বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > আজই পশ্চিমবঙ্গে শেষ সার্বিক লকডাউন? এমনই ইঙ্গিত দিলেন এক সরকারি আধিকারিক
লকডাউন। পার্ক সার্কাস সেভেন পয়েন্ট ক্রসিং। ছবি সৌজন্যে  : টুইটার
লকডাউন। পার্ক সার্কাস সেভেন পয়েন্ট ক্রসিং। ছবি সৌজন্যে  : টুইটার

আজই পশ্চিমবঙ্গে শেষ সার্বিক লকডাউন? এমনই ইঙ্গিত দিলেন এক সরকারি আধিকারিক

  • রাজ্যে এই সার্বিক লকডাউন প্রসঙ্গে এক সরকারি আধিকারিক জানান, এই লকডাউনের ব্যাপারে কেন্দ্রকে জানানো হয়েছে এবং সমস্ত প্রটোকল মেনেই লকডাউন চলছে এই রাজ্যে।

পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে চলছে সেপ্টেম্বর মাসের দ্বিতীয় সার্বিক লকডাউন। আর এক শীর্ষস্থানীয় সরকারি আধিকারিকের মতে, সম্ভবত এটিই রাজ্যের শেষ লকডাউন। তাঁর কথায়, করোনা সংক্রমণ রুখতে রাজ্য জুড়ে জারি করা লকডাউন সম্ভবত এদিনেই শেষ। কারণ, এখনও পর্যন্ত পরবর্তী লকডাউনের ব্যাপারে কোনও সিদ্ধান্ত নেয়নি রাজ্য সরকার। এরই মধ্যে বাতিল হয়ে গিয়েছে ১২ সেপ্টেম্বরের লকডাউন।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন সরকারের তরফ থেকে আগেই ঘোষণা করা হয় যে ৭, ১১ ও ১২ সেপ্টেম্বর রাজ্য জুড়ে লকডাউন পালিত হবে। কিন্তু ১৩ তারিখ, রবিবার ‌‌সর্বভারতীয় মেডিক্যাল প্রবেশিকা পরীক্ষা (‌NEET)‌ থাকায় পরীক্ষার্থীদের কথা ভেবে তার আগের দিন ১২ সেপ্টেম্বর, শনিবার লকডাউন বাতিল করে দেওয়া হয়। বৃহস্পতিবার টুইট করে এ খবর জানান খোদ মুখ্যমন্ত্রী।

এদিকে, লকডাউন সফল করতে কড়াকড়ি জারি রেখেছে পুলিশ। শুক্রবার সকাল থেকে রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় ব্যারিকেড দিয়ে নাকা চেকিং শুরু হয়েছে। গাড়ি তল্লাশির পাশাপাশি রাস্তায় লোকজন দেখলে তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদও করছে পুলিশ। সকালে কলকাতার এজেসি বোস রোডে ফ্লাইওভার থেকে নামার সময় একটি লরি না দাঁড়ানোয় সেটিকে আটক করে চালককে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। লকডাউনের নিয়ম না মেনে বাইক নিয়ে রাস্তায় বেরনোর দায়ে লেকটাউনে ২ যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, কেন্দ্র সরকার আনলক–৪ জারি করার সময় নির্দেশিকায় জানায়, কেন্দ্রের অনুমতি ছাড়া রাজ্যে লকডাউন করা যাবে না। তার পরেও রাজ্যে এই সার্বিক লকডাউন প্রসঙ্গে এক সরকারি আধিকারিক জানান, এই লকডাউনের ব্যাপারে কেন্দ্রকে জানানো হয়েছে এবং সমস্ত প্রটোকল মেনেই লকডাউন চলছে এই রাজ্যে। অগস্টে পশ্চিমবঙ্গে সার্বিক লকডাউন চলে ৬ দিন। ওই ৬ দিনে লকডাউনের বিধিভঙ্গের অভিযোগে রাজ্য জুড়ে প্রায় ৫ হাজার জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। শুধু মাস্ক না পরার জন্যই ধরা হয় প্রায় আড়াই হাজার মানুষকে।

পশ্চিমবঙ্গের স্বাস্থ্য দফতরের এক আধিকারিক জানান, রাজ্যে করোনা পরিস্থিতির ধীরে ধীরে উন্নতি হচ্ছে। যদিও এখনও নিশ্চিন্ত হওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই। দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা বাড়লেও সুস্থতার হার আগে থেকে অনেকটাই ভাল। ১০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রাজ্যে মোট ১ লক্ষ ৯৩ হাজার ১৭৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। বিগত কয়েক সপ্তাহ ধরে নতুন করে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা থাকছে ৩ হাজার আশপাশে। শুক্রবার পর্যন্ত কলকাতায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৪৪,৯৫৭। মোট ৩৯,৯৭৯ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা।

বন্ধ করুন