বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > ম্যানেজার ক্লপের ১০০০তম ম্যাচে অ্যানফিল্ডে চেলসির সঙ্গে ড্র লিভারপুলের

ম্যানেজার ক্লপের ১০০০তম ম্যাচে অ্যানফিল্ডে চেলসির সঙ্গে ড্র লিভারপুলের

লিভারপুল বনাম চেলসির ম্যাচের মুহূর্ত (ছবি-এএফপি)

প্রিমিয়র লিগের লড়াইতে অ্যানফিল্ডে মুখোমুখি হয়েছিল লিভারপুল এবং চেলসি। হাই ভোল্টেজ এই ম্যাচ লিভারপুলের জন্য অনেক দিক থেকেই ছিল গুরুত্বপূর্ণ। লিভারপুলের ম্যানেজমেন্টে এটি ছিল জুর্গেন ক্লপের ১০০০তম ম্যাচ। তাঁদের কাছে সব থেকে বড় চ্যালেঞ্জ ছিল লিগে পরপর তিন ম্যাচে হার বাঁচানো।

শুভব্রত মুখার্জি: শনিবাসরীয় প্রিমিয়র লিগের লড়াইতে অ্যানফিল্ডে মুখোমুখি হয়েছিল লিভারপুল এবং চেলসি। হাই ভোল্টেজ এই ম্যাচ লিভারপুলের জন্য অনেক দিক থেকেই ছিল গুরুত্বপূর্ণ। লিভারপুলের ম্যানেজমেন্টে এটি ছিল জুর্গেন ক্লপের ১০০০তম ম্যাচ। তাঁদের কাছে সব থেকে বড় চ্যালেঞ্জ ছিল লিগে পরপর তিন ম্যাচে হার বাঁচানো। পাশাপাশি ক্লপের কেরিয়ারের ঐতিহাসিক ম্যাচ জিতে স্মরণীয় করে রাখাটাও ছিল গুরুত্বপূর্ণ। তবে দিনের শেষে অ্যানফিল্ডে চেলসির বিরুদ্ধে ম্যাচ ড্র করেই ফিরতে হল লিভারপুলকে। জয়ের দেখা পেল না মহম্মদ সালাহরা।

আরও পড়ুন… গিলকে তোল্লাই দিয়ে নতুন ডাকনাম দিলেন গাভাসকর, খুশি প্রাক্তন নাইট

চলতি মরশুমে প্রিমিয়র লিগে বেশ খারাপ সময় চলছে লিভারপুল ও চেলসির। মুখোমুখি লড়াইতেও যেন সেটাই তাড়া করল দুই দলকে। ম্যাচে সুযোগ তৈরি হল কম। যেটুকু হল সেইটুকুও কাজে লাগাতে পারল না কোন দল। অ্যানফিল্ডে শনিবার প্রিমিয়র লিগের ম্যাচটি গোলশূন্য ভাবে শেষ হল। চলতি মরশুমে এই দুই দল একের পর এক ম্যাচে পয়েন্ট নষ্ট করে লিগ টেবিলে ক্রমেই নীচের দিকে নেমে গিয়েছে। লিগে এ নিয়ে টানা তিন ম্যাচে জয় পেল না লিভারপুল। প্রথম দুটি ম্যাচে হারের সম্মুখীন হতে হয়েছিল তাদের। আর চেলসি ম্যাচ ড্র করল তারা। উল্লেখ্য প্রিমিয়র লিগে আগের দুই রাউন্ডে ব্রেন্টফোর্ড ও ব্রাইটনের মাঠে হেরেছিল লিভারপুল। এদিন শুরুতেই গোল খেতে পারত তারা। তৃতীয় মিনিটে কর্নার থেকে গোল করেন কাই হাভার্টজ। তবে ভিএআরের সাহায্যে অফসাইডের সিদ্ধান্ত দেন রেফারি।

আরও পড়ুন… তেমন কিছু বল মুভ করছিল না, পিচে জুজু ছিল না কার্যত বলে দিলেন শুভমন গিল

৩২তম মিনিটে চেলসি ডান দিক থেকে আক্রমণ তোলে। হাকিম জিয়াশের ফ্রি কিক থেকে বল চলে আসে ছয় গজ বক্সের মুখে। ফরাসি ডিফেন্ডার বেনোয়া বাদিয়াশিলের হেড অসাধারণ দক্ষতায় বাঁচিয়ে দেন লিভারপুল গোলরক্ষক আলিসন। লিভারপুল ৩৭তম মিনিটে প্রথম কর্নার পায়। তবে গোল মুখে আক্রমণ তুলে আনতে পারেনি তারা। শাখতার দোনেৎস্ক থেকে সদ্য চেলসিতে আসা মিখাইলো মুদ্রিককে ৫৫তম মিনিটে নামান কোচ। মাঠে নামার আট মিনিটের মধ্যে তিনি সুযোগ পান গোল করার। তবে শট গোলে রাখতে পারেননি তিনি। এই ম্যাচ ড্রয়ের ফলে ১৯ ম্যাচে আপাতত দুই দলের পয়েন্ট ২৯। গোল ব্যবধানে এগিয়ে আট নম্বরে রয়েছে লিভারপুল এবং দশ নম্বরে রয়েছে চেলসি। ৯ নম্বরে রয়েছে ব্রেন্টফোর্ড।

 

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বন্ধ করুন