বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘বিয়ের পর ওনার স্বামী কবে মারা গেল?’, শাঁখা-সিঁদুর নিয়ে ফের ট্রোলড ‘ক্লান্ত’ ইমন
ফের নীতি পুলিশির শিকার ইমন
ফের নীতি পুলিশির শিকার ইমন

‘বিয়ের পর ওনার স্বামী কবে মারা গেল?’, শাঁখা-সিঁদুর নিয়ে ফের ট্রোলড ‘ক্লান্ত’ ইমন

  • ‘আমি জাস্ট জানতে চাই এঁনারা কেন বেঁচে আছেন? নোংরামির একটা সীমা থাকা উচিত। আমি সত্যি খুব ক্লান্ত এইগুলো দেখে’, পালটা জবাব ইমনের। 

মনের মানুষ নীলাঞ্জনের সঙ্গে বিয়ের পর এখনও ফিকে হয়নি ইমনের হাতের মেহেন্দির রঙ। তবে নীতি পুলিশির জেরে জর্জরিত সংগীত শিল্পী। বিয়ের দিন সাতেকের মাথায় শাঁখা-পলা খুলে স্টেজে পারফর্ম করায় কটাক্ষের মুখে পড়েছিলেন ইমন। কেন চটজলদি সোহাগের চিহ্ন খুলে ফেলেছেন ইমন, এই নিয়ে নেট নাগরিকদের একটা অংশের প্রশ্নবাণে বিদ্ধ হতে হয়েছিল গায়িকাকে। ফের একই ধরণের ঘটনার পুনরাবৃত্তি। এবার কটূক্তির মাত্রা আরও লাগাম ছাড়াল। 

গতকালই ফেসবুকের দেওয়ালে ইমন সারেগামাপা'র সেটের থেকে আসন্ন এপিসোডে নিজের লুক প্রকাশ্যে আনেন। সেখানে ফিউসন সাজে ধরা দিয়েছেন ইমন। শাড়ি পরেছেন ঠিকই, তবে সঙ্গে রয়েছে কলারযুক্ত স্টাইলিশ ওভারকোট। নিজের এই মর্ডান লুককে পূর্ণতা দিতে জাঙ্ক জুলেয়ারি বেছে নিয়েছেন ইমন, সঙ্গে কাজল কালো চোখ আর হালকা লিপস্টিক। এই সাজের সঙ্গে সাযুজ্য রেখে হাতে শাঁখা-পলা বা মাথায় সিঁদুর পরেননি সদ্যবিবাহিতা এই শিল্পী। ইমনের এই সাজ প্রশংসা কুড়িয়েছে ঠিকই, তবে নিন্দুকরাও সমালোচনা করতে ছাড়েননি। কিছু মানুষ সব সীমা লঙ্ঘন করে নানান কটূক্তি ছুঁড়ে দেন। তাতেই বেজায় চটেছেন ইমন।

 একজন তো ইমনের ফেসবুকের কমেন্ট বক্সে লেখেন, ‘বিয়ে করার পর ওনার স্বামী কবে মারা গেল? নাকি সিঁদুর ওনার ফ্যাশানের সাথে যায়নি’। এই নিম্ন রুচির কমেন্টের স্ক্রিনশট তুলে নিজের ফেসবুকের দেওয়ালে পোস্ট করেন ইমন। আর লেখেন, ‘আমি জাস্ট জানতে চাই এঁনারা কেন বেঁচে আছেন? নোংরামির একটা সীমা থাকা উচিত। আমি সত্যি খুব ক্লান্ত এইগুলো দেখে’। 

ইমনকে অবশ্য তাঁর ভক্ত ও পরিচিতদের আবেদন, এইসব ট্রোলারদের বেশি পাত্তা না দিতে। কারণ পুরোটাই ‘ফুটেজ’ পাবার জন্য করে থাকেন এইসব মানুষজন। 

শাঁখা-পালা বিতর্কে ইমন আগেই জানিয়েছেন,  এই রকম মানুষের তাঁর জীবনে কোনও অস্তিত্ব নেই। তাঁর কাছে নীলাঞ্জন এবং তাঁর আশেপাশের মানুষরা বেশি গুরুত্বপূর্ণ। শাখা-পলা পরে নীলাঞ্জনকে তিনি কতটা ভালবাসেন বা তাঁর জন্য কতটা ভাবেন, তা প্রমাণ হয় না। আজীবন নীলাঞ্জনের পাশে থাকার যে শপথ নিয়েছেন তিনি, তা তাঁদের ব্যবহারে প্রমাণ হবে। তিনি তৃতীয় কারও কথায় পাত্তা দেন না।

গত ২রা ফেব্রুয়ারি গঙ্গার ধার ঘেঁসা বালি জেটিয়া রাজবাড়িতে বসেছিল ইমন-নীলাঞ্জনের বিয়ের আসর। তার দুদিন আগেই আইনি বিয়ে সারেন এই মিউজিক্যাল দম্পতি। 

বন্ধ করুন