বাংলা নিউজ > ময়দান > ম্যাচ জিতেও হতাশ রাহুল! ২০২২ এশিয়া কাপের ব্যর্থতা থেকে শিখতে চান রোহিতের ডেপুটি
আউট হওয়ার পরে কেএল রাহুল (ছবি-রয়টার্স)

ম্যাচ জিতেও হতাশ রাহুল! ২০২২ এশিয়া কাপের ব্যর্থতা থেকে শিখতে চান রোহিতের ডেপুটি

  • ম্যাচের পরে কেএল রাহুল বলেন, ‘এই ফলাফলে অবশ্যই হতাশ হয়েছি। আদর্শভাবে আমদের ফাইনাল খেলা উচিৎ ছিল এবং সেখানে নিজেদের চ্যালেঞ্জ করতে চেয়েছিলাম। আমরা এই টুর্নামেন্টে ফাইনাল খেলতে চেয়েছিলাম এবং বড় টুর্নামেন্ট জিততে চেয়েছিলাম। কিন্তু সেটা আমারা করতে পারিনি।’

২০২২ সালের এশিয়া কাপের যাত্রা জয় দিয়ে শেষ করেছে টিম ইন্ডিয়া। চলতি এশিয়া কাপের সুপার ফোর পর্ব থেকে ছিটকে গিয়েছে ভারতীয় দল। তবে টিম ইন্ডিয়ার জন্য আগামী মাসে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে এই জয় খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। টিম ইন্ডিয়া ২০২২ এশিয়া কাপ-এর শিরোপা জয়ের একটি বড় প্রতিযোগী ছিল। কিন্তু ফাইনালের আগেই তারা ছিটকে যায়। শেষ ম্যাচে আফগানিস্তানকে হারানোর পর, কেএল রাহুল একটি বড় বক্তব্য দিয়েছেন এবং এই টুর্নামেন্ট থেকে শেখার কথা বলেছেন।

আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে রোহিত শর্মার বদলে কেএল রাহুল টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়কত্ব সামলান। কেএল রাহুলের নেতৃত্বে এ দিন দল বড় জয় পেল। ম্যাচের পরে কেএল রাহুল বলেন,‘এই ফলাফলে অবশ্যই হতাশ হয়েছি। আদর্শভাবে আমদের ফাইনাল খেলা উচিৎ ছিল এবং সেখানে নিজেদের চ্যালেঞ্জ করতে চেয়েছিলাম। আমরা এই টুর্নামেন্টে ফাইনাল খেলতে চেয়েছিলাম এবং বড় টুর্নামেন্ট জিততে চেয়েছিলাম। কিন্তু সেটা আমারা করতে পারিনি।’

আরও পড়ুন… ইতিহাস গড়লেন নীরজ চোপড়া, ভারতের সোনার ছেলের হাতে উঠল ডায়মন্ড লিগ

কেএল রাহুল আরও বলেছেন,‘আমাদের এটাকে ইতিবাচক ভাবে নিতে হবে। আমাদের চ্যালেঞ্জ করা হয়েছিল এবং এটিকে ফিরে দেখার সময় এসেছে এবং সঠিক ভাবে প্রতিফলিত করার সময় এসেছে। অবশ্যই কেউ হারতে চায় না, তবে মাঝে মাঝে আপনাকে এই যাত্রায় অংশ নিতে হবে। এই পরাজয় সঠিক সময়ে হয়েছে কারণ এই হার আমাদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আগে সাহায্য করবে। কারণ আশা করি এখান থেকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য আমরা অনেক কিছু শিখতে পারব।’

আরও পড়ুন… 'আমি ৬০ রান করলেও ব্যর্থ হয়েছি বলে ধরে নেওয়া হতো', সেঞ্চুরির খরা কাটিয়েও আক্ষেপ শোনা গেল কোহলির মুখে

এই ম্যাচে টস জিতে প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল আফগানিস্তান। নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে দলটি ২ উইকেট হারিয়ে ২১২ রান তোলে। এই ম্যাচে জয়ের জন্য আফগানিস্তানের প্রয়োজন ২১৩ রান। কিন্তু আফগানিস্তানের দল ৮ উইকেট হারিয়ে মাত্র ১১১ রান তুলতে পারে। এই ম্যাচে টিম ইন্ডিয়ার জয়ের নায়ক ছিলেন বিরাট কোহলি। এই ম্যাচে ৬১ বলে ১২২ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। এই ইনিংসে তিনি মারেন ১২টি চার ও ৬টি ছক্কা। অন্যদিকে সবচেয়ে সফল বোলার ছিলেন ভুবনেশ্বর কুমার। ৪ ওভারে ৪ রান খরচ করে নিয়েছেন ৫ উইকেট।

বন্ধ করুন