বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > TMC in Tripura: ত্রিপুরায় জায়েন্ট স্ক্রিনে মমতার ভাষণ শুনতে বিপুল আগ্রহ, খুশি সমর্থকরা
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

TMC in Tripura: ত্রিপুরায় জায়েন্ট স্ক্রিনে মমতার ভাষণ শুনতে বিপুল আগ্রহ, খুশি সমর্থকরা

  • এবারে অনেক আগে থেকেই ত্রিপুরায় ২১ জুলাইয়ের অনুষ্ঠান দেখানোর জন্য প্রস্তুতি নিয়েছিল তৃণমূল। সেইমতো আগে থেকেই ত্রিপুরার তৃণমূল নেতৃত্বকে ডেকে পাঠানো হয়েছিল। ডেকে পাঠিয়ে ত্রিপুরার প্রদেশ নেতৃত্বকে সবরকমের ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানানো হয়।

‌গত বছর জেলা প্রশাসনের অনুমতি না মেলায় ত্রিপুরায় ২১ জুলাইয়ের শহিদ সমাবেশের বক্তব্য শোনার জন্য জায়েন্ট স্ক্রিন বসানো সম্ভব হয়নি। করোনার কারণেই বিধিনিষেধ জারি ছিল। কিন্তু এই বছর পরিস্থিতি পাল্টেছে। এবার ত্রিপুরায় জায়েন্ট স্ক্রিনে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্য শোনানোর ব্যবস্থা করেছে তৃণমূল। তৃণমূল নেত্রীর বক্তব্য শুনে স্বভাবতই খুশি দলের কর্মী সমর্থকরা।

আগামী বছর ত্রিপুরায় বিধানসভা ভোট। সেই বিধানসভা ভোটকে সামনে রেখে এখন থেকেই ত্রিপুরায় সংগঠনকে সাজানো শুরু করেছে তৃণমূল। এই পরিস্থিতিতে তৃণমূলের ২১ জুলাইয়ের শহিদ দিবসের কর্মসূচি ত্রিপুরায় তৃণমূলের কর্মী সমর্থকদের কাছে ছিল একটা বড় কর্মসূচি। তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্য যাতে সকলে শুনতে পারে, সেজন্য বিশাল জায়েন্ট স্ক্রিনের ব্যবস্থা করেছিল ত্রিপুরায় তৃণমূল নেতৃত্ব। তৃণমূল নেত্রী কী বলেন, সেটা শোনার জন্য সকলের আগ্রহ ছিল বেশি। সেই মতো দলীয় কার্যালয়ে অনেকেই এসেছিলেন, নেত্রী কী বলেন তা শোনার জন্য। তৃণমূল নেত্রীর ভাষণ দলীয় কর্মী সমর্থকদের উজ্জীবিত করেছে বলে রাজনৈতিক মহলের মত।

এবারে অনেক আগে থেকেই ত্রিপুরায় ২১ জুলাইয়ের অনুষ্ঠান দেখানোর জন্য প্রস্তুতি নিয়েছিল তৃণমূল। সেইমতো আগে থেকেই ত্রিপুরার তৃণমূল নেতৃত্বকে ডেকে পাঠানো হয়েছিল। ডেকে পাঠিয়ে ত্রিপুরার প্রদেশ নেতৃত্বকে সবরকমের ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানানো হয়। সেই মতো পোস্টার দেওয়া হয়েছিল ত্রিপুরার বিভিন্ন জায়গায়। গত বছর জায়েন্ট স্ক্রিনে তৃণমূল নেত্রীর ভাষণ দেখানোর ব্যবস্থা করা হয়েছিল। কিন্তু গত বছর ২১ জুলাইয়ের দিন দুপুর ২টো নাগাদ করোনার বিধিনিষেধ জারি হয়ে যাওয়ার কারণে তৃণমূল নেত্রীর ভাষণ শোনানো সম্ভব হয়নি।

বন্ধ করুন