বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > ওজন কমানোর জন্য খাদ্যতালিকা থেকে রুটি বাদ দেওয়া কী ঠিক? জানুন বিস্তারে
শক্তির উৎকৃষ্ট উৎস রুটি। কারণ এতে শরীরের পক্ষে উপযুক্ত কার্বস ও ফ্যাট থাকে।
শক্তির উৎকৃষ্ট উৎস রুটি। কারণ এতে শরীরের পক্ষে উপযুক্ত কার্বস ও ফ্যাট থাকে।

ওজন কমানোর জন্য খাদ্যতালিকা থেকে রুটি বাদ দেওয়া কী ঠিক? জানুন বিস্তারে

  • রুটিতে ভিটামিন বি ও ই, কপার, ক্যালশিয়াম, আয়োডিন, ম্যাঙ্গানিজ, সিলিকন, পটাশিয়াম বর্তমান থাকে। এ সমস্তই শরীরের পক্ষে গুরুত্বপূর্ণ।

রুটি ভারতীয় খাদ্যতালিকার অবিচ্ছেদ্য অংশ। গম, বেসন, ময়দার রুটি হোক বা জোয়ার, বাজরা, ভু্ট্টার আটার রুটি-- স্থান বিশেষে কোনও না-কোনও ধরণের রুটি খাদ্য তালিকায় থাকেই। রুটিতে ভিটামিন বি ও ই, কপার, ক্যালশিয়াম, আয়োডিন, ম্যাঙ্গানিজ, সিলিকন, পটাশিয়াম বর্তমান থাকে। এ সমস্তই শরীরের পক্ষে গুরুত্বপূর্ণ। তা সত্ত্বেও কী ওজন কম করার জন্য রুটি ছাড়া উচিত?

রুটি খেলে কী হয়:

খাদ্যতালিকা থেকে কার্বোহাইড্রেট বাদ দিলে অনেকে সহজে ওজন কমাতে পারেন। ভারতীয় খাদ্য তালিকায় ভাত ও রুটিই প্রধান কার্ব। তাই ওজন কম করার জন্য অনেকেই এই দুই পদকে খাদ্যতালিকা থেকে বাদ দিতে চান।

তবে এর ফল হীতে বিপরীত হতে পারে। গমজাত খাবার দাবার ছেড়ে দিলে বা বাদ দিলে অন্যান্য খাদ্য উপাদান থেকে পর্যাপ্ত পরিমাণে শক্তি সঞ্চয় সম্ভব হয় না। সে ক্ষেত্রে শরীরে মজুত থাকা প্রোটিন ভেঙে শক্তি সঞ্চয় করতে হয়। এ কারণে ওজন তো কম হয়, কিন্তু মেদ ঝরে না। এর পাশাপাশি শরীরের শক্তিও কমতে থাকে এবং ব্যক্তি ক্লান্ত হয়ে পড়ে।

জানেন কী রুটি খেয়েও ওজন কমানো যেতে পারে:

রুটিতে ক্যালরির পরিমাণ কম থাকে (প্রায় ৭০ ক্যালরি), ওজন কম করার চেষ্টায় থাকলে এটি একটি ভালো বিকল্প। ভারতীয় রুটি বা পাউরুটি যেহেতু ফাইবার, প্রোটিন ও অন্যান্য পুষ্টিগুণে সমৃদ্ধ, তাই এগুলি খেলে অনেকক্ষণ পেট ভরতি থাকে এবং এর ফলে সমগ্র ক্যালরি গ্রহণের পরিমাণ কমাতে পারে। তাই ওজন কম করার জন্য রুটি একটি উৎকৃষ্ট বিকল্প।

তবে তাই বলে খাদ্যতালিকায় রুটির সংখ্যা বাড়িয়ে বসবেন না যেন। দিনে চারটের বেশি রুটি না-খাওয়াই উচিত।

রুটি খাওয়ার উপকারিতা:

১. শক্তির উৎকৃষ্ট উৎস রুটি। কারণ এতে ভালো কার্বস ও ফ্যাট থাকে। 

২. আয়রন থাকায় রক্তে হিমোগ্লোবিনের স্তর নিয়ন্ত্রণে রাখতে রুটি সাহায্য করে। 

৩. রুটিতে হাই ফাইবার থাকে, যে কারণে পাচন তন্ত্রের জন্য এটি উৎকৃষ্ট খাবার। ফাইবার যুক্ত খাবার দাবার কোষ্ঠকাঠিন্য ও অন্যান্য হজম সংক্রান্ত সমস্যা কম করতে সাহায্য করে। বদহজমের সমস্যা না-থাকলেও, শরীর সুস্থ রাখতে ফাইবার প্রয়োজনীয়, তাই রুটি খাওয়া উচিত।

বন্ধ করুন