বরিস জনসন (London)
বরিস জনসন (London)

হাসপাতালে ভর্তি করোনাভাইরাস আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন

সতর্কতার খাতিরে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এখনও সুস্থ না হওয়ায় হাসপাতালে ভর্তি হতে হল ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে। এদিনই করোনার পরিপ্রক্ষিতে বিশেষ বক্তব্য পেশ করেন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ। তার ঠিক পরেই, জনসন হাসপাতালে, সেটি সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়।

কয়েকদিন আগেই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন বরিস জনসন। বাড়ি থেকেই কাজ করছিলেন তিনি। কিন্তু এখনও করোনার চিহ্ন থাকায় চিকিত্সকদের পরামর্শে হাসপাতালে ভর্তি করা হল বরিস জনসনকে। তবে এটি নিছকই সতর্কতামূলক ব্যবস্থা, ভয়ের কোনও কারণ নেই বলেই সূত্রের খবর।

বরিস জনসন নিজের দায়িত্ব পালন করতে না পারলে বিদেশ সচিব ডমিনিক রাব দায়িত্ব পালন করবে বলে জানা গিয়েছে। তবে আপাতত বরিসই কাজ চালাচ্ছেন হাসপাতাল থেকে।

ব্রিটেনে করোনায় আক্রান্ত ৫০ হাজার ছুঁইছুঁই, মারা গিয়েছেন ৫ হাজার। দেশের প্রতি বার্তায় রানি এলিজাবেথ বলেন ঐক্যবদ্ধ হয়ে সবাইকে লড়তে হবে। করোনার বিরুদ্ধে এই লড়াইয়ে ব্রিটেশ জয়ী হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। প্রসঙ্গত, করোনার জেরে সতর্কতা নিতে বাকিংহ্যাম প্যালেসের জায়গায় উইন্ডসোর প্রাসাদে থাকছেন রানি। তাঁর ছেলে যুবরাজ চার্লস করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন, যদিও তিনি এখন সুস্থ।

এদিন স্বাস্থ্যকর্মী ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পরিষেবার সঙ্গে যুক্তদের প্রশংসা করেন তিনি। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের কথা এদিন বলেন রানি যখন তিনি উইন্ডসোর প্রাসাদে ছিলেন লন্ডনে বোমা পড়ার জেরে।



বন্ধ করুন