বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > Euro 2020: উয়েফার সঙ্গে মত বিরোধ, ওয়েম্বলি থেকে সরতে পারে সেমিফাইনাল, ফাইনাল
উয়েফা ইউরো কাপ।

Euro 2020: উয়েফার সঙ্গে মত বিরোধ, ওয়েম্বলি থেকে সরতে পারে সেমিফাইনাল, ফাইনাল

  • উয়েফার বিরক্তির প্রধান কারণ, ব্রিটিশ সরকারের জারি করা কোয়ারেন্টাইন সংক্রান্ত কঠোর বিধিনিষেধ।

ব্রিটিশ সরকারের কোয়ারেন্টাইন সংক্রান্ত বিধিনিষেধের জেরে ইউরো কাপের সেমিফাইনাল ও ফাইনালের ম্যাচ সরতে পারে ওয়েম্বলি থেকে। ব্রিটিশ সরকার ও উয়েফার কর্তাদের লড়াই এখন তুঙ্গে। জল যে দিকে গড়াচ্ছে, তাতে উয়েফার সেমিফাইনাল ও ফাইনাল হতে পারে অন্যত্র।

ইংল্যান্ডে করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে। স্টেডিয়ামে দর্শক প্রবেশের অনুমতিও দেওয়া হচ্ছে। তবে সাবধানতার কারণে বেশ কিছু বিধিনিষেধ রাখা হয়েছে ব্রিটিশ সরকারের তরফে। ব্রিটিশ সরকারের কঠোর কোয়ারেন্টাইন সংক্রান্ত বিধিনিষেধের জন্য আটকে রয়েছে ইউরোর সেমিফাইনাল এবং ফাইনালের ভাগ্য।

উয়েফার বিরক্তির প্রধান কারণই ব্রিটিশ সরকারের জারি করা কোয়ারেন্টাইন সংক্রান্ত কঠোর বিধিনিষেধ। ইউরোর সেমিফাইনাল ও ফাইনাল লন্ডনের ওয়েম্বলিতে হলে, ওই সব দেশের সমর্থকেরাও লন্ডনে যাবেন। কিন্তু এখন যা নিয়ম রয়েছে তাতে, ব্রিটিশ সরকারের লাল ও হলুদ তালিকায় থাকা কোনও দেশ থেকে কেউ গেলে তাঁকে প্রথমেই ১০ দিন কঠোর কোয়ারেন্টাইন কাটাতে হবে। শুধু যে ১০টি দেশ সবুজ তালিকায় রয়েছে তাদের আর নিভৃতবাসে কাটাতে হবে না।

ব্রিটিশ সরকারকে এই নিভৃতবাস সংক্রান্ত বিধিনিষেধ শিথিলের অনুরোধ জানিয়ে কথাবার্তা চালাচ্ছে উয়েফা। তবে উয়েফার তরফ থেকে বলা হয়েছে, ‘আমাদের কাছে সব সময়েই বিকল্প পরিকল্পনা থাকে। তবে আমাদের বিশ্বাস, লন্ডনেই ফাইনাল আয়োজন করতে পারব।’

অন্যদিকে ব্রিটিশ সরকারের তরফ থেকে জানান হয়েছে, ‘কোভিড থেকে দেশকে রক্ষা করার জন্য যা করা প্রয়োজন, আমরা সেটাই করব। অবশ্যই এটা আমাদের প্রথম লক্ষ্য। আমরা উয়েফার সঙ্গে কথা বলব, তারা কী চায় এবং তারা কী ভাবে দায়িত্বের সঙ্গে এটা আয়োজন করতে পারবে, এই নিয়ে। কিন্তু আমাদের প্রাথমিক লক্ষ্য দেশের মানুষের স্বাস্থ্য।’

সূত্রের খবর অনুযায়ী সমস্যার সমাধান না হলে ইউরো সেমিফাইনাল ও ফাইনাল সরতে পারে অন্যত্র। সেক্ষেত্রে অনেকগুলো দেশ এই ম্যাচ গুলো আয়োজন করতে চাইবে। এই তালিকায় এগিয়ে রয়েছে বুদাপেস্ট। হাঙ্গেরিও এগিয়ে রয়েছে এই তালিকায়। কারণ তাঁদের দেশের নিভৃতবাস ছাড়াই থাকা যেতে পারে। শুধু হাঙ্গেরিয়ান ইমিউনিটি কার্ড থাকলেই হবে।

বন্ধ করুন