে নির্দেশে ‘সুপ্রিম’ স্থগিতাদেশ একুশে জুলাইয়ে মেট্রোর যাত্রী সংখ্যা প্রকাশ্যে এল, পাতালপথের ভিড়ে অবাক কর্তৃপক্ষ শহিদ দিবস শেষ হতেই রাজপথে ‘টিম কলকাতা পুরসভা’, আধ ঘণ্টায় সাফ ধর্মতলা চত্বর KKR-এর মতোই কি আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলবে গম্ভীরের টিম ইন্ডিয়া! কী বললেন গৌতি? সাবধান! সোশ্যাল মাধ্যমে AIIMS-এ নিয়োগের ভুয়ো বিজ্ঞপ্তি, সর্তক করল কর্তৃপক্ষ নিটকাণ্ডে IIT মাদ্রাজের ডিরেক্টরের বিরুদ্ধে স্বার্থের সংঘাতের অভিযোগ!NTA কী বলছে মেসির বিরুদ্ধে খেলা অজি বিশ্বকাপারের সঙ্গে চুক্তিতে শিলমোহর মোহনবাগানের তৃণমূলে এমন কোনও নেতা নেই যিনি…, মমতার ‘বিবেকবান চাই’ মন্তব্যকে কটাক্ষ দিলীপের GDP বৃদ্ধি ৬.৫-৭% হারে… বাজেটের আগে সংসদে অর্থনৈতিক সমীক্ষা পেশ নির্মলার

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.