বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'সমীর ওয়াংখেড়ের শ্যালিকা মাদক ব্যবসায় যুক্ত',১৩ বছর আগের মামলা খুঁজে পেলেন নবাব

'সমীর ওয়াংখেড়ের শ্যালিকা মাদক ব্যবসায় যুক্ত',১৩ বছর আগের মামলা খুঁজে পেলেন নবাব

এনসিবি কর্তা সমীর ওয়াংখেড়ে (ফাইল ছবি : এএনআই) (Rahul Singh)

ওয়াংখেড়ে জোর দিয়ে জানান যে, মালিকের উদ্ধৃত মামলার সাথে তাঁর কোনও সম্পর্ক নেই।

সোমবার মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী নবাব মালিক এবং নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি) অফিসার সমীর ওয়াংখেড়ের মধ্যে বাকযুদ্ধ জারি থাকল। এদিন নবাব মালিক অভিযোগ করেন যে সমীর ওয়াংখেড়ের শ্যালিকা মাদক পাচারের সঙ্গে যুক্ত। অভিযোগের জবাবে, ওয়াংখেড়ে জোর দিয়ে জানান যে, মালিকের উদ্ধৃত মামলার সাথে তাঁর কোনও সম্পর্ক নেই।

আরিয়ান খান মাদক মামলার প্রথম থেকেই ওয়াংখেড়েকে নিশানা করে একের পর এক আক্রমণ শানিয়েছেন এনসিপি নেতা। এর প্রেক্ষিতে এদিন এক টুইট করে নবাব মালিক লেখেন, 'সমীর দাউদ ওয়াংখেড়ে, আপনার শ্যালিকা হর্ষদা দীনানাথ রেডকর কি মাদক ব্যবসাযর সাথে জড়িত? আপনাকে অবশ্যই এর উত্তর দিতে হবে কারণ তাঁর মামলাটি পুনে আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।' মন্ত্রী টুইট করে একটি নথির স্ক্রিনশটও পোস্ট করেন। তাতে হর্ষদা দীনানাথ রেডকারকে 'প্রতিবাদী এবং আইনজীবী'-এর অধীনে তালিকাভুক্ত দেখায়।

স্ক্রিনশটটিতে আরও দেখা যায় যে ২০০৮ সালের ১৪ জানুয়ারী মাদকদ্রব্য ও সাইকোট্রপিক সাবস্টেন্সেস (এনডিপিএস) আইনে অবৈধ পাচার প্রতিরোধের ৩৪৫৮ ধারার অধীনে মামলাটি নথিভুক্ত করা হয়েছিল। মামলার প্রথম শুনানি ২০০৮ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি হয়েছিল, পরবর্তী শুনানি ২০২২ সালের ১৮ মার্চ নির্ধারিত ছিল।

এর জবাবে সমীর অবশ্য বলেন, '২০০৮ সালের জানুয়ারিতে যখন মামলাটি আদালতে ওঠে তখন আমি চাকরিতেও ছিলাম না। আমি ২০১৭ সালে ক্রান্তি রেডকারকে বিয়ে করেছি। তাহলে আমি কীভাবে এর সাথে যুক্ত হব?'

বন্ধ করুন