বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ঘুমন্ত স্ত্রীকে গুলি চালালো স্বামী, অশান্তির জেরে খুনের চেষ্টার অভিযোগ
 ঘুমন্ত স্ত্রীকে গুলি করে পালিয়ে গেল স্বামী, অশান্তির জেরে খুনের চেষ্টার অভিযোগ। (ছবিটি প্রতীকী)

ঘুমন্ত স্ত্রীকে গুলি চালালো স্বামী, অশান্তির জেরে খুনের চেষ্টার অভিযোগ

অভিযুক্ত স্বামী সাবিরুল শেখ এলাকা ছেড়ে পালিয়েছেন।

ঘুমন্ত স্ত্রীকে লক্ষ্য করে গুলি চালালো স্বামী। এমনই অভিযোগ উঠেছে জয়নগর থানার অন্তর্গত ঢোষা-চন্দনেশ্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের তিলপী গ্রামে। বর্তমানে বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন ওই গৃহবধূ। এই ঘটনায় অভিযুক্ত স্বামী সাবিরুল শেখ এলাকা ছেড়ে পালিয়েছেন বলে স্থানীয়দের দাবি।

পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে, আহত গৃহবধূর নাম আয়েশা শেখ। তিনি সাবিরুলের দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রী। প্রথম স্ত্রীর কথা না জানিয়ে আয়েশাকে এক প্রকার জোর করে, ভয় দেখিয়ে বিয়ে করেছিল সাবিরুল। সমস্যার সূত্রপাত হয় সাবিরুলের প্রথম পক্ষের স্ত্রী থাকার কথা জানতে পারার পর। এই নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর কলহ শুরু হয়। প্রতিবেশীদের দাবি, তাদের মধ্যে প্রতিদিনই অশান্তি লেগে থাকত। এমনকি মাসখানেক আগে সংসারে অশান্তির জেরে সাবিরুল শ্বশুর বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দিয়েছিল বলেও অভিযোগ করেছেন প্রতিবেশীরা। সেই সময় সালিশি সভায় সমস্যা সমাধান হলে আবার আয়েশা সাবিরুলের কাছে ফিরে আসে।

তবে সম্প্রতি সাবিরুলের প্রথম বিয়ের কথা জানার পর তাদের মধ্যে কলহ আরও প্রকট হয়েছে বলে দাবি করছেন প্রতিবেশীরা।

জানা যাচ্ছে, সোমবার রাতে পার্শ্ববর্তী গ্রাম মনসাতলায় একটি রাজনৈতিক সভার কারণে গ্রামের লোকজন সেখানে গিয়েছিলেন। গ্রাম ফাঁকা থাকার সুযোগে সোমবার রাতেই ঘুমন্ত স্ত্রীর ওপর গুলি চালায় সাবিরুল। প্রতিবেশীরা সভা থেকে ফিরে আয়েশার কাতরানো আওয়াজ শুনতে পেয়ে ছুটে যান। সেখানে আয়েশাকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রাই তাকে প্রথমে পদ্মেরহাট হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে সেখান থেকে বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে ট্রান্সফার করা হয় ওই গৃহবধুকে। অন্যদিকে, এই ঘটনায় আয়েশার পরিবারের তরফে সাবিরুলের বিরুদ্ধে জয়নগর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ পাওয়ার পরেই সাবিরুলের খোঁজ শুরু করছে পুলিশ।

বন্ধ করুন