বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > গরুপাচারকে ঘিরে উত্তপ্ত কোচবিহারে, পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটবৃষ্টি, আহত ১৭ আধিকারিক
গরুপাচারে বাধা, পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটবৃষ্টি কোচবিহারে, আহত ১৭ পুলিশ কর্মী
গরুপাচারে বাধা, পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটবৃষ্টি কোচবিহারে, আহত ১৭ পুলিশ কর্মী

গরুপাচারকে ঘিরে উত্তপ্ত কোচবিহারে, পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটবৃষ্টি, আহত ১৭ আধিকারিক

  • অনেকের অনেকের আঘাত গুরুতর। মেখলিগঞ্জ মহাকুমা হাসপাতালে আহত পুলিশকর্মীদের চিকিৎসা চলছে।

গরুপাচারকে কেন্দ্র করে কার্যত রণক্ষেত্রে পরিণত হল কোচবিহারের মেখলিগঞ্জের উছলপুকুরিয়া বামুনিয়াপাড়া। পাচার আটকাতে গিয়ে গ্রামবাসীদের রোষের পড়ল পুলিশ। এলাকাবাসীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি ইট পাটকেল ছোড়ে। ঘটনায় ১৭ জন পুলিশ কর্মী আহত হয়েছেন। অনেকের আঘাত গুরুতর। মেখলিগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালে আহত পুলিশকর্মীদের চিকিৎসা চলছে।

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে শনিবার রাতে মেখলিগঞ্জের উছলপুকুরিয়া বামুনিয়াপাড়া এলাকায় হানা দেয় পুলিশের একটি দল। পুলিশের দাবি, এলাকার ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে নিয়ে গিয়ে গরু পাচারের উদ্দেশ্যে ছিল পাচারকারীদের। খবর পাওয়া মাত্রই এলাকায় ঢুকতে গিয়ে গ্রামবাসীদের বাধার সম্মুখীন হতে হয় পুলিশকে। তাঁরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট পাথর ছুড়তে শুরু করে। তারপরেও অবশ্য পাচারকারীরা গরু পাচারে সফল হয়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে ৩৪ টি গরু উদ্ধার হয়েছে। এছাড়া ছয়জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদের মধ্যে চারজন মহিলা। ধৃতদের এদিন স্থানীয় আদালতে তোলা হয়।

তবে পুলিশ কর্মীদের উপর হামলার ঘটনা ওই এলাকায় এই প্রথম নয়, এর আগেও গরু পাচার রুখতে সেখানে বহুবার বিএসএফের সঙ্গে যৌথভাবে অভিযান চালিয়েছিল পুলিশ। সেক্ষেত্রেও তাদের বাধার সম্মুখীন হতে হয়েছিল। পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে, গ্রামবাসীদের হামলায় এদিন বেশ কয়েকজন পুলিশের মাথা ফেটে গিয়েছে। এছাড়া হাতে ,পায়ে , মুখে, অনেকে আবার পিঠে চোট পেয়েছেন। ঘটনায় আরও অনেকেই জড়িত আছে বলে মনে করছে পুলিশ। ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে স্থানীয় থানার পুলিশ তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে।

বন্ধ করুন