বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > তিন বিধানসভা আসনে বামফ্রন্টকে সমর্থন, শান্তিপুরে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে কংগ্রেস
অধীররঞ্জন চৌধুরী। ফাইল ছবি (PTI)
অধীররঞ্জন চৌধুরী। ফাইল ছবি (PTI)

তিন বিধানসভা আসনে বামফ্রন্টকে সমর্থন, শান্তিপুরে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে কংগ্রেস

  • শান্তিপুর বিধানসভা কেন্দ্রে কাকে কংগ্রেস প্রার্থী করবে তা অবশ্য এখনও জানা যায়নি।

ভোট শেষ জোট শেষ নীতি নিয়ে প্রার্থী ঘোষণা করে দিয়েছিল বামফ্রন্ট। সেখানে দেখার বিষয় ছিল কংগ্রেস কী করে?‌ আগামী ৩০ অক্টোবর চার বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচন। সেখানে বামফ্রন্ট–কংগ্রেস জোট হয়নি। তারপরও তিন আসনে বামেদের সমর্থন করবে কংগ্রেস বলে জানিয়েছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীররঞ্জন চৌধুরী। শুধু শান্তিপুরে প্রার্থী দেবে কংগ্রেস।

শান্তিপুর বিধানসভা কেন্দ্রে কাকে কংগ্রেস প্রার্থী করবে তা অবশ্য এখনও জানা যায়নি। বাকি তিন কেন্দ্রে প্রার্থী খুঁজে পায়নি কংগ্রেস। কারণ সংগঠন তলানিতে। তাই গোসাবা, খড়দহ এবং দিনহাটায় প্রার্থী না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাঁরা। জেলা নেতৃত্বের সঙ্গে প্রদেশ কংগ্রেসের ভার্চুয়াল বৈঠকেই সিদ্ধান্ত হয় শান্তিপুর ছাড়া বাকি তিন আসনে একুশের নির্বাচনে কংগ্রেস জোটের শরিক হিসেবে বামেদের ছেড়েছিল, তাই এবারও তেমনই ছাড়া হবে। আর শান্তিপুরে কংগ্রেস লড়াই করবে।

এই ঘোষণার পরই শান্তিপুরে যে চতুর্মুখী লড়াই হবে তা স্পষ্ট হযে গেল। এখানে বামেরা প্রার্থী ঘোষণা করে দিয়েছে। এবার কংগ্রেস সেখানে প্রার্থী দেবে বলে জানিয়ে দিল। সুতরাং এই আসনে সমঝোতা হল না। আবার বামফ্রন্ট শান্তিপুর থেকে নিজেদের প্রার্থী প্রত্যাহার করার কোনও ইঙ্গিত দেয়নি। ২০১৬ সাল থেকে বামফ্রন্ট–কংগ্রেস জোট হওয়ার পর থেকেই এই আসনটিতে কংগ্রেস প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে আসছে।

সদ্য তিন বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যে দুটিতেই চতুর্মুখী লড়াই হয়েছে। তাতে কারও খুব একটা লাভ হয়নি। কংগ্রেস খানিকটা প্রাসঙ্গিক হলেও ভামেদের তেমন কোনও সাফল্য উঠে আসেনি। বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসুকে ইতিমধ্যেই অধীররঞ্জন চৌধুরী জানান, তিন আসনে কংগ্রেস বামেদের সমর্থন করবে। পরিবর্তে শান্তিপুর থেকে প্রার্থী প্রত্যাহার করুক বামেরা। সূত্রের খবর, বামফ্রন্ট তাতে রাজি হয়নি।

বন্ধ করুন