বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক স্বামীর, আদালতের সামনেই কলার ধরে পেটালেন স্ত্রী
বারাকপুর আদালত। ফাইল ছবি

বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক স্বামীর, আদালতের সামনেই কলার ধরে পেটালেন স্ত্রী

  • জানা গিয়েছে, ওই যুবকের নাম মিথিলেশ মাহাতো এবং তার স্ত্রীর নাম মালা। তাদের বিয়ে হয়েছিল বছর ছয়েক আগে। তারা বারাকপুরের দাসপাড়ার বাসিন্দা। তাদের একটি সন্তান রয়েছে। দ্বিতীয়বার মা হতে চলেছেন মালা। তার পরিবারের অভিযোগ অভিযোগ, প্রতিনিয়ত মালাকে মারধর করে মিথিলেশ।

আদালতের সামনে দেখা গেল এক অন্য দৃশ্য। বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের অভিযোগ তুলে স্বামীকে বেধড়ক পেটালেন স্ত্রী। বাদ গেল না যুবকের প্রেমিকাও। তাকে চুল ধরে গাড়িতে করে নিয়ে গেল বাবা মা। এমন দৃশ্য দেখা গেল বারাকপুর মহকুমা আদালতের সামনে। যা দেখে কার্যত ভিড় জমান পথচারী থেকে শুরু করে স্থানীয় দোকানদাররা। অনেকেই আবার স্বামী-স্ত্রীর মারধরের ভিডিয়ো রেকর্ডিং করলেন।

আরও পড়ুন: রিক্সার এজেন্ট সেজে ২৫ বছর পুরোনো খুনের মামলার কিনারা করলেন ৪ পুলিশকর্মী

জানা গিয়েছে, ওই যুবকের নাম মিথিলেশ মাহাতো এবং তার স্ত্রীর নাম মালা। তাদের বিয়ে হয়েছিল বছর ছয়েক আগে। তারা বারাকপুরের দাসপাড়ার বাসিন্দা। তাদের একটি সন্তান রয়েছে। দ্বিতীয়বার মা হতে চলেছেন মালা। তার পরিবারের অভিযোগ অভিযোগ, প্রতিনিয়ত মালাকে মারধর করে মিথিলেশ। সন্তানের কোনও দায়িত্ব নিতে চায় না। এমনকি অন্তঃসত্তা স্ত্রীর পেটেও লাথি মেরেছে বলে অভিযোগ। এ নিয়ে যুবককে বারবার মালার পরিবারের তরফে অনুরোধ, হুঁশিয়ারি সত্ত্বেও অত্যাচার কমেনি। সম্প্রতি মালা জানতে পেরেছে ওই যুবকের বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক রয়েছে। বিষয়টি জানার পরে মালার সঙ্গে মিথিলেশের প্রতিনিয়ত অশান্তি লেগেই থাকতো।

আদালত চত্বরের সামনে স্বামীকে তার প্রেমিকার সঙ্গে দেখতে পেয়ে প্রচন্ড ক্ষুব্ধ হয়ে যান মালা। এরপরে সেখানে মালা তার স্বামীকে জামার কলা ধরে মারধর করতে শুরু করে। জানা গিয়েছে, মিথিলেশের প্রেমিকার অন্য এক যুবকের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল। তবে প্রেমের টানে সে স্বামীরকে ছেড়ে চলে এসেছে। খবর পেয়ে মালার পরিবার এবং ওই তরুণীর পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা সেখানে চলে আসেন। তরুণীর বাবা তাকে মারধর করে সেখান থেকে নিয়ে চলে যায়। যদিও যুবককে এই বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে সে কিছুই জানাতে চাইনি। বিষয়টি পারিবারিক বলেই সে এড়িয়ে যেতে চায়। অন্যদিকে, ওই তরুণীও এ বিষয়ে কিছু জানাতে চাইনি।

বন্ধ করুন