বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > কার বাড়িতে আগে জলের সংযোগ দেওয়া হবে? ঝামেলা থেকে গুলি চলল ডোমজুড়ে

কার বাড়িতে আগে জলের সংযোগ দেওয়া হবে? ঝামেলা থেকে গুলি চলল ডোমজুড়ে

কার বাড়িতে আগে জলের সংযোগ দেওয়া হবে? ঝামেলা থেকে গুলি চলল ডোমজুড়ে

নিশ্চিন্দা থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে রমেশকে আটক করে নিয়ে যায়।

‌বাড়ি বাড়ি জলের পাইপ লাইন দেওয়ার কাজ চলছিল। তখনই পাইপ লাইন দেওয়া নিয়ে ঝামেলা বাঁধে। হঠাৎ এলাকার এক যুবকের বিরুদ্ধে গুলি চালানোর অভিযোগ উঠল। এরপরই গোটা এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। পুলিশ এসে ওই যুবককে আটক করে নিয়ে যায়। পিস্তলটি অবশ্য পাওয়া যায়নি।

জানা গিয়েছে, ডোমজুড় বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত নিশ্চিন্দার সাঁপুইপাড়ায় ১২ নম্বর পোল এলাকায় বাড়ি বাড়ি জলের পাইপলাইন দেওয়ার কাজ চলছিল। তখনই কার বাড়ির পাইপ লাইনে আগে সংযোগ দেওয়া হবে, তা নিয়ে বচসা বাঁধে। তারক মাহাতো নামে এলাকার এক যুবকের দাবি, জলের পাইপলাইন দেওয়ার কাজ যখন শুরু হয়, তখন রমেশ নামে এক যুবক বলতে থাকেন যে তাঁর বাড়িতে আগে জলের লাইন দিতে হবে। এখান থেকেই গণ্ডগোলের সূত্রপাত। যাঁরা জলের পাইপ লাইনের কাজ করতে এসেছিলেন, তাঁরা বলেন, নিয়ম অনুযায়ী পরপর বাড়িতে লাইন দেওয়া হবে। এতেই প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন রমেশ। কাজ করতে আসা শ্রমিকদের গালিগালাজ করতে শুরু করেন তিনি। মারধরও করেন। প্রতিবেশীদের সঙ্গেও খারাপ ব্যবহার করতে থাকেন। তারইমধ্যে হঠাৎ পিস্তল বের করে গুলি চালাতে শুরু করেন রমেশ। দুই রাউন্ড গুলি চালান। শূন্যে এক রাউন্ড গুলি চালানোর পাশাপাশি মাটির দিকে তাক করে আরও এক রাউন্ড গুলি চালানো হয়।

এই ঘটনার পরই এলাকায় হুলুস্থুলু কাণ্ড শুরু হয়ে যায়। সঙ্গে সঙ্গে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। নিশ্চিন্দা থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে রমেশকে আটক করে নিয়ে যায়। তবে তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছে রমেশ। তাঁর মতে, তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে। এইরকম কোনও ঘটনাই নয়। পুলিশ ইতিমধ্যে গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। এই ঘটনার সঙ্গে কোনও রাজনীতির যোগ আছে কিনা, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

বন্ধ করুন