বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Subhas Sarkar: বাঁকুড়ায় BJP অফিসে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ, আটকে পড়লেন মন্ত্রী সুভাষ সরকার

Subhas Sarkar: বাঁকুড়ায় BJP অফিসে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ, আটকে পড়লেন মন্ত্রী সুভাষ সরকার

কেন্দ্রীয় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী সুভাষ সরকার। নিজস্ব ছবি।

BJPর জেলা কার্যালয়ে জেলা নেতৃত্বের বৈঠক চলাকালীন হামলা চালানোর অভিযোগ। আক্রান্ত জেলা সভাপতি, উঠল ‘সুভাষ সরকার দূর হঠো’ স্লোগান।

দলীয় কর্মীদেরই বিক্ষোভের জেরে দলীয় কার্যালয়েই বন্দি হয়ে রইলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সুভাষ সরকার। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ তুলে দলীয় কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দেন কয়েকজন বিজেপি কর্মী। পরে CISF জওয়ানরা এসে মন্ত্রীকে উদ্ধার করেন।

বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার দলের বাঁকুড়া জেলা কার্যালয়ে সাংগঠনিক বৈঠক ছিল। বৈঠকে সুভাষবাবু ছাড়াও হাজির ছিলেন দলের জেলা সভাপতি সুনীল রূদ্র মণ্ডল। অভিযোগ, হঠাৎই জনা কয়েক যুবক কার্যালয়ে এসে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। নিজেদের বিজেপি কর্মী বলে দাবি করে সুভাষবাবুর বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ তুলে তুমুল বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন তাঁরা। ‘সুভাষ সরকার দূর হঠো’ স্লোগান ওঠে। এমনকী জেলা সভাপতিকে মারধর করা হয় বলেও অভিযোগ। এর পর বিক্ষোভকারীরা দলীয় কার্যালয়ে তালা দিয়ে দেন। এর ফলে কার্যালয়ের ভিতরে আটকে পড়েন সুভাষবাবুসহ অন্য নেতারা।

এই ঘটনার জেরে বিজেপি কার্যালয়ের সামনে তুমুল উত্তেজনা ছড়ায়। ঘটনার কথা ফোনে নিজের নিরাপত্তারক্ষীদের জানান কেন্দ্রীয় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী। সঙ্গে সঙ্গে তাঁর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা CISF জওয়ানরা বিজেপি কার্যালয়ে এসে তালা ভেঙে তাঁকে উদ্ধার করে।

বিজেপির দাবি, এই ঘটনা তৃণমূলের পরিকল্পনা প্রসূত। হামলাকারীদের সঙ্গে বিজেপির কোনও যোগ নেই। বিজেপিকে নিয়ে মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি ছড়াতেই তৃণমূল এই পরিকল্পনা করেছে। হামলাকারীদের ছবি সিসিটিভির ফুটেজে স্পষ্ট দেখা গিয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ জানানো হবে। বিজেপির অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। তাদের দাবি, নিজেদের গোষ্ঠীকোন্দলের দায় তৃণমূলের ওপর চাপানোর চেষ্টা চালাচ্ছে বিজেপি।

 

বন্ধ করুন