বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Ira Khan: ‘পরিবারের অনেকে মানসিক-রোগের শিকার, আমার ডিপ্রেশনের সমস্যাটা জিনগত’, অকপট আমির কন্যা

Ira Khan: ‘পরিবারের অনেকে মানসিক-রোগের শিকার, আমার ডিপ্রেশনের সমস্যাটা জিনগত’, অকপট আমির কন্যা

মানসিক অবসাদ নিয়ে সরব ইরা 

Aamir Khan’s daughter Ira Khan: মাত্র পাঁচ বছর বয়সে বাবা-মা'র বিচ্ছেদ, কতখানি প্রভাব ফেলেছিল ইরার মনে? আমির কন্যা জানালেন- খাওয়া-দাওয়া বন্ধ করে দিয়েছিলেন তিনি, দেড় বছর মনমরা ছিলেন। 

সোশ্যাল মিডিয়াতে বেজায় অ্যাক্টিভ আমির খান কন্যা। অন্য স্টারকিডদের চেয়ে অনেকটা আলাদা আমিরের একমাত্র মেয়ে। নিজের জীবনের অন্ধকারময় দিক নিয়ে প্রকাশ্যে কথা বলতে এতটুকুও কুন্ঠাবোধ করেন না ইরা। পাঁচ বছর ধরে মানসিক অবসাদের সঙ্গে লড়াই করছেন আমির-কন্যা, খোলাখুলি এক সাক্ষাৎকারে ডিপ্রেশন নিয়ে আলোচনা করলেন ইরা। জানালেন, মাত্র পাঁচ বছর বয়সে বাবা-মা'র আলাদা হয়ে যাওয়াটা তাঁকে কতখানি প্রভাবিত করেছিল। ইরা বলেন, দেড় বছর ধরে মনমরা ছিলেন তিনি, বন্ধ করেছিলেন খাওয়া-দাওয়া। ইরার কথায়, মানসিক সমস্যা তাঁর পরিবারের অনেকের রয়েছে। 

এক সংবাদপত্রকে ইরা জানান, মানসিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন তিনি তা বুঝতে অনেকটা সময় লেগেছিল তাঁর। একটা সময় দিনে প্রায় ৮ ঘন্টা কাঁদতেন, এবং ১০ ঘন্টা ঘুমিয়ে কাটাতেন। এরপর নেদারল্যান্ড থেকে দেশে ফেরার সিদ্ধান্ত নেন, সেখানে উচ্চশিক্ষার জন্য গিয়েছিলেন ইরা। তাঁর কথায়, ‘মা আমাকে প্রথম বলে আমি বাঁচার তাগিদ হারিয়ে ফেলছি। সেই জন্য আমি দিনের বেশিরভাগ সময় ঘুমিয়ে কাটাতাম, কারণ আমার বাঁচতে ভালো লাগত না।’ আমিরের সঙ্গে রিনা দত্তর বিচ্ছেদ চূড়ান্ত হয় ২০০২ সালে। ১৮ বছরের দীর্ঘ দাম্পত্যে ইতি টেনেছিলেন তাঁরা। তখন ইরার বয়স সবে ৫, ছোট্ট ইরার মনে কী প্রভাব ফেলেছিল সেই ঘটনা? ইরা বলেন- ‘বাবা-মা’র বিচ্ছেদ ঘটারই ছিল, তবুও আমার মন খারাপ হয়ে গিয়েছিল। আমি কাউকে কিছু বলিনি যেহেতু তাঁরা চিন্তিত হয়ে পড়বেন আমাকে নিয়ে, আমি খাওয়া-দাওয়া বন্ধ করেছিলাম'।

ইরা বলেন তাঁর অ্যানসাইটি (দুশ্চিন্তা)-র সমস্যা নেই, বরং ক্লিনিক ডিপ্রেশনের শিকার তিনি, যা নির্দিষ্ট সময় অন্তর ফিরে আসে। এখনও চিকিৎসা চলছে তাঁর। তিনি বলেন, ‘প্রতি ৮-১০ মাসে আমার সমস্যা ফিরে আসে। এটা মূলত জিনগত সমস্যা। খানিকটা সাইকোলজিক্যালও, কিছুটা সমাজিক প্রভাবও রয়েছে। পুরোটা বুঝতে আমার সময় লেগেছে। আমার পরিবারের অনেকেরই মানসিক সমস্যা রয়েছে। আমি নিজে সঠিক পথ খুঁজে নিইনি এবং ডিপ্রেশনের শিকার হয়েছি। গত বছর জুলাইতে আমি ফের মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছিলাম। ওষুধ খাওয়া বন্ধ করেদি, আমার ওজন বেড়ে গিয়েছিল। শারীরচর্চা করতে আমি আগ্রহী ছিলাম না’। 

সদ্যই মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে সচেতনা বৃদ্ধিতে অগস্তু ফাউন্ডেশনের সূচনা করেছেন ইরা। এই অর্গানাইজেশনের উপদেষ্টা হিসাবে রয়েছেন ইরার বাবা আমির এবং মা রিনা দত্ত। আর্থিকভাবেও মেয়েকে সাহায্য করেছেন আমির। আমির ও রিনা দত্ত-র দুই সন্তান, জুনায়েদ খান ও ইরা খান। রিনার সঙ্গে ডিভোর্সের পর কিরণ রাও-কে বিয়ে করেছিলে নায়ক। তাঁদের একমাত্র পুত্র আজাদ রাও। ২০২১ সালে কিরণের সঙ্গেও বিচ্ছেদ ঘোষণা করেন আমির। 

 

বায়োস্কোপ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

সিংহ-কন্যা-তুলা-বৃশ্চিকের কেমন কাটবে মঙ্গলবার? জানুন রাশিফল মেষ-বৃষ-মিথুন-কর্কট রাশির কেমন কাটবে মঙ্গলবার? জানুন রাশিফল মঙ্গলে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি হবে ৫ জেলায়, জারি সতর্কতা, এবার আরও বাড়বে গরম? অনুপমের বিয়ের খবর শুনেই বইছে কটাক্ষের বন্যা, ভুক্তভুগী শ্রীময়ী বললেন কী কী? EPL 2023 (West Ham United vs Brentford) Live Updates: অন্ধ্র ক্রিকেট সংস্থাকে কাঠগড়ায় তুলেছেন, পালটা তদন্ত শুরু হনুমার বিরুদ্ধে ‘আপনাকে তাড়া করেছে?’ নামের গেরোয় পিংলার বিধায়ককে হাসপাতালেই নাগড়ে ফোন অগ্নাশয়ের ক্যানসারে ভুগছিলেন পঙ্কজ! কী বলছেন অনুপ জালোটা-হরিহরণ মা-মামিমার বনিবনা হচ্ছে না! অশান্তির মাঝেই বোন আরাধ্যাকে নিয়ে মুখ খুললেন নভ্যা সাভারকার হয়ে উঠতে জেলে নিজেকে বন্দি করে রাখেন রণদীপ! লেখেন, ‘আমি ২০ মিনিটও…’

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.