বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > প্রায় ১০ মাসে সবথেকে সস্তা সোনা, রেকর্ডের থেকে ২১ % দাম কমে যাওয়ায় বাড়ছে বিক্রি
প্রায় ১০ মাসে সবথেকে সস্তা সোনা, রেকর্ডের থেকে ২১ % দাম কমে যাওয়ায় বাড়ছে বিক্রি। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ব্লুমবার্গ)
প্রায় ১০ মাসে সবথেকে সস্তা সোনা, রেকর্ডের থেকে ২১ % দাম কমে যাওয়ায় বাড়ছে বিক্রি। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ব্লুমবার্গ)

প্রায় ১০ মাসে সবথেকে সস্তা সোনা, রেকর্ডের থেকে ২১ % দাম কমে যাওয়ায় বাড়ছে বিক্রি

  • বিয়ের মরশুমে কিছুটা স্বস্তি।

বিশ্ব বাজারের প্রভাবে ভারতেও নিম্নমুখী সোনার দাম। শুক্রবার ভারতীয় বাজারে এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম সোনার দাম ০.৪৪ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৪৪,৩৪৪ টাকা। যা ১০ মাসেরও বেশি সময় সোনার সবথেকে কম দাম। একইভাবে কমেছে রুপোর দরও। এক কেজি রুপোর দাম ০.৮৩ শতাংশ কমে হয়েছে ৬৫,৩৭১ টাকা।

গত বছর ভারতীয় বাজারে ৭ অগস্ট ১০ গ্রাম সোনার দর রেকর্ড ৫৬,২০০ টাকায় পৌঁছে গিয়েছিল। তারপর থেকে ক্রমশ সোনার দাম অনেকটা নীচে নেমে গিয়েছে। আপাতত রেকর্ডের দরের তুলনায় সোনার দাম প্রায় ১২,০০০ টাকা বা ২১ শতাংশের বেশি কমে গিয়েছে। অর্থাৎ ১০ মাসের সর্বনিম্ন স্তরে পৌঁছে গিয়েছে সোনা। তার জেরে ভারতীয় বাজারে গ্রাহকদের মধ্যে সোনা কেনার প্রবণতা বেড়েছে। বিয়ের মরশুমে কিছুটা স্বস্তি পেয়েছেন ক্ এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীর কথায়, ‘গত কয়েকদিনে উল্লেখযোগ্যভাবে বেড়েছে চাহিদা। খুচরো ক্রেতারা সোনা কিনছেন। বিশেষত বিয়ের জন্য কেনাকাটি করছেন।’ সেই পরিস্থিতির মধ্যেও ইতিবাচক আশা দেখছেন বিশেষজ্ঞরা।

বিশ্ব বাজারেও দু'শতাংশ পড়েছে হলুদ ধাতুর দাম। যা ন'মাসে সর্বনিম্ন। গত বছর অগস্টে এক আউন্স সোনার দাম ২,০১০ ডলারে পৌঁছে গিয়েছিল। তারপর থেকে ১৫ শতাংশ কমেছে সোনার দাম। বিশেষজ্ঞদের মতে, ১,৫০০ ডলারের স্তরে নেমে যাওয়ার পর স্থায়ী হতে পারে সোনা। অন্যান্য মূল্যবান ধাতুর মতো রুপোর দর ০.২ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ২৫.৩৫ ডলার। তবে চলতি সপ্তাহে এখনও পর্যন্ত রুপোর দর পাঁচ শতাংশের মতো পড়েছে। যা গত বছরের নভেম্বরের শেষের দিকে রুপোর সবথেকে খারাপ অবস্থা বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

বন্ধ করুন