বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > সুয়েজ খালে আটকে থাকা মালবাহী জাহাজের কর্মীরা সকলেই ভারতীয়

সুয়েজ খালে আটকে থাকা মালবাহী জাহাজের কর্মীরা সকলেই ভারতীয়

দুই পাড় ছুঁয়ে এখনও দাঁড়িয়ে এম ভি এভার গিভেন। আর সেই জাহাজেই প্রতীক্ষার প্রহর গুনছেন ২৫ জন ভারতীয়।

এখনও খোলেনি জলপখের যানজট। সুয়েজ খালের দুই পাড় ছুঁয়ে এখনও দাঁড়িয়ে এম ভি এভারগ্রিন। আর সেই জাহাজেই প্রতীক্ষার প্রহর গুনছেন ২৫ জন ভারতীয়। ছবি : টুইটার (Twitter)
1/5এখনও খোলেনি জলপখের যানজট। সুয়েজ খালের দুই পাড় ছুঁয়ে এখনও দাঁড়িয়ে এম ভি এভারগ্রিন। আর সেই জাহাজেই প্রতীক্ষার প্রহর গুনছেন ২৫ জন ভারতীয়। ছবি : টুইটার (Twitter)
শোয়েই কিষেণ কাইশা, জাপানের এই ব্যবসায়ীই বিশাল মালবাহী জাহাজটির মালিক। সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানিয়েছেন যে, তাঁর এই জাহাজে বিভিন্ন কর্মরত সকল কর্মীই ভারতীয়। ছবি : টুইটার (Twitter)
2/5শোয়েই কিষেণ কাইশা, জাপানের এই ব্যবসায়ীই বিশাল মালবাহী জাহাজটির মালিক। সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানিয়েছেন যে, তাঁর এই জাহাজে বিভিন্ন কর্মরত সকল কর্মীই ভারতীয়। ছবি : টুইটার (Twitter)
সূত্রের খবর, ৪০০ মিটার লম্বা ও ৫৯ মিটার চওড়া মালবাহী জাহাজটির রেজিস্ট্রেশন পানামার। চিন থেকে মালবাহী কন্টেনার নিয়ে নেদারল্যান্ডসের বন্দর রোটারড্যাম যাচ্ছিল জাহাজটি। ছবি : টুইটার (Twitter)
3/5সূত্রের খবর, ৪০০ মিটার লম্বা ও ৫৯ মিটার চওড়া মালবাহী জাহাজটির রেজিস্ট্রেশন পানামার। চিন থেকে মালবাহী কন্টেনার নিয়ে নেদারল্যান্ডসের বন্দর রোটারড্যাম যাচ্ছিল জাহাজটি। ছবি : টুইটার (Twitter)
এদিকে ব্যস্ত খাল এভাবে অবরুদ্ধ হওয়ায় জলপথে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। সুয়েজ খালের মাধ্যমে লোহিত সাগর ও ভূমধ্যসাগর সংযুক্ত। এটি এশিয়া ও ইউরোপের মধ্যে সংক্ষিপ্ততম জলপথ। বৃহস্পতিবার প্রায় ১৫০ টি মালবাহী জাহাজকে মাঝ সমুদ্রে দাঁড়িয়ে পড়তে হয়েছে। এর ফলে ইউরোপ-এশিয়ায় পণ্য পরিবহণ ব্যবস্থায় বড়সড় ধাক্কার আশঙ্কা করেছেন কেউ কেউ। ছবি : টুইটার (Twitter)
4/5এদিকে ব্যস্ত খাল এভাবে অবরুদ্ধ হওয়ায় জলপথে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। সুয়েজ খালের মাধ্যমে লোহিত সাগর ও ভূমধ্যসাগর সংযুক্ত। এটি এশিয়া ও ইউরোপের মধ্যে সংক্ষিপ্ততম জলপথ। বৃহস্পতিবার প্রায় ১৫০ টি মালবাহী জাহাজকে মাঝ সমুদ্রে দাঁড়িয়ে পড়তে হয়েছে। এর ফলে ইউরোপ-এশিয়ায় পণ্য পরিবহণ ব্যবস্থায় বড়সড় ধাক্কার আশঙ্কা করেছেন কেউ কেউ। ছবি : টুইটার (Twitter)
জাহাজটিকে সরানোর চেষ্টায় নেমেছে মিশরের প্রশাসন। জাহাজ সরাতে বেশ কয়েকটি টাগ বোট নামানো হয়েছে। সঙ্গে খালের দুই তীরে এক্সাভেটর দিয়ে মাটি কাটার কাজ চলছে। জাহাজের মালিক শোয়েই কিষেণ কাইশা সকলের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন। ছবি : টুইটার (Twitter)
5/5জাহাজটিকে সরানোর চেষ্টায় নেমেছে মিশরের প্রশাসন। জাহাজ সরাতে বেশ কয়েকটি টাগ বোট নামানো হয়েছে। সঙ্গে খালের দুই তীরে এক্সাভেটর দিয়ে মাটি কাটার কাজ চলছে। জাহাজের মালিক শোয়েই কিষেণ কাইশা সকলের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন। ছবি : টুইটার (Twitter)
অন্য গ্যালারিগুলি