বাংলা নিউজ > ময়দান > Jemimah on India's future: ভারতের সময় এলে কেউ রুখতে পারবে না, বছরের পর বছর শাসন করব, সেমির পর বললেন জেমিমা

Jemimah on India's future: ভারতের সময় এলে কেউ রুখতে পারবে না, বছরের পর বছর শাসন করব, সেমির পর বললেন জেমিমা

জেমিমা রদ্রিগেজ। (ছবি সৌজন্যে আইসিসি)

Jemimah on India's future: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে আটকে যেতে হয়েছে ভারতকে। তবে জেমিমা রদ্রিগেজের মতে, ভারতের সময় আসবে। সেইসময় কেউ ভারতকে রুখতে পারবে না। বছরের পর বছর বিশ্ব ক্রিকেটকে শাসন করবে ভারত।

ছয় বছর আগে ৫০ ওভারের বিশ্বকাপ ফাইনালের হার্ডল পার হয়নি। তিন বছর আগে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে ফিনিশিং লাইনের আগেই থেমে যেতে হয়েছিল। এবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে আটকে যেতে হয়েছে। তবে সেই দিনটা দূরে নেই, যখন ভারতের সময় আসবে। তখন কেউ ভারতকে আটকাতে পারবে না। এমনই মনে করছেন ভারতের তারকা ক্রিকেটার জেমিমা রদ্রিগেজ।

বৃহস্পতিবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ব্যাটিং করতে নেমে ১৪.৩ ওভার পর্যন্ত নিজের হাতেই ম্যাচ রেখেছিল ভারত। কিন্তু হরমনপ্রীত কৌর রান-আউট হওয়ার পরই ধাক্কা খায় টিম ইন্ডিয়া। সেই পরিস্থিতি থেকে রিচা ঘোষদের ম্যাচ জিতিয়ে আসা উচিত থাকলেও সেটা হয়নি। পাঁচ রানে হেরে যায় ভারত। সেই বেদনাদায়ক হারের পর আইসিসিতে জেমিমা বলেন, ‘সত্যি কথা বল়তে কী বলব, আমি জানি না (হতাশার হাসি)। এখনও বিষয়টি ঠিক হজম হয়নি। ড্রেসিংরুমেও কেউ বলেনি। প্রত্যেকে চুপ করে গিয়েছে।’

ভারতের সময় আসছে…………..

‘অনেক প্রতিভার ঝলক দেখা যাচ্ছে এই দলে। গত কয়েক বছর ধরে আমরা নিজেদের আরও এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। আমরা জানি যে বড় কিছু আসছে। কখনও কখনও আমার ঈশ্বরের পরিকল্পনা বুঝতে পারি না। হয়ত আরও ভালো কিছুর জন্য আমাদের অপেক্ষা করিয়ে রাখছেন। আমি জানি যে এখন হয়ত এটা বোকা-বোকা শোনাচ্ছে। খুব কষ্ট হচ্ছে। কিন্তু আমাদের হাতে যেটা আছে, সেটা করতে হবে - কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। কারণ আমাদের যখন সময় আসবে, কেউ আমাদের আটকাতে পারবে না। এই দলটা বছরের পর বছর ধরে (বিশ্ব ক্রিকেটকে) শাসন করবে।’

আরও পড়ুন: Harmanpreet consoled by Anjum T20 WC: 'কষ্ট লাঘবের চেষ্টা…', কাঁদতে থাকা হরমনকে জড়িয়ে সান্ত্বনা প্রাক্তন অধিনায়কের

নিজের ব্যাটিং নিয়ে জেমিমা

'আমি জানতাম যে আমায় মানসিকতা চাঙ্গা রেখে ব্যাটিং করতে হবে এবং এগিয়ে যেতে হবে। জুটি গড়ে তুলতে হবে। আমি খুব ভালোভাবেই জানতাম যে একটি উপায়েই অস্ট্রেলিয়ার লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করা যাবে - সেটা হচ্ছে দৃঢ় মানসিকতার সঙ্গে ব্যাট করা। আমি এবং হ্যারি দি (হরমনপ্রীত) সেটাই আলোচনা করছিলাম। আমাদের রিকোয়ার্ড রানরেট নয় ছিল। আমরা সহজেই সেই রানরেট অনুযায়ী রান তুলতে পারছিলাম। শুধুমাত্র শেষ পর্যায় ছাড়া (রান তাড়া করার সময়) বাকি সব পর্যায়েই আমরা ওদের থেকে এগিয়েছিলাম। আমার মতে, দৃঢ় মানসিকতা সবকিছু পালটে দেয়। আমরা দু'জন যদি শেষপর্যন্ত ব্যাট করতে পারতাম, তাহলে আজ (বৃহস্পতিবার) জিততে পারতাম।'

(এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup)

রোহিতদের প্রস্তুতির রোজনামচা, পাল্লা ভারি কোন দলের, ক্রিকেট বিশ্বকাপের বিস্তারিত কভারেজ, সঙ্গে প্রতিটি ম্যাচের লাইভ স্কোরকার্ড । দুই প্রধানের টাটকা খবর, ছেত্রীরা কী করল, মেসি থেকে মোরিনহো, ফুটবলের সব আপডেট পড়ুন এখানে।

বন্ধ করুন