বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বিরোধী জোটের প্রধানমন্ত্রীদের পরিণতি দেশ দেখেছে, মমতার জোটবার্তাকে কটাক্ষ BJP-র
বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্য। ফাইল ছবি
বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্য। ফাইল ছবি

বিরোধী জোটের প্রধানমন্ত্রীদের পরিণতি দেশ দেখেছে, মমতার জোটবার্তাকে কটাক্ষ BJP-র

  • মমতার উদ্যোগকে তাঁর কটাক্ষ, ‘উনি তো ৫ বছর হল মোদী বিরোধিতায় নেমেছেন। কংগ্রেস ও অন্যান্য বিরোধী দল অনেক আগে থেকেই এসব করে আসছে। দেশে মোদী বিরোধিতা যত বেড়েছে তত জনপ্রিয়তা বেড়েছে প্রধানমন্ত্রীর।

একুশে জুলাইয়ের মঞ্চ থেকে দেশজুড়ে বৃহত্তর বিরোধী জোট গঠনের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আহ্বানকে কটাক্ষ করল বিজেপি। বুধবার সাংবাদিক বৈঠকে বিজেপি মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য বলেন, বিরোধী জোটের প্রধানমন্ত্রীদের কী পরিণতি হয়েছে তা দেশবাসী একাধিকবার দেখেছে।

এদিন শমীকবাবু বলেন, উনি বিরোধী জোট গড়তে চান, ভাল কথা। কিন্তু মোরারজি দেশাই, চন্দ্রশেখর, ভিপি সিং, ইন্দ্রকুমার গুজরাল ও এইচডি দেবেগৌড়ার কী পরিণতি হয়েছে তা সবাই দেখেছে।

তৃণমূলকে বিভিন্ন রাজ্যে ছড়িয়ে দেওয়ার মমতার আহ্বানকে কটাক্ষ করে শমীকবাবু বলেন, ‘অসমে বাঙালিদের পাশে দাঁড়ানোর নাম করে গিয়েছিল তৃণমূল। সেখানে ওদের জামানতের জামানত জব্দ হয়েছে। আজ দিল্লির কোন ক্লাবে ওরা ভাষণ শোনানোর ব্যবস্থা করেছিল। সেখানে কজন লোক হয়েছে খবর নিন।’

মমতার উদ্যোগকে তাঁর কটাক্ষ, ‘উনি তো ৫ বছর হল মোদী বিরোধিতায় নেমেছেন। কংগ্রেস ও অন্যান্য বিরোধী দল অনেক আগে থেকেই এসব করে আসছে। দেশে মোদী বিরোধিতা যত বেড়েছে তত জনপ্রিয়তা বেড়েছে প্রধানমন্ত্রীর। ভারতবাসী অস্থিতরা চায় না। তারা স্থায়িত্বের পক্ষে।’

গত বছরের মতো এবছরও ২১ জুলাইয়ের ভার্চুয়াল ভাষণে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের সুর বেঁধে দেন। দিল্লির বিরোধী নেতাদের উদ্দেশে তিনি বলেন ভোটের আগে জোট করলে হবে না। জোট করতে হবে এখন থেকে। সঙ্গে ‘খেলা হবে’ স্লোগানের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন রাজ্যে তৃণমূলকে ছড়িয়ে দেওয়ার ডাক দেন তিনি।

 

বন্ধ করুন