বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'দায়িত্বজ্ঞানহীনতা', রকেটের ধ্বংসাবশেষ ভেঙে পড়া নিয়ে চিনকে তোপ নাসার
 ফাইল ছবি : নাসা (NASA)
 ফাইল ছবি : নাসা (NASA)

'দায়িত্বজ্ঞানহীনতা', রকেটের ধ্বংসাবশেষ ভেঙে পড়া নিয়ে চিনকে তোপ নাসার

নাসার তরফে জানানো হয়েছে, ওই সব সরঞ্জাম কোথায় জমা হয়ে রয়েছে, তা নিয়ে স্পষ্টভাবে এখনই কিছু জানা যাচ্ছে না।

‌চিনের বিরুদ্ধে দায়িত্বজ্ঞানহীনতার অভিযোগ তুলে সরব হল নাসা। সম্প্রতি চিন স্বীকার করেছে, মহাকাশে অব্যবহৃত প্রযুক্তি সরঞ্জাম রকেটের মাধ্যমে মলদ্বীপের কাছে ভারত মহাসাগরে ভেঙে পড়েছে। চিনের এই ভূমিকা নিয়েই এবার প্রশ্ন তুলেছে নাসা। নাসার দাবি, চিন দায়িত্বজ্ঞানহীন কাজ করেছে।

নাসার প্রশাসক তথা প্রাক্তন সেনেটর বিল নেলসন বলেন, ‘‌এটা স্পষ্ট হয়ে গিয়েছেন, চিন মহাকাশের অব্যবহৃত প্রযুক্তি সরঞ্জাম নিয়ে দায়িত্বজ্ঞানহীনতার পরিচয় দিয়েছে।’‌ চিনা প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, মলদ্বীপের পশ্চিম দিকে মহাকাশের এই সব অব্যবহৃত সরঞ্জাম জমা হয়ে রয়েছে। কিন্তু নাসার তরফে জানানো হয়েছে, ওই সব সরঞ্জাম কোথায় জমা হয়ে রয়েছে, তা নিয়ে স্পষ্টভাবে এখনই কিছু জানা যাচ্ছে না। নাসার তরফে বিবৃতি জারি করে বলা হয়েছে, মহকাশ থেকে অব্যবহৃত সরঞ্জাম পৃথিবীতে ভেঙে পড়ার সময় যাতে কোনও ক্ষতি না হয়, সে বিষয়টির উপর নজর রাখা উচিত। চিনকে এই কাজ করার আগে আরও বেশি করে স্বচ্ছতা বজায় রাখার প্রয়োজন ছিল। বিশেষ করে যখন করোনা মহামারীর মতো পরিস্থিতি চলছে, সেকথা মাথায় রেখে আরও বেশি সতর্কতা অবলম্বন করা প্রয়োজন ছিল। যদিও চিনা সংবাদমাধ্যমের তরফে দাবি করা হয়েছে, এই বিষয়ে উদ্বেগের কোনও কারণ নেই।

উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে চিনের বৃহত্তম রকেটের ১১০ ফুট লম্বা লং মার্চ ৫বি ওয়াই ২ রকেট উৎক্ষেপণ করা হয়। রবিবার সকালে সেটির ধ্বংসাবশেষ পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে প্রবেশ করে ও ভারত মহাসাগরের উপর আছড়ে পড়ে। চিনা সংবাদমাধ্যম সূত্রে এই তথ্য মিলেছে। গত বছর মে মাসে এই রকমই একটি রকেট চিন উৎক্ষেপণ করেছিল। সেটি আইভরি কোস্টে বেশ কয়েকটি বাড়ির উপর আছড়ে পড়েছিল। তবে অবশ্য সেবার হতাহতের কোনও খবর ছিল না।

বন্ধ করুন