বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Dankuni Municipality: টোল প্লাজায় নিয়োগ করলে জানাতে হবে, পুরসভার প্যাডে চিঠি দিয়ে বিতর্কে কাউন্সিলর

Dankuni Municipality: টোল প্লাজায় নিয়োগ করলে জানাতে হবে, পুরসভার প্যাডে চিঠি দিয়ে বিতর্কে কাউন্সিলর

কাউন্সিলর হাসান মণ্ডল।

হাসান মণ্ডল গত ৩১ ডিসেম্বর ওই সংস্থাকে চিঠি দিয়েছেন। তিনি জানান, ‘ওই টোল প্লাজাটি আমার ওয়ার্ডে পড়ে। তাই শূন্য পদ ফাঁকা রয়েছে কিনা তা নিয়ে আমি ডেপুটেশন দিয়েছি। কর্মী নিয়োগ হলে, সে ক্ষেত্রে জানাতে বলেছি। কারণ আমার এলাকায় অনেক ছেলে রয়েছে যাদের চাকরির প্রয়োজন।’

টোল প্লাজায় কর্মী নিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়ে চিঠি দিয়ে বিতর্কে জড়ালেন ডানকুনি পুরসভা তৃণমূল কাউন্সিলর। চিঠিতে টোল প্লাজার রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে থাকা সংস্থাকে তিনি জানিয়েছেন কর্মী নিয়োগ করতে হলে অবশ্যই তার মতামত নিতে হবে। একথা তিনি দিয়েছেন পুরসভার লেটার প্যাডে। বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই ওই তৃণমূল কাউন্সিলর হাসান মণ্ডলের বিরুদ্ধে নিয়োগের ক্ষেত্রে বেনিয়নের অভিযোগ তুলেছেন বিরোধীরা। যদিও সেই অভিযোগ মানতে নারাজ তৃণমূল কাউন্সিলর। তবে দলও তাঁর পাশে দাঁড়ায়নি।

জানা গিয়েছে, হাসান মণ্ডল গত ৩১ ডিসেম্বর ওই সংস্থাকে চিঠি দিয়েছেন। তিনি জানান, ‘ওই টোল প্লাজাটি আমার ওয়ার্ডে পড়ে। তাই শূন্য পদ ফাঁকা রয়েছে কিনা তা নিয়ে আমি ডেপুটেশন দিয়েছি। কর্মী নিয়োগ হলে, সে ক্ষেত্রে জানাতে বলেছি। কারণ আমার এলাকায় অনেক ছেলে রয়েছে যাদের চাকরির প্রয়োজন। তাঁদের নিয়োগ না করে বাইরে থেকে লোক নিয়োগ করা হচ্ছে। এতে এলাকার মানুষজন আমার উপর ক্ষুব্ধ হচ্ছেন। তাই আমি এই চিঠি দিয়েছি।’ যদিও এক্ষেত্রে তিনি কাটমানির অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, ‘আমি চাইছি মানুষকে সাহায্য করতে।’

এবিষয়ে বিজেপির শ্রীরামপুর জেলা সাংগঠনিক সভাপতি মোহন আদক বলেন, ‘তৃণমূল যোগ্য বেকারদের চাকরি চুরি করছে। আর সেই জায়গায় চাকরির জন্য সুপারিশ করছে। এটা অত্যন্ত লজ্জার বিষয়। এটাই তৃণমূল।’ সিপিআইএমের ডানকুনি এরিয়া কমিটির সম্পাদক মানিক সরকার বলেন, ‘তৃণমূলের আমলে টাকা ছাড়া কারও চাকরি হয় না। ওদের সবাই দুর্নীতিগ্রস্ত।’

যদিও টোল প্লাজার তৃণমূল শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি তথা হুগলি জেলা পরিষদের পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ সুবীর মুখোপাধ্যায় এই বিষয়টিকে মোটেই সমর্থন জানাননি। তিনি বলেন, ‘এটা খুবই ভুল কাজ। দলের সমস্ত নেতাকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। কর্মী নিয়োগ করার বিষয়টি সম্পূর্ণ টোল প্লাজা কর্তৃপক্ষের নিজের।’ তবে চিঠি দিয়ে কোনও ভুল কাজ করেননি বলেই জানিয়েছেন হাসান মণ্ডল।

বন্ধ করুন