বাড়ি > ময়দান > ধোনিকে ক্যাপ্টেন করার জন্য BCCI-কে রাজি করিয়েছিলেন সচিন
সচিন তেন্ডুলকর ও মহেন্দ্র সিং ধোনি। ছবি- গেটি ইমেজেস।
সচিন তেন্ডুলকর ও মহেন্দ্র সিং ধোনি। ছবি- গেটি ইমেজেস।

ধোনিকে ক্যাপ্টেন করার জন্য BCCI-কে রাজি করিয়েছিলেন সচিন

  • তেন্ডুলকরের পরামর্শেই টি-২০ বিশ্বকাপের নেতৃত্ব পেয়েছিলেন মাহি।

একজন ব্যাটসম্যান ও উইকেটকিপার হিসেবে মহেন্দ্র সিং ধোনি যতটা সফল, তার থেকেও বেশি সফল একজন ক্যাপ্টেন হিসেবে। ধোনির নেতৃত্ব আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের লোকগাথায় জায়গা করে নিয়েছে। তবে অনেকেরই হয়ত জানা নেই যে, ধোনির ক্যাপ্টেন হওয়ার পিছনে সচিন তেন্ডুলকরের বড় হাত ছিল। সচিনের পরামর্শেই বিসিসিআই ধোনির হাতে নেতৃত্বের ব্যাটন তুলে দিয়েছিল।

২০০৭ টি-২০ বিশ্বকাপের আগে সংক্ষিপ্ত ফর্ম্যাটের দল থেকে সরে দাঁড়ান তিন সিনিয়র সচিন তেন্ডুলকর, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও রাহুল দ্রাবিড়। ধোনির হাতে একটা অনভিজ্ঞ দল তুলে দিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকায় পাঠানো হয় বিশ্বকাপ খেলতে। সেই দল নিয়েই ধোনি ইতিহাস গড়েন বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়ে।

সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে সচিন জানান, তিনি ধোনির মধ্যে ম্যাচ রিডিংয়ের অদ্ভূত ক্ষমতা লক্ষ্য করেছিলেন। ধোনির ধারালো ক্রিকেট মস্কিষ্কের হদিশ পেয়েই তাঁকে ভবিষ্যতের নেতা হিসেবে চিহ্নিত করেছিলেন মাস্টার ব্লাস্টার।

সচিন বলেন, ‘গোটা বিষয়টা কীভাবে সম্পন্ন হয়েছিল, সেই গভীরতায় যাচ্ছি না। তবে হ্যাঁ, আমাকে জিজ্ঞাসা করা হতে আমি নিজের উপলব্ধির কথা জানিয়েছিলাম।’

তেন্ডুলকর আরও বলেন, ‘আমি দক্ষিণ আফ্রিকায় যাব না বলে জানিয়ে দিয়েছিলাম। আমার কয়েকটা চোট ছিল। তবে সেই সময় আমি সচরাচর স্লিপে ফিল্ডিং করতাম। ধোনির সঙ্গে আলোচনায় বুঝেছিলাম, ওর ম্যাচ রিডিংয়ের ক্ষমতা রয়েছে। ওর ভাবনা-চিন্তার কথা বুঝতে পারতাম। সেকারণেই আমি বোর্ডকে পরামর্শ দিয়েছিলাম, ধোনির হাতে দায়িত্ব তুলে দেওয়া যেতে পারে।’

বন্ধ করুন