বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বিজেপির জেলা সভাপতিকে জুতোপেটা মহিলা কর্মীর, কলকাতা হাইকোর্টে তুলকালাম

বিজেপির জেলা সভাপতিকে জুতোপেটা মহিলা কর্মীর, কলকাতা হাইকোর্টে তুলকালাম

বিজেপির জেলা সভাপতিকে জুতোপেটা

কুলপি বিধানসভার পঞ্চায়েত নির্বাচন নিয়ে একটি মামলার জন্য কলকাতা হাইকোর্টে হাজির হয়েছিলেন প্রদ্যুৎ বৈদ্য। তখন ভরা আদালতেই তাঁকে জুতো পেটা করতে শুরু করেন বিজেপিরই কয়েকজন মহিলা কর্মী বলে অভিযোগ। তবে কেন তিনি এভাবে নিগৃহীত হলেন?‌ সেটা কিন্তু এখনও কিছু জানা যায়নি। 

এবার খোদ আদালত চত্বরে বিজেপির সাংগঠনিক জেলা সভাপতিকে জুতোপেটা করলেন ওই দলেরই মহিলা কর্মীরা। এই ঘটনায় ব্যাপক আলোড়ন পড়ে গিয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভিডিয়ো ভাইরাল হয়ে গিয়েছে (‌যা যাচাই করেনি হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা ডিজিটাল)‌। বিজেপির জেলা সভাপতিকে জুতোপেটা করার অভিযোগ উঠেছে। বিজেপির এক মহিলা কর্মী তাঁকে জুতোপেটা করেন বলেও অভিযোগ। নিজের দলের মহিলা কর্মীর হাতে মার খেলেন মথুরাপুর সাংগঠনিক জেলার বিজেপির সভাপতি প্রদ্যুত বৈদ্য। যা এখন দলের অন্দরে চর্চিত হচ্ছে।

এদিকে ওই বিজেপি নেতা মথুরাপুর সাংগঠনিক জেলা সভাপতি প্রদ্যুৎ বৈদ্য নিজে মুখে কুলুপ এঁটেছেন। গতকাল, বৃহস্পতিবার কুলপি বিধানসভার পঞ্চায়েত নির্বাচন নিয়ে একটি মামলার জন্য কলকাতা হাইকোর্টে হাজির হয়েছিলেন প্রদ্যুৎ বৈদ্য। তখন ভরা আদালতেই তাঁকে জুতো পেটা করতে শুরু করেন বিজেপিরই কয়েকজন মহিলা কর্মী বলে অভিযোগ। তবে কেন তিনি এভাবে নিগৃহীত হলেন?‌ সেটা কিন্তু এখনও কিছু জানা যায়নি। এই ঘটনায় বিজেপির পাল্টা অভিযোগ, এই ঘটনার সঙ্গে বিজেপির কেউ যুক্ত নেই। যাঁরা এসব করেছে, তাঁদের দল থেকে আগেই বহিষ্কার করা হয়েছে।

অন্যদিকে এই জুতোপেটার ঘটনাকে বিজেপির অন্তর্কলহ বলে দাবি করেছেন সুন্দরবন তৃণমূল কংগ্রেসের সংগঠনের যুব সভাপতি বাপি হালদার। তাঁর কথায়, ‘‌পঞ্চায়েতের প্রধান উপপ্রধান গঠন এবং টাকা লেনদেন নিয়েই প্রকাশ্যে জুতোপেটা করেছে ওই নেতাকে। বিষয়টি নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস চিন্তিত নয়। বিজেপি একটা চোর–চিটিংবাজের দল। লুটে খাওয়ার দল ওরা। নিজেদের মধ্যে ভাগ–বাঁটোয়ারা নিয়ে গণ্ডগোলের জেরেই এমন ঘটনা ঘটেছে।’ বিজেপি অবশ্য বলছে, এটা আসলে দলের জেলা সভাপতির বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ তুলে দলকে কালিমালিপ্ত করার চেষ্টা। এই ঘটনার পিছনে তৃণমূল কংগ্রেসের হাত রয়েছে।

আরও পড়ুন:‌ ‘‌আমি অসহায়’‌, এজলাসে অসন্তোষ প্রকাশ করলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি

ঠিক কী বলছেন প্রদ্যুৎ বৈদ্য?‌ মথুরাপুর সাংগঠনিক জেলার বিজেপির সভাপতি প্রদ্যুত বৈদ্য দলের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে এই ঘটনার কথা জানিয়েছেন। তিনি সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘‌আগামী ১০ অগস্টের মধ্যে মথুরাপুর কৃষ্ণচন্দ্রপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠন করার কথা আছে। তবে তার আগেই বিজেপির জয়ী প্রার্থীদের নামে কয়েকটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাই আগাম জামিন নিতেই কলকাতা হাইকোর্টে এসেছিলাম। যারা এই কাণ্ড ঘটিয়েছে তারা বিজেপির কেউ নয়। দল থেকে অনেক আগেই তাদের বহিষ্কার করা হয়েছে। এটা তৃণমূলের চক্রান্ত।’‌

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

এবার গোটা দেশে KYC প্রক্রিয়ায় আসছে বড় বদল? কেন্দ্রের প্যানেলের প্রস্তাবে জল্পনা সুশান্ত মামলায় স্বস্তিতে রিয়া, অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে জারি হওয়া LOC খারিজ আদালতের আমিরের প্রাক্তন স্ত্রী তকমা না-পসন্দ, ১৩ বছরের ছেলেকে নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত কিরণের নৌবাহিনীর জন্য ২০০ ব্রহ্মোস মিসাইল কিনবে সরকার, মিলল ১৯০০০ কোটির চুক্তির অনুমোদন IPL 2024 থেকে ছিটকে গেলেন মহম্মদ শামি! লন্ডনে অপারেশনের জন্য যেতে পারেন GT তারকা সন্দেশখালিতে শাহজাহানের নামের ওপর হল চুনকাম, দখল হওয়া মাঠ ফেরত পেলেন স্থানীয়রা নারী সুরক্ষায় প্রকল্প, অনুমোদন করল মোদী মন্ত্রিসভা, সন্দেশখালি কি স্বস্তি পাবে ? মূল অপরাধীকে না ধরে সাংবাদিককে ধরছেন! হাইকোর্টে তুমুল ভর্ৎসিত রাজ্য পুলিশ সবে রাহুলের সঙ্গে ‘সহজ’ হয়েছে সম্পর্ক! প্রিয়াঙ্কা বলছেন, ‘চেষ্টা করছি কিন্তু…’ সন্দেশখালিতে ফের উত্তেজনা, এবার নালিশ শাজাহানের ভাই সিরাজের বিরুদ্ধে

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.