বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'সুসু-পটি গণতন্ত্রকে স্বাগত', টুইটার অফিসে পুলিশি অভিযান নিয়ে তোপ মহুয়ার
মহুয়া মৈত্র (PTI)
মহুয়া মৈত্র (PTI)

'সুসু-পটি গণতন্ত্রকে স্বাগত', টুইটার অফিসে পুলিশি অভিযান নিয়ে তোপ মহুয়ার

  • কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী এই একই বিষয়ে একটি টুইট করেন।টুইটে তিনি একটি বাক্যে লেখেন,‘‌সত্য কথনও ভয় পায় না।’‌

দিল্লি পুলিশের টুইটারের অফিসে হানা দেওয়া নিয়ে এবার উষ্মা প্রকাশ করলেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র। টুইটারে এই বিষয়ে আক্রমণ শানালেন কৃষ্ণনগরের সাংসদ। এর পাশাপাশি কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীও দিল্লি পুলিশের এই ভূমিকার কড়া সমালোচনা করে কেন্দ্রকে কাঠগড়ায় তোলেন।

সারা দেশে যখন করোনা পরিস্থিতি রীতিমতো উদ্বেগজনক, তখন করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় নাম না করেই কেন্দ্রের সমালোচনা করে কৃষ্ণনগরের সাংসদ জানান, ‘‌আমাদের সুসু-পটি গণতন্ত্রকে স্বাগত। গোমূত্র পান করুন। গোবর মাখুন। আর আইনের শাসন সব লাটে তুলে দিন।’‌ এদিনই কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী এই একই বিষয়ে একটি টুইট করেন।টুইটে তিনি একটি বাক্যে লেখেন,‘‌সত্য কথনও ভয় পায় না।’‌

উল্লেখ্য, বিজেপি নেতা সম্বিত পাত্রের অভিযোগের ভিত্তিতে সোমবার দিল্লি পুলিশের দল দক্ষিণ দিল্লি ও গুরগাঁওয়ের অফিসে হানা দেয়।গতকালই দিল্লি পুলিশের ওই হানার তীব্র নিন্দা করে কংগ্রেস।এই ঘটনার নিন্দা করে কংগ্রেস রিসার্চ ডিপার্টমেন্টের প্রধান রাজীব গৌড়া জানিয়েছিলেন, বিজেপি আসলে সবকিছু ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে।বিজেপি তথ্য জালিয়াতি করে ষড়যন্ত্র পাকানোর চেষ্টা করছিল।কিন্তু তাঁরা হাতে নাতে ধরা পড়ে গিয়েছে।এখন তাঁরা টুইটারকে ফাঁসানোর চেষ্টা করছে।তাঁদের আইনত এই সব করার অধিকার নেই।সম্প্রতি বিজেপি নেতা সম্বিত পাত্র কংগ্রেসের সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম টুলকিট তথ্য দিয়ে একটি টুইট যেখানে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীকে অপমান করার অভিযোগ উঠেছে ও করোনা মোকাবিলা ও কেন্দ্রের ভিসটা প্রকল্প নিয়ে পক্ষপাতীত্বমূলক বক্তব্য তুলে ধরা হয়েছে।তবে কংগ্রেসের অবশ্য যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

বন্ধ করুন