বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > 'যৌন হেনস্থার শিকার', নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন প্রথম রূপান্তরকামী প্রার্থী
অনন্যা কুমারী অ্যালেক্স। (ছবি সৌজন্য এএনআই)
অনন্যা কুমারী অ্যালেক্স। (ছবি সৌজন্য এএনআই)

'যৌন হেনস্থার শিকার', নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন প্রথম রূপান্তরকামী প্রার্থী

  • প্রথম রূপান্তরকামী হিসেবে বিধানসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সেই স্বপ্নপূরণ হল না।

দু'চোখে ছিল ইতিহাস গড়ার স্বপ্ন। কিন্তু প্রথম রূপান্তরকামী হিসেবে কেরালার বিধানসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সেই স্বপ্নপূরণ হল না অনন্যা কুমারী অ্যালেক্সের। নিজের দলের অভ্যন্তরেই যৌন বৈষম্য, যৌন হেনস্থার শিকার হওয়ার অভিযোগ তুলে নির্বাচনের ৩৬ ঘণ্টা আগে প্রার্থীপদ প্রত্যাহার করে নিলেন তিনি।

মল্লপুরম জেলার বেনগারা কেন্দ্র থেকে ডেমোক্রেটিক সোশ্যাল জাস্টিস পার্টির টিকিটে দাঁড়িয়েছিলেন রেডিয়ো জকি এবং মেক-আপ আর্টিস্ট অনন্যা। প্রার্থীপদ প্রত্যাহারের পর সংবাদসংস্থা এএনআইকে বলেন, 'প্রচারের জন্য ওঁরা আমায় নিয়ে ছক কষছিলেন। আমায় টিকিট দেওয়ার জন্য ওঁদের কিছু পরিকল্পনা এবং কারণ ছিল।'

ইতিমধ্যে দলের নেতাদের বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছেন ২৮ বছরের অন্যান্য। যিনি বছরদুয়েক আগে রূপান্তরকামী হিসেবে কেরালার প্রথম রেডিয়ো জকি হয়েছিলেন। অনন্যা বলেন, 'ওঁরা আমায় পিকে কুনহালিকুট্টির বিরুদ্ধে কথা বলতে বাধ্য করিয়েছিলেন। যিনি বেনগারা কেন্দ্র থেকে ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন মুসলিম লিগের (আইইউএমএল) দাঁড়িয়েছেন। বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে বাজে শব্দ ব্যবহার করতে বাধ্য করতেন ওঁরা। প্রচারের সময় ওঁরা আমায় বরখা পরতে বাধ্য করতেন। আমি সেইসব করতে অস্বীকার করি। তারপরই দলের কয়েকজন সদস্য আমায় এবং আমার রাজনৈতিক জীবন নষ্ট করে দেওয়া হুমকি দেন।'

ইতিমধ্যে মনোনয়ন প্রত্যাহারের দিন পেরিয়ে গেলেও নির্বাচনে লড়াই না করার সিদ্ধান্তে অবিচল আছেন অনন্যা। যে রাজ্যে আগামী মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) ভোট হতে চলেছে। অনন্যা বলেন, 'ডেমোক্রেটিক সোশ্যাল জাস্টিস পার্টির জন্য ভোট দেবেন না। আমি আর ডেমোক্রেটিক সোশ্যাল জাস্টিস পার্টির অংশ নয়। বেনগারায় আমি প্রচার বন্ধ করে দিয়েছি। আমি যৌন হেনস্থা, মৌখিক হেনস্থা এবং লিঙ্গ হেনস্থার শিকার করেছি। আমার স্বাস্থ্য খুব ভালো জায়গায় নেই। আশা করছি, আমি শীঘ্রই বিচার পাব।'

বন্ধ করুন