বাড়ি > ঘরে বাইরে > চিনকে বার্তা দিতে আন্দামানে আমেরিকার সঙ্গে যৌথ নো-মহড়া ভারতের
পরমাণু শক্তি চালিত ইউএসএস নিমিট্‌জ বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম যুদ্ধজাহাজ।
পরমাণু শক্তি চালিত ইউএসএস নিমিট্‌জ বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম যুদ্ধজাহাজ।

চিনকে বার্তা দিতে আন্দামানে আমেরিকার সঙ্গে যৌথ নো-মহড়া ভারতের

  • চলতি সপ্তাহে আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের কাছে ভারতীয় নৌবাহিনীর সঙ্গে যৌথ মহড়া দিতে চলেছে আমেরিকার নেভি ক্যারিয়ার স্ট্রাইক গ্রুপ।

সীমান্ত নিয়ে ভারত-চিন সংঘাতের মাঝে চলতি সপ্তাহে আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের কাছে ভারতীয় যুদ্ধজাহাজগুলির সঙ্গে যৌথ নৌ-মহড়া দিতে চলেছে আমেরিকার নেভি ক্যারিয়ার স্ট্রাইক গ্রুপ, যার নেতৃত্বে রয়েছে মার্কিন রণতরী ইউএসএস নিমিট্‌জ।

সোমবার ওয়াকিবহাল সূত্রে জানা গিয়েছে, ভারতীয় নৌবাহিনীর ইস্টার্ন ফ্লিট আপাতত আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে মহড়ায় ব্যস্ত রয়েছে। অন্য দিকে মালাক্কা প্রণালীর মধ্যে দিয়ে যাত্রা করে বর্তমানে পারস্য উপসাগরের দিকে রওনা দিয়েছে মার্কিন রণপোত বাহিনী। চলতি সপ্তাহের শেষ দিকে দুই দেশের নৌবাহিনী আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের কাছে যৌথ মহড়া শুরু করবে।

উল্লেখ্য, ভারতের মূল ভূখণ্ড থেকে ১২০০ কিমি দূরে অবস্থিত আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের মাত্র ৩৫০ কিমি দূরে মালাক্কা প্রণালী দিয়ে চিনের তেল আমদানিকারী জাহাজগুলি যাত্রা করে। 

পরমাণু শক্তি চালিত ইউএসএস নিমিট্‌জ বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম যুদ্ধজাহাজ। সম্প্রতি দক্ষিণ চিন উপসাগরে টহলদারি সেরে জাহাজটি ফিরছে বলে জানা গিয়েছে। ওই টহলদারি অভিযানে অংশগ্রহণ করেছিল ইউএসএস রোনাল্ড রেগ্যান যুদ্ধজাহাজের নেতৃত্বে থাকা আরও একটি মার্কিন ক্যারিয়ার স্ট্রাইক গ্রুপ। 

এর আগেই দক্ষিণ চিন সাগরে চিনা যুদ্ধজাহাজ বাহিনীর টহলদারিতে উদ্বেগ প্রকাশ করে একাধিক প্রতিবেশী দেশ এবং আমেরিকা। বেজিংয়ের দখলদারি থেকে ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলকে মুক্ত রাখতেই দক্ষিণ চিন সাগরে অভিযান চালানো হয়েচে বলে দাবি করেছে মার্কিন নৌসেনা।

ভারত-আমেরিকা যৌথ নৌ-মহড়ার সঙ্গে সঙ্গেই পরবর্তী মালাবার নৌ-মহড়ায় ভাত ছাড়াও আমেরিকা, জাপানের পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়াও অংশ নেবে বলে গত ১৭ জুলাইয়ের রিপোর্টে জানিয়েছিল হিন্দুস্তান টাইমস। ২০১৯ সালে চিনের উদ্বেগ বাড়িয়েছে ভারত, আমেরিকা, জাপান ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে চতুর্দেশীয় নিরাপত্তা নীতি নিয়ে আলোচনা। মনে করা হচ্ছে, তার জেরেই দক্ষিণ চিন উপসাগরে নিজের উপস্থিতি জানাতে টহলদারির ব্যবস্থা করে চিনা নৌবহর। 

বন্ধ করুন