বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > টুলকিট নিয়ে BJP নেতাদের টুইট থেকে ম্যানিপুলেটেড ট্যাগ সরানোর নির্দেশ কেন্দ্রের
BJP নেতাদের টুইট থেকে ম্যানিপুলেটেড ট্যাগ সরানোর নির্দেশ কেন্দ্রের (ছবি সৌজন্যে রয়টার্স) (REUTERS)
BJP নেতাদের টুইট থেকে ম্যানিপুলেটেড ট্যাগ সরানোর নির্দেশ কেন্দ্রের (ছবি সৌজন্যে রয়টার্স) (REUTERS)

টুলকিট নিয়ে BJP নেতাদের টুইট থেকে ম্যানিপুলেটেড ট্যাগ সরানোর নির্দেশ কেন্দ্রের

  • টুইটারে টুলকিট নিয়ে 'ভুয়ো' টুইট করেছেন বিজেপির সর্বভাবরতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা সহ ৫ বিজেপি নেতা।

টুইটারে টুলকিট নিয়ে 'ভুয়ো' টুইট করেছেন বিজেপির সর্বভাবরতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা সহ ৫ বিজেপি নেতা। সেই অভিযোগে টুইটার তাদের সেই টুইটগুলিকে 'ম্যানিপুলেটেড মিডিয়া' ট্যাগ দিয়েছে টুইটার। তবে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে এবার টুইটারকে নির্দেশ পাঠানো হল যাতে টুলকিট সংক্রান্ত সেই টুইটগুলি থেকে 'ম্যানিপুলেটেড মিডিয়া' ট্যাগ সরিয়ে দেওয়া হয়।

কেন্দ্রীয় ইলেক্ট্রনিকস এবং তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রক মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটারকে কড়া ভাষায় একটি নোটিশ পাঠিয়েছে। তাতে ভারতীয় রাজনীতিবিদদের করা টুলকিট টুইটে 'ম্যানিপুলেটেড ট্যাগ' দেওয়ায় টুইটারকে কড়া কথা শোনানো হয়েছে। কেন্দ্রের দাবি, বিজেপি নেতাদের টুইটকে 'ম্যানিপুলেটেড ট্যাগ' দেওয়া পক্ষপাতদুষ্ট এবং একতরফা সিদ্ধান্ত। যদিও বিতর্কিত টুলকিটের সত্যতা নিয়েও তদন্ত হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।

কেন্দ্রীয় ইলেক্ট্রনিকস এবং তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রকের বক্তব্য, তদন্তাধীন কোনও বিষয়কে ইতিমধ্যে 'ম্যানিপুলেটেড ট্যাগ' দিয়েছে টুইটার। এর জেরে তদন্ত প্রভাবিত হতে পারে। এটি একেবারেই কাম্য নয় বলেও বলা হয়েছে কেন্দ্রের তরফে। এর জেরে টুইটারের গ্রোহণযোগ্যতা কমে যাচ্ছে বলেও অভিযোগ করা হয় কেন্দ্রের তরফে। তাই ন্যায়বিচারের স্বার্থে বিজেপি নেতাদের টুলকিট সংক্রান্ত টুইটগুলি থেকে 'ম্যানিপুলেটেড ট্যাগ' সরাতে বলেছে কেন্দ্র।

উল্লেখ্য, টুলকিট সংক্রান্ত একটি টুইট করে সম্প্রতি কংগ্রেসকে চাপে ফেলতে চেয়েছিল বিজেপি। সেই লক্ষ্যে বিজেপির মুখ্য মুখপাত্র সম্বিত পাত্র কয়েকদিন আগে একটি টুইট করে দাবি করেন যে কংগ্রেস প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সম্মানহানীর লক্ষ্যে করোনা ভাইরাস নিয়ে রাজনীতি করতে চাইছে। তবে সম্বিতের সেই দাবিকে উড়িয়ে দিয়েছিল কংগ্রেস। তারপরই কার্যত কংগ্রেসের দাবিকে মান্যতা দিয়েই সম্বিত পাত্রের সেই টুইটকে 'ম্যানিপুলেটেড মিডিয়া' বা কারসাজি করা মিডিয়ার ট্যাগ দেওয়া হয় টুইটার কর্তৃপক্ষের তরফে।

সম্বিত পাত্র এক টুলকিট প্রকাশ করে দাবি করেন, যে কংগ্রেস কোভিডকালে দলীয় কর্মীদের করোনা ভাইরাসের নতুন স্ট্রেনকে 'মোদী স্ট্রেন' বলার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। কংগ্রেসের দাবি, এই টুলকিটটি ভুয়ো। এই ঘটনায় বিজেপিকে পাল্টা কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে কংগ্রেসের দাবি, বিজেপি মিথ্যাচার করছে। কংগ্রেসের তরফে বলা হয়, ভুয়ো তথ্য ছড়াচ্ছে বিজেপি।

বন্ধ করুন