বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > চাকরি পাবেন ২৫,০০০ মানুষ, তিন বছরের মধ্যে তাজপুর বন্দরের কাজ শেষের ভাবনা রাজ্যের
তাজপুর গভীর বন্দর তৈরির কাজ দ্রুত শুরু হতে চলেছে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
তাজপুর গভীর বন্দর তৈরির কাজ দ্রুত শুরু হতে চলেছে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

চাকরি পাবেন ২৫,০০০ মানুষ, তিন বছরের মধ্যে তাজপুর বন্দরের কাজ শেষের ভাবনা রাজ্যের

  • সেখানে বন্দর নির্মাণের জন্য ইতিমধ্যেই আগ্রহ দেখিয়েছে একাধিক সংস্থা।

তাজপুরে গভীর সমুদ্র বন্দর তৈরির প্রকল্প বহুদিনের। এ নিয়ে কেন্দ্র ও রাজ্যের তরজা চলছে প্রথম থেকেই। সেই জট কাটিয়ে এবার দ্রুতই শুরু হতে চলেছে তাজপুর গভীর সমুদ্র বন্দর নির্মাণের কাজ।

সেখানে বন্দর নির্মাণের জন্য ইতিমধ্যেই আগ্রহ দেখিয়েছে একাধিক সংস্থা। তার মধ্যে যেমন দেশীয় সংস্থা রয়েছে, তেমনই রয়েছে আন্তর্জাতিক কিছু সংস্থা। এ নিয়ে ইতিমধ্যেই আগ্রহপত্র জমা দিয়েছে একাধিক সংস্থা। চলতি মাসের শেষ পর্যন্ত এই আগ্রহপত্র জমা নেওয়া হবে।  এক আধিকারিক জানিয়েছেন, সংস্থাগুলির কাছ থেকে আগ্রহপত্র পাওয়ার পর তা খতিয়ে দেখে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে সময় লেগে যাবে আরও তিন মাস। কর্তৃপক্ষ আশা করছে আগামী তিন বছরের মধ্যে অর্থাৎ ২০২৫ সালের মধ্যে তাজপুর গভীর সমুদ্র নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়ে তা চালু হয়ে যেতে পারে।

বর্তমানে পণ্য সরবরাহের জন্য ধামড়া এবং হলদিয়া বন্দরের উপরেই বিভিন্ন শিল্প সংস্থাকে ভরসা রাখতে হয়। তবে তাজপুর বন্দর নির্মাণ হয়ে গেলে পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে বিভিন্ন শিল্প সংস্থার সমস্যা অনেকটাই কমবে বলে আশা করছেন। মার্চেন্ট চেম্বার অব কমার্সের এক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়ে তাজপুর বন্দর সম্পর্কে এই গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন তিনি।তাজপুর বন্দর নির্মাণ হলে সে ক্ষেত্রে প্রায় ২৫ হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হবে বলে আশা রাজ্য সরকারের। এর ফলে অনেক বেকার যুবক কাজ পাবেন।

বন্ধ করুন