বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ২০১৫-র স্মৃতি উসকে জলমগ্ন চেন্নাই, মোদীর কাছে সাহায্য চাইলেন স্টালিন
২০১৫ সালের স্মৃতি উসকে রেকর্ড বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত তামিলনাড়ু। (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)
২০১৫ সালের স্মৃতি উসকে রেকর্ড বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত তামিলনাড়ু। (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)

২০১৫-র স্মৃতি উসকে জলমগ্ন চেন্নাই, মোদীর কাছে সাহায্য চাইলেন স্টালিন

  • ২০১৫ সালের স্মৃতি উসকে রেকর্ড বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত তামিলনাড়ু।

২০১৫ সালের স্মৃতি উসকে রেকর্ড বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত তামিলনাড়ু। আজকেও চেন্নাই সহ তামিলনাড়ুর বিস্তীর্ণ অঞ্চলে ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস রয়েছে। এর জন্য চেন্নাই, তিরুভাল্লুর, কাঞ্চিপুরম ও চেঙ্গলপাট্টুতে সব স্কুল ও কলেজে ছুটি ঘোষণা করে দেওয়া হয় রাজ্য সরকারের তরফে। চেন্নাই-সহ বেশ কয়েকটি জেলা জলের তলায়। দুর্গতদের উদ্ধার করে নিরাপদ স্থানে নিয়ে যেতে মোতায়েন করা হয়েছে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীকে। তিরুভাল্লুর, চেঙ্গলপাট্টু এবং মাদুরাইতে ৪টি এনডিআরএফ দল মোতায়েন করা হয়েছে।

তামিলনাড়ুর উপকূলবর্তী জেলাগুলিতে ১০ ও ১১ নভেম্বর পর্যন্ত প্রবল বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়ে লাল সতর্কতা জারি করা হয়েছে। এই আবহে দুর্গতদের জন্য ত্রাণ ও ওষুধ পৌঁছে দেওয়ার জন্য বিশেষ নির্দেশ দিয়েছেন তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী এমকে স্টালিন। গতকাল তিনি নিজে উত্তর চেন্নাইয়ে বৃষ্টিতে বিধ্বস্ত এলাকাগুলি ঘুরে দেখেছিলেন। এদিকে এই আবহে গতরাতে মুখ্যমন্ত্রী স্টালিনের সঙ্গে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। স্টালিন মোদীকে জানান, কোভিড মোকাবিলা করতে গিয়ে রাজ্যের বিপর্যয় মোকাবিলা তহবিল ফাঁকা হয়ে গিয়েছে। জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা তহবিল থেকে তাই অর্থসাহায্য চান স্টালিন।

এদিকে গ্রেটার চেন্নাই কর্পোরেশন সোমবার ১৫টি জোনে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য খাবারের প্যাকেট বিতরণ করেছে। প্রায় ৬৫ হাজার প্যাকেট প্রস্তুত করে তা দুর্গতদের পরিবেশন করা হয়েছে। ২০১৫ সালের পর এটাই এই এলাকায় সর্বাধিক বৃষ্টি বলে জানানো হয়েছে আবহাওয়া দফতরের তরফে। উত্তর-পূর্ব মৌসুমী বায়ু ও বঙ্গোপসাগরে গঠিত নিম্নচাপের জেরে এই বৃষ্টি বলে জানা গিয়েছে। শনিবার রাত থেকে শুরু হওয়া এই বৃষ্টির জেরে ২০১৫ সালের স্মৃতি ফিরে এসেছে চেন্নাইবাসীর মনে।

বন্ধ করুন