বাংলা নিউজ > ময়দান > দেবজিতের আত্মঘাতী গোল, আইএসএল জয়ের আশা শেষ ফাওলারের ছেলেদের

∆ বেঙ্গালুরু এফসি- ২

(ক্লেটন সিলভা ১২’,

দেবজিত আত্মঘাতী ৪৫’)

∆ এসসি ইস্টবেঙ্গল-০

আইএসএলের অভিষেক মরসুমেই কার্যত ট্রফি জয়ের স্বপ্ন ভেঙ্গে চুরমার হয়ে গেল লাল হলুদ বাহিনীর। গোয়াতে মঙ্গলবার রাতের ম্যাচে কার্যত একটা 'কালো' দিনের সাক্ষী থাকল কলকাতার অন্যতম প্রধান ইস্টবেঙ্গলের সমর্থকরা।এই মরসুম শুরুর আগে যেভাবে একেবারে শেষ মূহুর্তে এসে আইএসএলে ইস্টবেঙ্গল ক্লাব প্রবেশ করে এবং যুদ্ধকালীন তৎপরতায় নিজেদের দল গঠন করে তাতে খুব একটা ভাল ফল যে তারা করবে না তা আগেই পূর্বাভাস দিয়েছিলেন বিশেষজ্ঞরা। আর বাস্তবে হল ও তাই। ব্রিটিশ কিংবদন্তী কোচ রবি ফাওলারের হাত ধরেও চিত্রটা বদলালো না লাল হলুদ শিবিরে।

চলতি মরসুমের আইএসএল শেষ হতে বসলেও ব্যর্থতা লাল হলুদের নিত্যসঙ্গী। ফলস্বরূপ বেঙ্গালুরু এফসির কাছে ০-২ গোলে হারল এসসি ইস্টবেঙ্গল। টানা ৮ ম্যাচে জয়ের মুখ দেখতে না পাওয়া সুনীলরা অবশেষে ফিরলেন জয়ের পথে । কার্ড সমস্যায় দলে ছিলেন না এরিক পাত্তালু। চোটের জন্য ছিলেন না হুয়ানানও। ব্যর্থতার কারণে চলতি আইএসএলের মাঝপথেই চাকরি গেছিল সুনীলদের কোচের। সেই বেঙ্গালুরু এফসিই কার্যত দুরমুশ করল এসসি ইস্টবেঙ্গলকে। প্রথম পর্বে বেঙ্গালুরুকে ১-০ গোলে হারিয়েছিল লাল হলুদ। যার মধুর প্রতিশোধ নিল আজকে নিল সুনীলরা।

এদিন মাঘোমা এবং পিলকিংটনকে প্রথম একাদশের বাইরে রেগেছিলেন রবি ফাওলার। খেলার ১১ মিনিটেই রক্ষণের ভুলে গোল হজম করে পিছিয়ে যায় ইস্টবেঙ্গল। গুরপ্রীতের লং শট হেডে ক্লেটন সিলভাকে নামিয়ে দেন সুনীল ছেত্রী।বল পেয়েই দুরন্ত হাফ ভলিতে দেবজিতকে পরাস্ত করেন ক্লেটন সিলভা। প্রথমার্ধের শেষ লগ্নে দ্বিতীয় গোলটি পায় বেঙ্গালুরু এফসি। ডান প্রান্ত দিয়ে পরাগ শ্রীবাসকে বল বাড়ান রাহুল ভেকে। পরাগের শট পোস্টে লেগে প্রতিহত হয়ে আসার সময় দেবজিত মজুমদারের পায়ে লেগে গোলে ঢুকে যায়।

দ্বিতীয়ার্ধে ফাওলার নিজের ভুল শুধরে পিলকিংটন, মাঘোমাকে নামালেও লাভ হয়নি তেমন কিছু। বেঙ্গালুরুর দুর্ভেদ্য ডিফেন্স ভাঙতে ব্যর্থ হয় তারা। ম্যাচের ইনজুরি টাইমে মাথা গরম করে হলুদ কার্ড দেখেন পিলকিংটন। এই হারের ফলে ১৫ ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের ১০ নম্বরে থাকল লাল-হলুদ।কার্যত শেষ হয়ে গেল ট্রফি জয়ের সম্ভাবনা। এর কারণ হল অঙ্কের বিচারে প্রথম চারে যাওয়া খুব শক্ত লাল হলুদের। 

বন্ধ করুন