বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Tripura Bye Election: ফের রাজনৈতিক হিংসা ত্রিপুরায়, উপনির্বাচনের প্রার্থী তালিকা ঘোষণার পরই ‘হামলা’র শিকার সিপিএম বিধায়ক
ত্রিপুরার সিপিএম বিধায়ক রতন ভৌমিকের গাড়িতে দুষ্কৃতীদের হামলা

Tripura Bye Election: ফের রাজনৈতিক হিংসা ত্রিপুরায়, উপনির্বাচনের প্রার্থী তালিকা ঘোষণার পরই ‘হামলা’র শিকার সিপিএম বিধায়ক

  • Tripura Bye-Election: ত্রিপুরার গোমতি জেলায় কয়েকজন দুষ্কৃতী রতনবাবুর উপর হামলা চালায় বলে অভিযোগ উঠেছে। সিপিএম-এর তরফে জানানো হয়, রতন ভৌমিক গোমতি জেলার গঙ্গাচেরা থেকে উদয়পুরে যাচ্ছিলেন। সেই সময় বিজেপি সমর্থিত দুষ্কৃতীদের একটি দল তাঁর গাড়িতে পাথর ছোড়ে। এই ঘটনাতেই রতনবাবু জখম হয়েছিলেন।

ত্রিপুরা উপনির্বাচনের চার আসনের জন্য সোমবার প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করে সিপিএম। আর এর তিন ঘণ্টারর মধ্যেই সেরাজ্যে হামলার শিকার হলেন বাম বিধায়ক রতন ভৌমিক। ত্রিপুরার গোমতি জেলায় কয়েকজন দুষ্কৃতী রতনবাবুর উপর হামলা চালায় বলে অভিযোগ উঠেছে। সিপিএম-এর তরফে জানানো হয়, রতন ভৌমিক গোমতি জেলার গঙ্গাচেরা থেকে উদয়পুরে যাচ্ছিলেন। সেই সময় বিজেপি সমর্থিত দুষ্কৃতীদের একটি দল তাঁর গাড়িতে পাথর ছোড়ে। এই ঘটনাতেই রতনবাবু জখম হয়েছিলেন।

বিরোধীদলীয় নেতা তথা ত্রিপুরার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার এক প্রেস বিবৃতিতে এই ঘটনা প্রসঙ্গে বলেন, ‘রতন ভৌমিকের উপর এই হামলার কড়া ভাষায় নিন্দা জানাই আমরা। আমাদারে দাবি, পুলিশ যাতে এই ঘটনায় জড়িত দুর্বৃত্তদের দ্রুত গ্রেফতার করে এবং তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়।’ এদিকে ঘটনা প্রসঙ্গে পুলিশের সদপ দফতরের একজন কর্মকর্তা হিন্দুস্তান টাইমসকে বলেছেন, ‘কিছু দুষ্কৃকী রতন ভৌমিকের গাড়িতে পাথর ছুড়েছে তবে তিনি অক্ষত রয়েছেন।’

এদিকে আগামী ২৩ জুন ত্রিপুরার চার বিধানসভা উপনির্বাচনে ভোট অনুষ্ঠিত হবে। সেই উপনির্বাচনের জন্য সোমবারই প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করে সিপিএম। সিপিএম সূত্রে খবর, আগরতলা আসন থেকে এবার প্রার্থী হচ্ছেন কৃষ্ণ মজুমদার। টাউন বরদোয়ালি আসন থেকে এবার প্রার্থী হচ্ছেন রঘুনাথ সরকার। সুরমা আসনে লড়বেন অঞ্জন দাস। এই আসনটি তফসিলি জাতির জন্য সংরক্ষিত রয়েছে। যুবরাজনগর আসন থেকে সিপিএম প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন শৈলেন্দ্র চন্দ্র নাথ। উ্ল্লেখ্য, বিজেপি ছেড়ে সুদীপ রায় বর্মন ও আশিস কুমার সাহা কংগ্রেসে যোগ দিয়েছিলেন। সেই সময় তাঁরা তাঁদের বিধায়ক পদ ত্যাগ করেছিলেন। অপরদিকে আশিস দাস গত বছর তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন। তিনিও নিজের বিধায়ক পদ ত্যাগ করেন। তাছাড়া যুবরাজনগর আসনে সিপিএম বিধায়ক রমেন্দ্র চন্দ্র নাথের মৃত্যুর পরে ওই আসনটি ফাঁকা হয়ে গিয়েছিল। এই কারণেই এই চার আসনে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এবং আগামী বছরের নির্বাচনের আগের এই ‘সেমিফাইনাল’ ঘিরে ক্রমেই রাজ্যের রাজনৈতির পারদ চড়ছে।

বন্ধ করুন