বাড়ি > বায়োস্কোপ > নেটিজেনদের ব্যাপক রোষের মুখে সড়ক ২, তবে 'কুছ পরোয়া নেহি' মহেশ কন্যা পূজা ভাটের
মুখ খুললেন পূজা ভাট 
মুখ খুললেন পূজা ভাট 

নেটিজেনদের ব্যাপক রোষের মুখে সড়ক ২, তবে 'কুছ পরোয়া নেহি' মহেশ কন্যা পূজা ভাটের

  • প্রশংসক এবং সমালোচক একই কয়েনের এপিঠ-ওপিঠ। তাই সড়ক ২-এর ডিজলাইকের রেকর্ড নিয়ে মাথাব্যাথা নেই পূজার। বললেন,'আমরা ট্রেন্ডিংয়ে তো আছি'।

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই নেটিজেনদের নিশানায় আলিয়া ভাট ও মহেশ ভাট। সড়ক ২-এর ট্রেলারকে সুশান্ত ভক্তদের রোষের মুখে পড়তে হয়েছে স্বাভাবিকভাবেই। মুক্তির মাত্র ৬ ঘন্টার মধ্যেই বিশ্বের সবচেয়ে ডিজলাইক পাওয়া ফিল্ম ট্রেলারের তকমা জুটেছে সড়ক-২ এর ঝুলিতে। সময় যত এগিয়েছে ততই বেড়েছে ডিজলাইকের সংখ্যা। ট্রেলার দেখতে নয়, শুধুমাত্র ডিজলাইক বটন ক্লিক করতেই সড়ক ২-এর ট্রেলারে ক্লিক করেছেন অধিকাংশ দর্শক। শতাংশের বিচারে বিশ্বের সবচেয়ে অপছন্দের ইউটিউব ভিডিয়ো এটি। কারণ লাইক-ডিজলাইকের নিরিখে বিচার করলে প্রায় ৯৪% মানুষ এই ভিডিয়োয় ডিজলাইক দিয়েছেন। কিন্তু তা সত্ত্বেও বিশেষ চিন্তিত নন এই ছবির অন্যতম কাস্ট তথা মহেশ ভাট কন্যা পূজা ভাট। অনলাইন ট্রোলিংয়ের মুখে পড়ে ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টটি প্রাইভেট করে দিলেও টুইটারে সমালোচকদের জবাব দিলেন পূজা।

পূজা এক নেটিজেনেদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, তিনি সড়ক ২-এর ট্রেলার সম্পর্কে এই নেগেটিভ প্রতিক্রিয়া নিয়ে একেবারেই চিন্তিত নন। কারণ? ‘ভালোবাসার মানুষ এবং সমালোচক দুটোই আমার মনে হয় একটা কয়েনের এপিঠ আর ওপিঠ। দুটোকেই সামলাতে হবে, তবে দুই দলের মানুষই যে সময়বার করে ইউটিউবে এই ভিডিয়োটা ট্রেন্ড করাচ্ছে তার জন্য ধন্যবাদ’।

আলিয়া ভাটের মা লেখেন, ‘বুদ্ধিমান মেয়ে, একদম সত্যি কথা’। উল্লেখ্য ডিজলাইক এবং নেগেটিভ কমেন্টে ভরে গেলেও গতকাল থেকে ইউটিউব ইন্ডিয়ায় পয়লা নম্বরে ট্রেন্ড করছে সড়ক টুয়ের ট্রেলার। এখনও পর্যন্ত সড়ক ২-এর ট্রেলারে ডিজলাইক পড়েছে ৭.২ মিলিয়ন অর্থাত্ ৭২ লক্ষ এবং লাইকের সংখ্যা এখন ৪ লক্ষের গন্ডি পার করতে পারেনি। যদিও  ট্রেলারের ভিউ সংখ্যা আড়াই কোটির ছাড়িয়েছে। পূজা ভাটের এই জবাবের প্রশংসা না করে থাকতে পারেননি তাঁর সত্ মা সোনি রাজদান। 

সুশান্তকে নিয়ে আলিয়ার কফি উইথ করণের সেটে মন্তব্য, রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে মহেশ ভাটের ঘনিষ্ঠতার জেরে শুরু থেকেই ভাট পরিবারের উপর ক্ষুদ্ধ সুশান্ত ভক্তরা। তারপর এই ছবির সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়েছে নোপোটিজমের তকমাও। কারণ এই ছবিতে লিড রোলে রয়েছেন মহেশ ভাটের দুই কন্যা-আলিয়া ও পূজা। অন্যদিকে অপর দুই প্রধান চরিত্রে ইন্ডাস্ট্রির অন্য দুই ইনসাইডার সঞ্জয় দত্ত ও আদিত্য রয় কাপুর।

২১ বছর পর পরিচালক মহেশ ভাটের কামব্যাকের পথটা যে সহজ হবে না তা এক কথায় সম্ভাব্য ছিল। তবে এতটা কঠিন হবে এটা বোধহয় অনেকেই আশা করেননি। বিতর্কের শেষ এখানেই নয়। সড়ক টুয়ের ট্রেলার মুক্তির কয়েক ঘন্টার মধ্যেই বিশ্ব হিন্দু পরিষদের তরফে দাবি করা হল এই ছবি হিন্দুদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত দিচ্ছে।পাশাপাশি এই ছবির ট্রেলারে ব্যবহৃত ইশক কামাল গানটির সঙ্গে ইতিমধ্যেই ‘চুরি করা গান’-এর তকমা সেঁটে দেওয়া হয়েছে। পূজা ভাট অন্যতম পছন্দের এই গানটি এটি। কিন্তু পাকিস্তানি মিউজিক প্রোডিউসার শেজান সলিম ওরফে জো-জি দাবি করেছেন এটি আজ থেকে ১১ বছর আগে তৈরি তাঁর একটি কম্পোজিশন, যা মুক্তি পেয়েছিল ২০১১ সালে। টুইট বার্তায় দুটি গানের ‘হুবহু মিল' তুলে ধরেন এই পাক শিল্পী।যা দেখে হতবাক নেটিজেনরা।

পূজা ভাট ও সঞ্জয় দত্ত অভিনীত সড়ক (১৯৯১) ছবির সিক্যুয়েল এই ফিল্ম। করোনা পরিস্থিতিতে সরাসরি ওটিটি প্ল্যাটফর্ম ডিজনি প্লাস হটস্টারে আগামী ২৮ অগস্ট মুক্তি পেতে চলেছে পরিচালক মহেশ ভাটের এই ছবি।

 

বন্ধ করুন