বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > প্রেমিকের আত্মহত্যার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে অভিমানে আত্মঘাতী প্রেমিকা
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

প্রেমিকের আত্মহত্যার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে অভিমানে আত্মঘাতী প্রেমিকা

  • স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বুধবার সন্ধ্যায় ভাড়াবাড়ি থেকে মনোজিতের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। খবর পেয়ে দেখতে যান পূজা। মনোজিতের দেহ দেখে বাড়ি ফিরে ভেঙে পড়েন তিনি।

প্রেমিকের আত্মহত্যার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে আত্মঘাতী হলেন প্রেমিকাও। ঘটনার হুগলির উত্তরপাড়ার কানাইপুরের। নিহত যুগল মনোজিৎ সিংহ ও পূজা শীল। দুজনেই কৃতি ছাত্র। ঘটনায় শোকস্তব্ধ এলাকা।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, কর্মসূত্রে কানাইপুরের ন’পাড়ায় ভাড়া থাকতেন পূর্ব বর্ধমানে কেতুগ্রামের বাসিন্দা মনোজিৎ (২৮)। ইঞ্জিনিয়ারিং পাশ করে একটি বেসরকারি সংস্থায় কর্মরত ছিলেন তিনি। তাঁর সঙ্গে প্রণয়ের সম্পর্ক গড়ে ওঠে কানাইপুর কলোনির বাসিন্দা পূজা শীলের (২৬)। পূজা দর্শনশাস্ত্র নিয়ে গবেষণা করছিলেন। কৃতি দুই ছাত্রের সম্পর্কের চরম পরিণতি হল বুধবার।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বুধবার সন্ধ্যায় ভাড়াবাড়ি থেকে মনোজিতের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। খবর পেয়ে দেখতে যান পূজা। মনোজিতের দেহ দেখে বাড়ি ফিরে ভেঙে পড়েন তিনি। রাতে বোনের সঙ্গে শুতে যান। গভীর রাতে শৌচাগারে যাওয়ার কথা বলে বেরিয়ে আত্মঘাতী হন যুবতী।

পূজার কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে একটি সুইসাইড নোট। তাতে তিনি লিখেছেন, ‘মনোজিৎ চলে গেল। আমাদের সামান্য ঝগড়া হয়েছিল। মরে যাচ্ছি। কারও কথা ভাবি না বলে নয়। ও যে বিনা কারণে মরে গেল সেজন্য সবাই আমাকে দায়ী করবে। আমার পরিবারকে দায়ী করবে। তাই যাচ্ছি।’

পূজার মা জানিয়েছেন, রাত ১১টা নাগাদ মেয়ে টয়লেটে যাচ্ছি বলে ঘর থেকে বেরোয়। কিছুক্ষণ পর শৌচাগারে ওকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পাই। মনোজিতের আত্মহত্যা মেনে নিতে পারেনি ও।

 

বন্ধ করুন