বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > পাননি মা-বাবাকে! বিশেষ বন্ধুর সাথেই এবারের জন্মদিন কাটল ‘ঊর্মি’ অন্বেষার
জন্মদিন কেমন কাটাল ঊর্মি ওরফে অন্বেষা?

পাননি মা-বাবাকে! বিশেষ বন্ধুর সাথেই এবারের জন্মদিন কাটল ‘ঊর্মি’ অন্বেষার

জমিয়ে হল জন্মদিন। হল কেক কাটা, পায়েস খাওয়াও…

‘এই পথ যদি না শেষ হয়’ দিয়ে দর্শক মনে জায়গা করে নিয়েছেন অন্বেষা হাজরা ওরফে ঊর্মি। এই মিষ্টি মেয়েটাকেই মন দিয়ে ফেলেছে দর্শকরা। তবে, জানেন কী টলিপাড়ায় এক বিশেষ বন্ধু রয়েছে ঊর্মির। যে বান্ধবীর জন্মদিন স্পেশ্যাল করার কোনও সুযোগই ছাড়ে না। 

সেই বন্ধুর খবর সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে নিজেই দিলেন অন্বেষা। লিখলেন, ‘‘আজ বাড়ি থেকে কেউ আসবে না জানতাম। তাই একটু-একটু মন খারাপ ছিল। কিন্তু সক্কাল বেলাটা আমি কাকুকে প্রনাম করে শুরু করেছিলাম। আর আজ শেষ বেলাতেও আমার গার্লফ্রেন্ড আমার গার্লফ্রেন্ডের ছানা আর কাকুর সাথেই কাটালাম। কাকুর হাতের বানানো পায়েস আর ঋতু লেখা কেক, আর সাথে কাকিমার ‘পায়েস তো আমি এখন নিজের হাতে খাওয়াবোই’ অ্যাটিটিউড, আমার কোনো অংশে মনে হচ্ছিলো না আমি বাড়িতে নেই।’’

জানেন কে এই বান্ধবী? টলিউডে ঊর্মির বিশেষ বান্ধবী ‘নোয়া’ শ্রুতি দাস। দু'জনে একসাথে অনেক ছবি দেয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। শ্রুতি আবার ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’র পরিচালক স্বর্ণেন্দু সমাদ্দারের প্রেমিকাও। অন্বেষার মন ভালো করতে কেক, পায়েস নিয়ে হাজির হয়েছিল শ্রুতি ও তাঁর পরিবার। সেই ছবিও সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের সব অনুরাগীদের সাথে ভাগ করে নিয়েছেন অভিনেত্রী। সঙ্গে ‘গার্লফ্রেন্ড’কে উদ্দেশ্য করে লিখেছেন,  ‘সব শেষে বলবো শ্রুতি@shrutidas_real ভাগ্যিস তুই হয়েছিলিস। তোর জন্যই সব।’

উর্মিকে বিশেষভাবে শুভেচ্ছা জানিয়েছে ‘সাত্যকি’ ঋত্বিক মুখোপাধ‍্যায়। দু'জনের একসাথে তোলা প্রথম ছবি শেয়ার করে লিখেছেন,  ‘এই ছবিটার গুরুত্ব অনেক আমার কাছে। তার কারণ এটা আমাদের তোলা প্রথম স্থির চিত্র। তার উপর আবার ছবিটা তুলেছে স্বর্ণেন্দু। এটা এই সময় যখন সাত‍্যকি ঊর্মিকে চিনছে, দু'জনে ঝগড়া করছে রাস্তার মাঝখানে দাঁড়িয়ে, ঊর্মিকে কলকাতা চেনাচ্ছে, একসঙ্গে ফুচকা খাওয়া, কচুরি খাওয়া আরো কত কী…’

বন্ধ করুন